দিদিকে বিরক্ত ও বিজেপি‌র দালালি করতে মিমের আবির্ভাব হচ্ছে: সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী

দিদিকে বিরক্ত ও বিজেপি‌র দালালি করতে মিমের আবির্ভাব হচ্ছে: সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী

নজরবন্দি ব্যুরো: দিদিকে বিরক্ত ও বিজেপি‌র দালালি করতে মিমের আবির্ভাব হচ্ছে, বিহারের পর এবার ওয়েইসির নজরে বাংলা। গতকাল সকলকে চমকে দিয়ে মিম প্রধান আসাদুদ্দিন ওয়েইসি পীরজাদা আব্বাস সিদ্দিকির সঙ্গে বৈঠক করেন। এদিকে রাজ্যে অল ইন্ডিয়া মজলিস–ই–ইত্তেহাদুল মুসলিমিনের (মিম) প্রধান তথা সাংসদ আসাউদ্দিন ওয়েইসির সফরের দিনই পাল্টা হুঁশিয়ারি দিল।

আরও পড়ুন: বিজেপি-র ‘বি’ টিম নই, বাংলায় লড়ব আব্বাসের নেতৃত্বে! ঘোষণা ওয়াইসির।

সোমবার ওয়েইসিকে তীব্র আক্রমণ করলেন জমিয়তে-উলেমায়ে হিন্দের রাজ্য সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। সেইসঙ্গে কটাক্ষ করলেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। রবিবার সিউড়ির ইদগাহ মাঠে গণবিক্ষোভ সভা করে জমিয়তে উলেমায়ে হিন্দ। সেখানে মূল বক্তা ছিলেন সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। এদিন কেন্দ্র সরকার এবং মিমকে তীব্র ভাষায় আক্রমণ করেন। তিনি বলেন, ‘আজকের দিনটি বড় দুঃখের। কারণ হায়দরাবাদ থেকে মিম নামে একটি পাখি উড়ে এসেছে। এটাও একটা বিষ মাখা খাবার। বাংলার জন্য আমরাই যথেষ্ট। হায়দরাবাদের মৌলবির দরকার নেই। দিদিকে বিরক্ত করতে বিজেপি‌র দালালি করতে মিমের আবির্ভাব হচ্ছে।’‌

আর মিমের সেই উদ্দেশ্য ব্যাখ্যা করে রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম (ববি) মুর্শিদাবাদ জেলায় কুলিতে ভিড়েঠাসা এক জনসভায় বলেন, ‘মিম বিজেপি‌র বি টিম। মিমকে ভোট দিয়ে বিজেপি’র সুবিধা করে দেবেন না।’ রবিবার জনসভায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের অনেকের হালে বিজেপিতে যোগদানের উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘অনেক মুসলিম নমাজ পড়ছেন, বিজেপি করছেন। আমি অনুরোধ করব বিষ খাবেন না। আমার ভুল হলে আমায় বলুন। অনুব্রতর ভুল হলে তাঁকে বলুন। কৃষিমন্ত্রীর ভুল হলে বলুন। কিন্তু বিষ খাবেন না।’

এছাড়া গতকাল ফুরফুরার পীরজাদা ত্বহা সিদ্দিকি বলেন, ‘সাম্প্রদায়িক শক্তি বাংলায় জায়গা পাবে না। যাঁরা পিছন থেকে মদত দিচ্ছেন, তাঁরাও সফল হবেন না। ২০২১ সালে বাংলার সংখ্যালঘু মানুষ সাম্প্রদায়িক শক্তির বিরুদ্ধে ভোট দেবেন।’

দিদিকে বিরক্ত ও বিজেপি‌র দালালি করতে মিমের আবির্ভাব হচ্ছে, এছাড়া ওয়েইসি’র বক্তব্য, বিজেপি-র ‘বি’ টিম নই, আব্বাসের নেতৃত্বে বাংলায় লড়ব। বাংলায় আব্বাস সিদ্দিকির নেতৃত্বেই এগিয়ে যাব আমরা। ওঁর পাশে থাকব আমরা। উনি যে সিদ্ধান্ত নেবেন, তাকেই সমর্থন করব।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x