জিটিএ নির্বাচনে অংশ নেবেনা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা, অনশনে বসলেন বিমল গুরুং!

জিটিএ নির্বাচনে অংশ নেবেনা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা, অনশনে বসলেন বিমল গুরুং!
জিটিএ নির্বাচনে অংশ নেবেনা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা, অনশনে বসলেন বিমল গুরুং!

নজরববন্দি ব্যুরোঃ কিছুদিন আগেই দার্জিলিং সফরে গিয়ে জিটিএ নির্বাচনের কথা ঘোষণা করে এসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এবিষয়ে পাহাড়ের সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গে বৈঠক করেন তিনি। তখন থেকে দামাদা বেজে গিয়েছে পাহাড়ের এই গুরুত্বপূর্ণ নির্বাচনের। কিন্তু এবার সেই নির্বাচনেই অংশ নেবেনা বলে জানিয়েদিল বিমল গুরুং-এর দল গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা।

আরও পড়ুনঃ নজরবন্দির খবরে সিলমোহর, অভিষেকের হাত ধরে তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন অর্জুনের।

আজ দার্জিলিং-এ এক সাংবাদিক সন্মেলনে এই ঘোষনা করলেন বিমল গুরুং। তিনি আজ সাংবাদিক বৈঠকে জানান, পাহাড়ের মানুষের জন্য সবসময় লড়াই করে আসছেন এবং ভবিষ্যতেও লড়াই করবেন। তার সাথে কে থাকবেন কে থাকবেন না তিনি তা দেখবেন না। আগামীকাল থেকে তিনি অনশনে বসবেন। কিন্তু কোনভাবেই অংশ নেবেন না জিটিএ নির্বাচনে। রাজ্য সরকারের সঙ্গে ২০১১ সালে যে চুক্তি হয়েছিল, সেই চুক্তি মেনে না নেওয়া অবধি নির্বাচন হবে না। সাফ ঘোষণা করেছেন তিনি।

পাহাড়ে স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান না হাওয়া নির্বাচন নয়৷ এই দাবীতে কলকাতা হাইকোর্টের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে জিএনএলএফ। জিটিএ নির্বাচন করানোর বিষয়ে রাজ্যকে পুনরায় বিবেচনা করার নির্দেশ দিয়েছে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজশেখর মান্থার বেঞ্চ। পরবর্তী শুনানি রয়েছে ২১ জুন। তবে হাইকোর্ট বলেছে, চাইলে রাজ্য সরকার নির্বাচন করিয়ে নিতে পারে কিন্তু ফল প্রকাশ করতে পারবে না।

জিটিএ নির্বাচনে অংশ নেবেনা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা, অনশনে বসলেন বিমল গুরুং!
জিটিএ নির্বাচনে অংশ নেবেনা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা, অনশনে বসলেন বিমল গুরুং!

এদিকে, গতকালই স্বরাষ্ট্র দফতরের আধিকারিক এবং দার্জিলিং এবং কালিম্পং জেলার আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠক করেন স্বরাষ্ট্রসচিব বিপি গোপালিকা৷ সব কিছু ঠিকঠাক থাকলে ২৭ মে বিজ্ঞপ্তি ঘোষণা করতে চলেছে নবান্ন৷

জিটিএ নির্বাচনে অংশ নেবেনা গোর্খা জনমুক্তি মোর্চা, অনশনে বসলেন বিমল গুরুং!

ggg 3

উল্লেখ্য, মুখ্যমন্ত্রী পাহাড় সফরে গিয়ে জিটিএ ভোটের বাদ্যি বাজিয়ে এসেছিলেন। বলে এসেছিলেন, দুই-তিন মাসের মধ্যেই জিটিএ নির্বাচন হবে। এবার রাজ্য নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে রাজ্যের বৈঠকে তাতে সিলমোহর পড়ল। কমিশন জানিয়েছে জুন মাসেই হতে চলেছে GTA নির্বাচন।