তৃণমূলের সঙ্গে সংঘাত এড়াতেই কি মধ্যরাতে নন্দীগ্রামে শুভেন্দু?

তৃণমূলের সঙ্গে সংঘাত এড়াতেই কি মধ্যরাতে নন্দীগ্রামে শুভেন্দু?

নজরবন্দি ব্যুরো: পূর্ব মেদিনীপুরে আজ শহিদ দিবস। নেতাই-এর সঙ্গে সঙ্গেই আজ নন্দীগ্রামেও পালিত হচ্ছে একাধিক কর্মসুচী। নন্দীগ্রামে কাকভোরে শহিদ দিবস পালন করল ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি। সকালে সেখানে তৃণমূলের সভা ও হয়েছে, মূল বক্তা ছিলেন তৃণমূলের সুব্রত বক্সী। শহিদ দিবসের এই কর্মসুচীতে প্রতিবারই উপস্থিত থাকতেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে এবার তিনি বিজেপির কর্মী।

আরও পড়ুন: হিংসার জের, আমেরিকায় জারি জরুরি অবস্থা, গ্রেফতার ৫২

তবে এতদিনের অভ্যেস বদল করেননি তিনি। গুঞ্জন ছিল তৃণমূল বিজেপির সংঘাত নিয়ে হতে পারে ঝামেলা। সেই জন্যই গতকাল রাত ১২ টায় ভাঙাবেড়া ব্রিজের কাছে শহিদ বেদীতে শ্রদ্ধা জানান বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। আজ ভোর সাড়ে চারটেয় ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটি নন্দীগ্রামে শহিদ দিবস পালন করে। সেই মঞ্চ থেকেই কড়া ভাষায় শুভেন্দুকে আক্রমণ করেন নন্দীগ্রাম ভূমি উচ্ছেদ প্রতিরোধ কমিটির সম্পাদক, তৃণমূল নেতা শেখ সুফিয়ান। তিনি জানান নন্দীগ্রামের আন্দোলনের সময় কই তখন তো দেখা যায়নি শুভেন্দু বাবুকে।

এখন বিরোধী দলনেতা হয়ে মাঝ রাতে এসে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন তিনি। অন্যদিকে নন্দীগ্রামে গিয়ে শুভেন্দু জানান তৃণমূলের কেউ আসেনি এতদিন নন্দীগ্রামে। পরেও আসবেন না। ভোট আসছে তাই এত যাতায়াত। নন্দীগ্রামে আজ শ্রদ্ধা জানাতে যাওয়ার কথা ছিল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু সেখানের স্থানীয় নেতা অখিল গিরি করোনা আক্রান্ত থাকায় তিনি যাননি আজ। সকালে সেখানে শ্রদ্ধা জানান মেদিনীপুরের স্থানীয় নেতা এবং তৃণমূলের মন্ত্রী সুব্রত বক্সি।

তৃণমূলের সঙ্গে সংঘাত এড়াতেই কি মধ্যরাতের নন্দীগ্রামে শুভেন্দু, গতকাল মধ্যরাতে নন্দীগ্রামে শ্রদ্ধা জানানোর পর আজ সকালে নেতাইয়ে গিয়েও শহিদ দিবসের শ্রদ্ধা জানান শুভেন্দু অধিকারী। তৃণমূলের সঙ্গে সংঘাত এড়াতেই এই মধ্যরাতেই সফর বলে মনে করছেন অনেকেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x