দীর্ঘ অপেক্ষার ফলে খুশি নারদ কর্তা, তবে শুভেন্দুর কী হলো জানতে চান ম্যাথু স্যামুয়েল

দীর্ঘ অপেক্ষার ফলে খুশি নারদ কর্তা, তবে শুভেন্দুর কী হলো জানতে চান ম্যাথু স্যামুয়েল
দীর্ঘ অপেক্ষার ফলে খুশি নারদ কর্তা, তবে শুভেন্দুর কী হলো জানতে চান ম্যাথু স্যামুয়েল

নজরবন্দি ব্যুরোঃ দীর্ঘ অপেক্ষার ফলে খুশি নারদ কর্তা, তাঁর স্টিং অপেরশন, রাজ্য রাজনীতিতে ঝড় তোলা  সত্যি, সেই ভাইরাল ভিডিও,  তার পরে গ্রেপ্তারি। সব মিলইয়ে বেশ দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হলো ম্যাথু স্যামুয়েলকে। তব্বে এতোদিন অপেক্ষার পরে অবশেষে ফলাফল দেখে খুশি হলেও প্রশ্ন তুললেন, শুভেন্দুর কী হলো? টাকা তো সেও নিয়েছিলেন…

আরও পড়ুনঃ ববি-সুব্রত গ্রেপ্তার হলে মুকুল-শুভেন্দু নয় কেনো? এক যাত্রার পৃথক ফল নিয়ে ফুঁসছে গোটা তৃণমূল

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেই রাজ্যের দিন শুরু হয়েছে নাটকীয় ভাবে। একে একে নারদ কান্ডে গ্রেপ্তার হয়েছেন ব্বি-মদন-সুব্রত-শোভন। শোভন চট্টোপাধায় এই মুহুর্তে শাসক দলের সঙ্গে যুক্ত না হলেও, এক সময়ের দাপুটে নেতা ছিলেন, এখন বিজেপিতে গেলেও, সেরকম ভাবে উঠে আসেননি সামনে। বাকি তিনজন মমতা সরকারের কান্ডারী।

সোমবার সকালেই তাঁর চেতলার বাড়ি থেকে ‘গ্রেপ্তার’ রাজ্যের নতুন পরিবহণ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ,  নিজাম প্যালেসে নিয়ে যান সিবিআই (CBI) কর্তারা। অনুমতি ছাড়াই এই গ্রেফতার হয়েছে বলে দাবি করেছেন মন্ত্রী। সংবাদমাধ্যমকে মন্ত্রী বলেন, ‘নারদ মামলায় আমায় গ্রেফতার করা হল। এদিকে সোমবার সকালেই মদন মিত্র এবং শোভন চট্টোপাধ্যায়কে নিজাম প্যালেসে নিয়ে যাওয়া হয়।

সূত্রের খবর, সোমবারই নারদকাণ্ডে এই চার জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট আদালতে জমা দেবে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। চার্জশিটের বয়ান ঠিক করে নয়াদিল্লিতে পাঠানো হয়েছিল। সেখান থেকে গ্রিন সিগন্যাল আসার পরেই সাতসকালে তড়িঘড়ি গেপ্তার করা হয়েছে। তার পর থেকেই কার্যত ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা তৃণমূল। দিকে দিকে শুরু হয়েছে তীব্র বিক্ষোভ। ইতিমধ্যেই নিজাম প্যালেসে পৌঁছেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্পষ্ট ভাষায় জানিয়েছেন বেআইনি ভাবে এঁদের গ্রেপ্তার করলে করতে হবে তাঁকেও।

দীর্ঘ অপেক্ষার ফলে খুশি নারদ কর্তা,  নারদ কান্ডে আজ প্রথম আদালতে চার্জশিট পেশ করবে CBI, আজই ৪ জনকে তোলা হবে আদালতে। সূত্রের খবর চার্জশিটের বয়ান ঠিক করে নয়াদিল্লিতে পাঠানো হয়েছিল। সেখান থেকে গ্রিন সিগন্যাল আসার পরেই সাতসকালে তড়িঘড়ি গেপ্তার করা হয়েছে।  তবে এই ঘটনায় অবশেষে ফল পেলেন বলে খুশি নারদ কর্তা ম্যাথু স্যামুয়েল। তিনি জানিয়েছেন, এতোদিন পরে অপেক্ষার ফল পেলেন তিনি। তবে প্রশ্ন তুলেছেন শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে। নারদ কর্তার দাবী টাকা তো তিনিও নিয়েছিলেন। একই প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে গোটা তৃণমূল। তাঁদের যুক্তি মদন-ববি গ্রেপ্তার হলে মুকুল-শুভেন্দু কেনো নয়?, ২৪ ঘন্টার মধ্যে তাঁদের গ্রেপ্তার না হলে রাজ্য জুড়ে আগুন জ্বলবে বলেও জানিয়েছেন তাঁরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here