Raiganj: রায়গঞ্জে উদ্ধার ২৫ জন কিশোর-কিশোরী, শিশু প্রচারের আশঙ্কা প্রশাসনের

রায়গঞ্জে উদ্ধার ২৫ জন কিশোর-কিশোরী, শিশু প্রচারের আশঙ্কা প্রশাসনের
রায়গঞ্জে উদ্ধার ২৫ জন কিশোর-কিশোরী, শিশু প্রচারের আশঙ্কা প্রশাসনের

নজরবন্দি ব্যুরোঃ  রায়গঞ্জ স্টেশনে উদ্ধার ২৫ জন কিশোর কিশোরীকে শনিবার রাতেই চাইল্ড লাইনে পাঠাল পুলিশ। অন্যদিকে শনিবার রাতেই রায়গঞ্জ রেল পুলিশের ফাঁড়িতে ডেকে পাঠানো হয় তাদের অভিভাবককে। রায়গঞ্জ জিআরপি জানিয়েছে, চারজনের অভিভাবকের লিখিত বয়ানের পর তাদের বাড়িও ছেড়ে দেওয়া হয়। ছেড়ে দেওয়া হয় অভিযুক্ত শিক্ষকও। তবে ওই কিশোর কিশোরীদের বাড়ির ঠিকানায় গিয়ে তাদের সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখে তারপর পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে বলে জানিয়েছে চাইল্ড লাইন।

আরও পড়ুনঃ Child Selling: লাখ টাকার বিনিময়ে শিশু বিক্রি, অভিযুক্ত হাওড়ার বেসরকারি হোম

উত্তর দিনাজপুর জেলা চাইল্ড লাইনের প্রতিনিধি সুব্রত সাহা বলেন, “একজন ইটাহারের শিক্ষক ২৫ জন বাচ্চা নিয়ে যাচ্ছিলেন, অথচ তাঁর কাছে কোনও বৈধ কাগজপত্র ছিল না। উনি নাকি পড়ুয়াদের ঘুরতে নিয়ে যাচ্ছিলেন। অথচ তাঁর সঙ্গে না বাচ্চাদের অভিভাবকরা কেউ ছিলেন। না কোনও অভিভাবকের লিখিত চিঠি ছিল। এমনকী স্কুলেরও কোনও লিখিত অনুমতি ছিল না। প্রথম থেকেই গোটা বিষয়টা আমার বেআইনি মনে হয়।”

সুব্রত সাহার কথায়, “আমি ভেবেইছিলাম বাচ্চাগুলোকে হোমে রাখব। পরে আমরা জিআরপির সামনে জিডি করি। জিআরপির কাছ থেকে হ্যান্ড ওভার নিয়ে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে মেডিকেল করিয়ে নিয়ে তারপর মেয়েগুলিকে দেবীনগর গার্লস হোমে রেখেছি। ছেলেদের অন্যটায় রেখেছি। ১৮ থেকে ২০ জন অভিভাবক রাতে এসেওছিলেন। তাদের স্পষ্ট আমরা বলি, বাচ্চাগুলোকে কোনও আইনি নিয়ম মেনে আপনারা দেননি। আপনারা যে বাচ্চাগুলোকে বেড়াতে যাওয়ার জন্যই ছেড়েছিলেন তার কোনও প্রমাণ নেই। সে কারণেই আপাতত ওরা হোমে আছে। বিষয়টা খতিয়ে দেখতে আমরা বাচ্চাগুলোর বাড়িতেও যাব। এলাকায় গিয়ে খতিয়ে দেখব। তার পর চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটিকে জানাব। তারাই সিদ্ধান্ত নেবে বাচ্চাগুলোকে বাড়িতে দেবে কি না।”

Raiganj Medical College: মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত ৬ মাসের শিশু, বাড়ছে তৃতীয় ঢেউয়ের আশঙ্কা | 6months old child tests COVID19 positive in Raiganj Medical College - TV9 Bangla News
রায়গঞ্জে উদ্ধার ২৫ জন কিশোর-কিশোরী, শিশু প্রচারের আশঙ্কা প্রশাসনের

সুব্রত সাহা জানান, প্রতিটা ক্ষেত্রেই তাঁদের উপর প্রভাবশালীদের একটা চাপ থাকে। যদিও উত্তর দিনাজপুর জেলা চাইল্ড লাইনের এই সদস্য জানান, “সে সব নিয়ে আমরা ভাবি না। আমরা আমাদের কাজটা করার চেষ্টা করি।”

শনিবার সন্ধ্যা। তখন রাধিকাপুর কলকাতা এক্সপ্রেস ট্রেন সবে রায়গঞ্জ স্টেশনে এসে দাঁড়িয়েছে। হঠাৎই হুলুস্থুল পরিস্থিতির সৃষ্টি হল স্টেশন চত্বরে। জানা গিয়েছে, এক ব্যক্তি লক্ষ্য করেন বেশ কিছু কিশোর- কিশোরী স্টেশন চত্বরে হুড়োহুড়ি করছে। আর তাদের প্রায় ধাক্কা দিতে দিতে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন প্রাপ্তবয়স্ক এক ব্যক্তি। দৃশ্য দেখে কেমন খটকা লাগে কৌশিক চৌধুরী নামে ওই ব্যক্তির। তাঁর কৌতূহল হয়, কেন বাচ্চাদের সঙ্গে এমন ব্যবহার করছেন উনি? আর এতগুলো বাচ্চাকে নিয়ে কোথায় বা নিয়ে যাচ্ছেন ওই ব্যক্তি?

রায়গঞ্জে উদ্ধার ২৫ জন কিশোর-কিশোরী, শনিবার রাতেই এদের চাইল্ড লাইনে পাঠাল পুলিশ

RGJ / Raiganj Railway Station | Train Arrival / Departure Timings at Raiganj
রায়গঞ্জে উদ্ধার ২৫ জন কিশোর-কিশোরী, শিশু প্রচারের আশঙ্কা প্রশাসনের

নিজেই এগিয়ে যান ওই ব্যক্তির কাছে। জানতে চান কী হয়েছে। উত্তরে তাঁকে নাকি মাঝবয়সী ওই ব্যক্তি জানান, “আমার আত্মীয়ের বিয়েতে যাচ্ছি।” কিন্তু এতগুলো বাচ্চা ছেলে মেয়ের সঙ্গে আর বড় কাউকে না দেখে সন্দেহ হয় কৌশিকবাবুর। তিনি নিজে থেকে তৎপর হয়ে খবর দেন রেল পুলিশে।এর পর রেল পুলিশের তৎপরতায় উদ্ধার হয় মোট ২১ জন কিশোর ও ৪ জন কিশোরী। খবর পাঠানো হয় উত্তর দিনাজপুর চাইল্ড লাইন-সহ রায়গঞ্জ থানায়।