বড় দুর্ঘটনার আশঙ্কা! ৫০ জন যাত্রী নিয়ে নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার বিমান।

বড় দুর্ঘটনার আশঙ্কা! ৫০ জন যাত্রী নিয়ে নিখোঁজ ইন্দোনেশিয়ার বিমান।

নজরবন্দি ব্যুরো: বড় দুর্ঘটনার আশঙ্কা, প্রায় ৫০ জনেরও বেশি যাত্রী নিয়ে আকাশে ওড়ার পর ইন্দোনেশিয়ার একটি যাত্রীবাহী বিমান নিখোঁজ হয়ে গেল। জানা গিয়েছে, শ্রীভিজায়া এয়ারের বোয়িংটি রাজধানী জাকার্তার বিমান বন্দর থেকে ওড়ার পরই বিমানের সাথে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় বলে কর্মকর্তারা জানান। তাঁরা জানিয়েছেন, বিমানটি পশ্চিম কালিমান্তান প্রদেশের পন্টিয়ানাক বিমানবন্দরের উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছিল। রেজিস্ট্রেশন তথ্য অনুযায়ী, বিমানটি ২৭ বছর পুরোনো একটি বোয়িং ৭৩৭-৫০০।

আরও পড়ুন: এবার পুলিসকেও বিনামূল্যে করোনার টিকা, মোবাইলে এল রাজ্য সরকারের মেসেজ

এক আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, বিমানটির উচ্চতা এক মিনিটের মধ্যে ৩,০০০ মিটার (১০,০০০ ফুট) পড়ে গিয়েছিল। ইন্দোনেশিয়ার পরিবহণ মন্ত্রণালয় জানাচ্ছে, নিখোঁজ বিমানটির জন্য তল্লাশি শুরু হয়েছে। শ্রীভিজয়া এয়ার স্থানীয় বিমান অপারেটার। তাঁদের বক্তব্য অনুযায়ী, ঐ ফ্লাইট সম্পর্কে তারা এখনও তথ্য জোগাড় করছে। মাটি থেকে ১০ হাজার ফুট উচ্চতায় থাকাকালীনই বিমানটির সঙ্গে শেষ বার যোগাযোগ করতে পেরেছিল কন্ট্রোল রুম। তার পর আর হদিশ মেলেনি। ৬ শিশু-সহ বিমানে মোট ৫৯ জন যাত্রী ছিলেন বলে জানা গিয়েছে। তাদের মধ্যে ছিল একটি সদ্যোজাত শিশুও। বিমানটির খোঁজে তল্লাশি শুরু হয়েছে।

বড় দুর্ঘটনার আশঙ্কা, সূত্রের খবর, নিখোঁজ বিমানটি বোয়িং ৭৩৭-৫০০ সিরিজের। ২৬ বছর ধরে যাত্রী পরিবহণে সেটি ব্যবহার করা হচ্ছিল। তবে এই ফ্লাইটটি বোয়িং ৭৩৭ ম্যাক্স নয় যেটি সাম্প্রতিক বছরগুলিতে দুটি বড় ধরনের দুর্ঘটনায় পড়েছে। এর মধ্যে প্রথমটি ঘটে ইন্দোনেশিয়ায় ২০১৮ সালের অক্টোবর মাসে। স্থানীয় বিমান সংস্থা লায়ন এয়ারের ফ্লাইটটি ১৮৯ জন যাত্রী নিয়ে সাগরে বিধ্বস্ত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x