বিহার পুলিশের লাঠিচার্জে হত ৪ বাঙালি! কড়া পদক্ষেপের দাবি বাংলা পক্ষ-র।

বিহার পুলিশের লাঠিচার্জে হত ৪ বাঙালি! কড়া পদক্ষেপের দাবি বাংলা পক্ষ-র।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বিহার পুলিশের লাঠিচার্জে হত ৪ বাঙালি! কড়া পদক্ষেপের দাবি বাংলা পক্ষ-র। দূর্গা পূজার দশমীর দিন যখন বাঙালি মা দুর্গাকে বিদায় জানাচ্ছে, একে অপরকে বিজয়ের শুভেচ্ছা দিচ্ছে, সিঁদুর খেলছে আর মিষ্টি মুখ করছে তখন বিহারে মুঙ্গেরে এক মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছিল। দুর্গাপুজোর প্রতিমা বিসর্জনের শোভাযাত্রায় অংশ নিতে গিয়ে পুলিশের লাঠিচার্জ গুলির শিকার হতে হয়েছে বাঙালিকে। ৪ জন বাঙালি তাতে প্রাণ হারিয়েছেন এবং অন্তত ২৭ জন আহত হয়েছেন।

আরও পড়ুনঃ আসন্ন কালী-জগদ্ধাত্রী-ছট পুজো নিয়ে ফের জনস্বার্থ মামলা হাইকোর্টে!

এই ঘটনার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার সাথে সাথেই বাংলা পক্ষ একের পর এক প্রতিবাদ কর্মসূচি গ্রহণ করে। জেলায় জেলায় পোস্টারিং পথ সভার মাধ্যমে তারা এই ঘটনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করেছে। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী, বিহারের মুখ্যমন্ত্রী, এবং ভারত রাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কে চিঠি দিয়ে তারা এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে কড়া পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছে।

বিহার পুলিশের লাঠিচার্জে হত ৪ বাঙালি! কড়া পদক্ষেপের দাবি বাংলা পক্ষ-র। গতকাল কলকাতার ক্যামাক স্ট্রীট বিহার ভবনের সামনে বাংলা পক্ষর সহযোদ্ধারা জড়ো হয়েছিল এক প্রতিবাদী পথসভায়। তারা ডেপুটেশন জমা দিয়েছে বিহার ভবনে এবং তার সাথে সাথে খুনের বিচার এবং দোষীদের কঠোর শাস্তি দাবি করেছে। বাংলা পক্ষর সহযোদ্ধারা নিজের বক্তব্যর মাধ্যমে ইউপি, বিহার এবং মূলত গোবলয়ের রাজ্যগুলোতে বাঙালির দুরবস্থার কথা তুলে ধরেছেন এবং তাদের সুরক্ষার সুনিশ্চিত করার দাবি জানিয়েছেন।

বাঙালি দিনে দিনে আক্রান্ত হচ্ছে এই রাজ্যগুলিতে, তার খাদ্যাভ্যাস নিয়ে প্রশ্ন উঠছে, মন্দির গুড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে বাড়িঘর ভেঙ্গে দেওয়া হচ্ছে, এমনকি তারা নিজের প্রাণের পুজো দুর্গাপুজোকে পর্যন্ত শান্তিতে করতে পারছেন না। আজকের অভিযানে যারা অংশ নিয়েছিলেন তারা আরো বলেছেন যে বাংলায় ভিন রাজ্য থেকে প্রচুর মানুষ এসে থাকছে কিন্তু তাদের ওপর বাঙালিরা এরকম অত্যাচার করছে না।

তাহলে বাঙালিকে ওদের রাজ্যে এরকম পরিস্থিতির শিকার কেন হতে হচ্ছে? বাংলা পক্ষের তরফ থেকে মুঙ্গেরের মর্মান্তিক ঘটনার খবর সামাজিক মাধ্যমে ছড়াতেই বিজয়া দশমীর দিন বাঙালির ওপর শোকের ছায়া নেমে আসে। প্রচুর বাঙালি এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন এবং তারা বাংলা পক্ষর প্রতিবাদকে কর্মসূচিগুলি কে পূর্ণ সমর্থন জানিয়েছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x