বিজেপি ছাড়ছেন রাজীব-সব্যসাচী-প্রবীর, মুকুলের পরেই তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন!

বিজেপি ছাড়ছেন রাজীব-সব্যসাচী-প্রবীর, মুকুলের পরেই তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন!
বিজেপি ছাড়ছেন রাজীব-সব্যসাচী-প্রবীর, মুকুলের পরেই তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বিজেপি ছাড়ছেন রাজীব-সব্যসাচী-প্রবীর! মুকুলের পরেই তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন? রাজ্যে ভোট পর্ব চলাকালীন এবং তাঁর আগে যারা তৃণমূল ছেড়ে মানুষের জন্যে কাজ করার তাগিদে যোগ দিয়েছিলেন বিজেপিতে তাঁদের মধ্যে অনেকে ইতিমধ্যেই দল ছেড়েছেন। অনেকে আবার তৃণমূলে ফিরতে চেয়ে আবেদন করেছেন। উলটো সুরে গান গেয়েছেন, বিদায়ী কলার টিউন বাজিয়েছেন বিজেপি সর্বভারতীয় সহ সভাপতি মুকুল রায়ের পুত্র শুভ্রাংশু রায়ও। আজ পিতা পুত্র যোগ দিচ্ছেন তৃণমূলে।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যসভার সাংসদ হচ্ছেন মুকুল, কৃষ্ণনগর উত্তরে লড়বেন শুভ্রাংশু! #Exclusive

খোদ দিলীপ ঘোষের খাসতালুকের একাধিক নেতা দল ছেড়েছেন। এই পরিস্থিতিতে রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় কে নিয়ে বড় খবর প্রকাশ্যে এল। বিজেপি সূত্রে খবর, রাজ্যে বিজেপির ভরাডুবি এবং ডোমজুড়ে পরাজয়ের পরে দলের সঙ্গে রাজীবের তেমন যোগাযোগই নেই। আলোচনা সভা তো দূরের কথা, ফোনেও বার্তালাপ নাকি বন্ধ। কিন্তু কেন? দলীয় সূত্রে খবর, রাজীব পুরনো দল তৃণমূলে ফেরার চেষ্টা করছেন। মুকুলের পেছন পেছন রাজীবও যোগ দেবেন তৃণমূলে।

বিজেপি ছাড়ছেন রাজীব-সব্যসাচী-প্রবীর? তৃণমূল সূত্রে খবর, প্রথমে কয়েকজন সহযোগী ব্যবসায়ীর মাধ্যমে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছিলেন প্রাক্তন বনমন্ত্রী। কিন্তু তাতে কাজ না হওয়ায় এখন নিজে বিভিন্ন তৃণমূল নেতার সঙ্গে কথা বলছেন রাজীব। যদিও তাঁকে দলে ফিরিয়ে নেওয়ার ব্যাপারে কোন নেতাই সদর্থক বার্তা দিতে পারেন নি বলে খবর। যা সিদ্ধান্ত নেওয়ার দলনেত্রীই নেবেন বলে জানা গেছে। এদিকে তৃণমূলে যোগ প্রসঙ্গে রাজীব নিজে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, তিনি কি তৃণমূলে ফিরছেন? কালীঘাটে যাচ্ছেন? রাজীবের মন্তব্য, ‘আমি যাব কিনা জানা নেই’।

রাজীব ছাড়াও আর এক তৃণমূল ত্যাগী উত্তরপাড়ার প্রাক্তন বিধায়ক প্রবীর ঘোষালও তৃণমূলের সাথে যোগাযোগ করার চেষতা চালিয়েছেন বলে খবর সূত্রের। তবে তৃণমূল থেকে কোন সদর্থক বার্তা আসেনি। প্রবীর সংবাদমাধ্যমে জানিয়েছেন, ‘‘বিজেপি-র প্রার্থী হয়েছিলাম ঠিকই। কিন্তু আমি এখন রাজনীতি করছি না। সমাজসেবা করব। ভবিষ্যৎ কী হবে জানি না।’’ অন্যদিকে সব্যসাচী দত্তকে দলবিরোধী কাজের জেরে শোকজ করেছে বিজেপি। জানা গিয়েছে মুকুলের হাত ধরে তৃণমূল ত্যাগি সব্যসাচীও তৃণমূলে ফিরবেন মুকুলের হাত ধরেই। তৃণমূল যোগের জল্পনা নিয়ে সব্যসাচী বলেছেন, ‘এসব জল্পনাই। সব জল্পনার অবসান ঘটবে’।

উল্লেখ্য কদিন আগেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রসঙ্গে সব্যসাচী জানিয়েছিলেন, ‘উনি আমার থেকে বয়সে বড়। ব্যক্তিগত ক্ষেত্রে খারাপ সম্পর্ক হয়নি। অনেক সিনিয়র আমার থেকে। ওঁর রাজনৈতিক ম্যাচিওরিটির সঙ্গে আমার কোনও তুলনা চলে না। ওঁর সঙ্গে আমার কোনও প্রতিযোগিতা নেই’।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here