Kissing-Weight Loss: এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন

এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন
Deep kissing help you on your lose weight, Know all details

নজরবন্দি ব্যুরোঃ এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, আজকাল ওজন বেড়ে যাওয়া আমাদের কাছে সত্যি খুবই সমস্যার বিষয়। তাছাড়া ফিট ও মেদমুক্ত শরীর সকলেরই কাম্য। এদিকে, শরীরের মেদ কমাতে আমরা নানা উপায় অবলম্বন করে থাকি। কিন্তু, আপনি জানেন কী চুমু খেলেও মেদ কমে। কথাটা বিশ্বাসযোগ্য না হলেও চরম সত্যি কথা। বিজ্ঞানীরা নিজেরাই সে কথা বলছেন। অপরদিকে সম্পর্ক সুন্দর ও মজবুত করতে চুম্বনের ভূমিকা যে অসীম, তা বলাই বাহুল্য। এককথায় ভালবাসার বহিঃপ্রকাশ হল চুম্বন।

আরও পড়ুনঃ আজ সুশান্তের ৩৭ তম জন্মবার্ষিকী, তাঁকে ছাড়াই পালিত হচ্ছে তাঁর জন্মদিন

তাঁদের মতে মানসিক চাপ অনেকখানি কমে যায় একটি চুম্বনে। আর দিনে বারবার নিয়ম করে চুমু খেলে ঝরতে বাধ্য মেদ। তবে জানেন কি, শরীরের যত্ন নিতেও দারুণ উপকারী চুম্বন। টুকটাক মান-অভিমান মেটাতে এমন আদরণীয় হাতিয়ারের জুড়ি মেলা ভার। নিয়ম করে শরীরচর্চার পাশাপাশি রোজ চুমু খেলেও স্বাস্থ্য থাকবে ঝরঝরে, সে খবর রাখেন কি? পরীক্ষা করে দেখা গেছে, শারীরিক অনুশীলন করার মতোই চুমু শরীরে ‘হ্যাপি হরমোন’ নিঃসরণ করে। আর এই হরমোন থেকে নাকি কমে যেতে পারে খাওয়ার ক্ষমতা। চুমু খাওয়ার ফলে শরীরের অক্সিটোসিনের মাত্রা বেড়ে স্নায়ু শান্ত হয় এতে শরীর শান্ত থাকে।

এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন
এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন

লস অ্যাঞ্জেলেসের গবেষক জাইয়া কিন্‌সবাক-ও এই গবেষণাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন। অস্ট্রেলিয়ার এই গবেষকদের মতে, কেবলমাত্র হৃদ্‌স্পন্দন ঠিক রাখা বা রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণ করাই নয়, শরীর মেদহীন রাখতেও চুমুই হতে পারে আপনার অস্ত্র! নিয়মিত চুম্বন আবার দাঁতের ক্ষয় রোধ করে। নিয়মিত চুম্বনে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ার পাশাপাশি অনিদ্রার সমস্যা দূর হয়। একটানা ২ মিনিট চুম্বন করলে অন্তত ৬ ক্যালোরি ক্ষয় হয়। মুখমণ্ডলের রক্তচলাচল বাড়ানোর জন্য এবং ত্বক আরও উজ্জ্বল রাখার জন্য চুমুর জুড়ি মেলা ভার।

এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন
এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন

গবেষকদের মতে, নিয়মিত চুমুতে ‘ফিল গুড’ হরমোনদের ক্ষরণ বাড়ায়। ফলে, শরীরে অবাঞ্ছিত মেদ ঘাঁটি গাড়তে পারে না। বরং অনিয়মের কারণে যেটুকু মেদ জমে, তা-ও গলে যায় সহজেই। চুমুর এমন উপকারকে ‘মিষ্টি আশীর্বাদ’ বলে ব্যাখ্যা করেছেন জাইয়া। তাঁর মতে, ‘স্মুচিং’ বা গভীর চুমু, সুস্থ থাকার মাপকাঠি। গাঢ় চুমুর ক্ষেত্রে প্রতি মিনিটে ৪-৬ ক্যালোরি ঝরতে পারে। কতটা আন্তরিকতার সঙ্গে ও কত ক্ষণ একটানা চুমু খাচ্ছেন, তার উপর নির্ভর করবে কতটা ক্যালোরি ঝরবে।

দিনে কত বার চুমু খেলে তবে ওজন ঝরবে? ক্যালোরি ঝরানোর উদ্দেশে যে চুমু, তার কি কোনও সময়সীমা আছে? সে প্রশ্নেরও উত্তর জানিয়েছেন গবেষকরা। গবেষকদের মতে, দিনে অন্তত ৩-৪ বার গভীর চুম্বন করলে তবেই মিলবে উপকার। শুধু তা-ই নয়, এমন ভঙ্গিমায় চুমু খেতে হবে, যাতে মুখের পেশিগুলি সক্রিয় হয়।

এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন

এবার চুমু খেলেই ঝরবে মেদ, কিন্তু দিনে কতবার ঠোঁটে ঠোঁট রাখবেন জেনেনিন

আর কী কী গুণ রয়েছে চুমুর?
চুমুর কিন্তু অনেক স্বাস্থ্যগুণ রয়েছে। দাঁতের স্বাস্থ্য ভাল রাখতে চুমু খাওয়া উপকারী। শরীরের পাশাপাশি মুখের মেদ ঝরাতেও এই কসরতটি করাই যায়। চুমু খেলে শরীরে কোলাজেন উৎপাদনের হারও বাড়ে, ফলে ত্বকে বয়সের ছাপ ঠেকিয়ে রাখতেও চুমুর জুড়ি মেলা ভার।