শিশির-দিব্যেন্দুর জন্য ভাবনা BJP’র! কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পাচ্ছেন তৃণমূলের ২ সাংসদ

শিশির-দিব্যেন্দুর জন্য ভাবনা BJP'র! কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পাচ্ছেন তৃণমূলের ২ সাংসদ
শিশির-দিব্যেন্দুর জন্য ভাবনা BJP'র! কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পাচ্ছেন তৃণমূলের ২ সাংসদ

নজরবন্দি ব্যুরোঃ শিশির-দিব্যেন্দুর জন্য ভাবনা BJP’র! কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পাচ্ছেন তৃণমূলের ২ সাংসদ। ভোটের ফলাফল এবং বাংলায় তৃতীয় বারের জন্য মমতা সরকার গড়ার পর থেকেই বিজেপির তরফ থেকে বারবার বাংলায় ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসার কথা বলা হয়েছিলো। কঠিন পরিস্থিতিতে নিজেদের জিতে আসা বিধায়কদের সুরক্ষার খাতিরে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তার ব্যবস্থা করেছে বিজেপির ওপর মহল। ছন্দপতন ঘটেছে সেখানেও। একাধিক বিজেপি বিধায়ক বিভিন্ন কারণ দেখিয়ে সেই নিরাপত্তা গ্রহণও করেননি। ঠিক ছিলো এতোদূর পর্যন্ত।

আরও পড়ুনঃ ব্ল্যাক ফাঙ্গাস সংক্রমণ রুখতে নয়া নির্দেশিকা স্বাস্থ্য দফতরের

কিন্তু এবার তৃণমূলের নেতা সাংসদদের কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা দিচ্ছে কেন্দ্র। ২ জনের জন্য বরাদ্দ থাকছ ৬ জন সিআরপিএফ জওয়ান। তাঁরা হলেন কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারী এবং তমলুকের সাংসদ দিব্যেন্দু অধিকারী। এই দুজনের গতিবিধি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে জল্পনা বহু দিনের। নির্বাচনের আগে রাজ্যে যে লম্বা মাপের দলবদল ঘটেছিলো, তার কান্ডারী বলা যায় শুভেন্দু অধিকারীকেই। দিদির বিশ্বস্ত সেনাপতি ভেবে- চিনতে জল্পনা জিইয়ে যোগ দিয়েছিলেন গেরুয়া শিবিরে। তার পর আজ তিনি রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। তার মাঝখানে বহু তৃণমূলের তৎকালীন নেতা মন্ত্রী নাম লিখিয়েছেন বিজেপিতে। গিয়েছেন তাঁর আরেক ভাই সৌমেন্দুও।

স্বাভাবিক ভাবেই জল্পনা ছিলো দিব্যেন্দু এবং শিশির অধিকারীকে নিয়ে। তাঁদের কথায় বার্তায় তাঁরা একাধিক বার বুঝিয়েছেন শুভেন্দুর বিপরীতে যাবেন না তাঁরা। কিন্তু অফিসিয়ালি এখনো তৃণমূলের সাংসদ রয়ে গেছেন দুজনেই। সমান ভাবে দলের সঙ্গে দূরত্ব বেড়েছে বহু যোজন। সরিয়ে দেওয়া হয়েছে একাধিক সাংগঠনিক পদ থেকেও। এদিকে আধিকারীরা গেরুয়া শিবিরে ঝোঁকার সময়েই মেদিনীপুরের বেশিরভাগ আসন ছিনিয়ে নিয়েছে তৃণমূল।

ফলে এই বিধানসভা নির্বাচনের পর মেদিনীপুরে আর তথা কথিত অধিকারীদের গড় রক্ষা হয়নি। এই পরিস্থিতিতে বিজেপি মনে করছে একাধিক সমীকরণ উলটে পালটে যাওয়ার পর ঢিলেঢালা হয়েছে ওই দুজনের নিরাপত্তা। ্তাই ২ জনের জন্য গতকাল রাতেই কাঁথি এসে পৌঁছেছে ৬ জন জওয়ান। বিজেপিতে যোগ দিয়েই কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা পেয়েছিলেন শুভেন্দু। এবার বাড়ির বাকি দুজনও তৃণমূলের সাংসদ থাকাকালীনই  সেই নিরাপত্তা পেলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here