ক্ষমতার অপব্যবহার করে ভোট চাইছেন ট্রাম্প, ক্ষোভ উগরে দিলেন কমলা হ্যারিস।

ক্ষমতার অপব্যবহার করে ভোট চাইছেন ট্রাম্প, ক্ষোভ উগরে দিলেন কমলা হ্যারিস।

নজরবন্দি ব্যুরো: আমেরিকার প্রেসিডেন্টের গদিতে পুনরায় ফিরতে চান তিনি। আর সেটা যেভাবেই হোক। সেজন্যেই জর্জিয়ার রিপাবলিকান সেক্রেটারি ব্যাড র্যা ফেন্সপারজারকে ফোন করছেন বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। জর্জিয়ায় কোনোভাবেই বাইডনের জিতে ফেরা মেনে নিতে পারছেনা না ট্রাম্প। তাঁর জন্য যেভাবেই হোক ভোট পেতেই ফোন করছেন তিনি।

আরও পড়ুন: দিদিকে বিরক্ত ও বিজেপি‌র দালালি করতে মিমের আবির্ভাব হচ্ছে: সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট নির্বাচন নিয়ে কম জলঘোলা কম হয়নি। নির্বাচনে বিপুল ভোটে ট্রাম্পকে পিছনে ফেলে এগিয়ে এসেছিলেন বাইডেন। আর তারপর থেকেই ট্রাম্প চটে আছেন, পায়ের তলার মাটি নড়ে যাওয়ায় তখন থেকেই হম্বিতম্বি করছেন তিনি। আর সেখান থেকেই বাইডেনের ওপর ভোট জোচ্চুরির অভিযোগ তুলেছেন বারবার। ওয়াশিংটন পোস্ট অফিস জানিয়েছে দীর্ঘ একঘণ্টারও বেশি সময় ধরে ট্রাম্প কথা বলেছে ব্যাড এর সাথে। সেই রেকর্ডিং এর একটা একটা ক্লিপিংও সামনে এনেছে ওয়াশিংটন পোস্ট। তাতে ট্রাম্পকে বলতে শোনা যাচ্ছে গত নির্বাচনে জর্জিয়ার মানুষ একেবারে খুশি নয় নির্বাচনে।

জর্জিয়ার ডেমোক্র্যাট ১১ হাজার ৭৭৯ ভোট পেয়েছে। কিন্তু রিপাবলিকের দরকার ছিল ১২ হাজার ভোট। ফোনে জানা গেছে ব্যাডকে জানিয়েছে পুনর্গঠন দরকার। ভোটে জোচ্চুরি করেছে বাইডেনের সরকার। আর একবার ভোট হওয়া খুব দরকার। তা না হলে কড়া মুল্য চোকাতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।তবে একথা মানতে নারাজ ব্যাড। তিনি জানাচ্ছেন কোনরকম জোচ্চুরি হয়নি ভোটে। হিসেব এবং পরিসংখ্যান একদম ঠিক আছে।

বরাবরই মার্কিন প্রেসিডেন্ট-এর জয় পরাজয় নির্ধারিত হয় ইলেক্টোরাল কলেজের ভোটের ওপর। সেখানে বাইডেন পেয়েছিল ৩০৬ টি ভোট, আর ট্রাম্প পেয়েছিল ২৩২। এমনিতেও সামগ্রিকের নিরিখে বাইডেন এগিয়ে ছিল প্রায় ৫৩ লক্ষের বেশি ভোটে। আর ব্যাপক ভোটে হেরে গিয়ে ট্রাম্প বলছেন জোচ্চুরি আর জালিয়াতি করেছে সরকার।

ক্ষমতার অপব্যাবহার করে ভোট চাইছেন ট্রাম্প, বাইডেনের প্রেসিডেন্ট পদে যোগ দেওয়ার জন্য এখনও সময় আছ্র হাতে কদিন। আগামী ২০ তারিখে যোগ দেবেন তিনি। তাঁর আগেই ট্রাম্প চাইছেন ভোটের পুনর্গঠন করতে। এসব প্রকাশ্যে আসার পর ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন ভাবী ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। তিনি বলছেন দেশের গনত্রন্ত্র নষ্ট করতে চাইছে ট্রাম্প। এসব বাদানুবাদের মধ্যেই মুল কথা উঠে যা আসছে তাতে আবার ভোট চাইছে ট্রাম্প।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x