৭০০ কৃষকের মৃত্যুর জন্য দায়ী নরেন্দ্র মোদি: হান্নান মোল্লা

আলোচনা করলে দুর্গন্ধ বেরোবে, তাই দ্রুত বিল পাশ করানো হলঃ হান্নান মোল্লা
আলোচনা করলে দুর্গন্ধ বেরোবে, তাই দ্রুত বিল পাশ করানো হলঃ হান্নান মোল্লা

নজরবন্দি ব্যুরোঃ প্রায় এক বছর ধরে চলা দীর্ঘ কৃষক আন্দোলনে ৭০০ জন কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। এই মৃত্যু জন্য দায়ী প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এমনটাই সরাসরি অভিযোগ তুললেন সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার অন্যতম নেতা হান্নান মোল্লা। তিনি বলেন, “নরেন্দ্র মোদির গোঁয়ার্তুমির জন্য ৭০০ কৃষকের মৃত্যু হয়েছে। কেন্দ্র সরকার আগে সিদ্ধান্ত নিলে এই ঘটনা ঘটত না। শহীদ কৃষকদের পরিবারকে ক্ষতিপূরণ নিয়ে সরকারের ভাবা দরকার”।

আরও পড়ুনঃ জয় কৃষকদের বললেন মমতা, প্রত্যেক কৃষককে সেলাম জানালেন অভিষেক

শুক্রবার সকালেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করেন আগামী অধিবেশনে সাংবিধানিক রীতি মেনেই আইন বাতিল করতে চলেছে কেন্দ্র সরকার। যদিও কাগজে কলমে আইন প্রত্যাহার না করা অবধি আন্দোলন জারি থাকবে বলে জানিয়েছেন কৃষক নেতারা। একইসুর মিলল সর্বভারতীয় কিষাণ সভার সাধারণ সম্পআদক হান্নান মোল্লার কথাতেও।

তিনি বলেন, “দেশের ৯০ কোটি কৃষক দুটি যমজ আইন নিয়ে এতদিন ধরে লড়াই করে এসেছে। আগামী ২৬ নভেম্বর আন্দোলন এক বছরে পা দিতে চলেছে। দীর্ঘ এবং অনবদ্য আন্দোলনকে বারবার ভাঙার চেষ্টা করছে সরকার। কিন্তু সরকারের সেই ষড়যন্ত্র ব্যর্থ হয়েছে। আসলে এই সরকার দেশের কৃষকদের চিনতে পারেনি। তাই এখন পিছিয়ে আসতে চেয়েছে। আসলে সরকার ভেবেছিল দাদাগিরি করে আন্দোলনকে ছত্রভঙ্গ করে দেবে। কিন্তু কৃষকরা প্রথম থেকে স্থির করেছিল, ৭০০ কেন সাত হাজার জন মৃত্যু হলেও আন্দোলন জারি থাকবে।”।

প্রাক্তন সিপি(আই)এম সাংসদের সংযোজন, “আমরা চেয়েছি দুটি আইন বাতিল হোক। কৃষকরা যাতে ফসলের নূন্যতম সহায়ক মূল্য পান সেবিষয়ে সরকারকে সুনিশ্চিত করতে হবে। ফসলের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে প্রতিদিন দেশে ৫২ জনের মৃত্যু হচ্ছে। নতুন আইন লাগু হলে আরও ক্ষতিগ্রস্ত হত কৃষকরা। যদি স্বামীনাথনের আইন মোতাবেক কৃষকরা ফসলের মূল্য পান তাহলে আজকের দিনে কৃষকরা বেঁচে যাবে। ফসলের ন্যায্যমূল্য থেকে কৃষকরা যাতে না বঞ্চিত না হন সেই দাবীতে আন্দোলন জারি থাকবে”।

৭০০ কৃষকের মৃত্যুর জন্য দায়ী নরেন্দ্র মোদি, সরকারকে তুলোধনা বাম নেতার 

৭০০ কৃষকের মৃত্যুর জন্য দায়ী নরেন্দ্র মোদি, সরকারকে তুলোধনা বাম নেতার 
৭০০ কৃষকের মৃত্যুর জন্য দায়ী নরেন্দ্র মোদি, সরকারকে তুলোধনা বাম নেতার

এরপরেই সরাসরি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির উদ্দেশ্যে আক্রমণ শানিয়ে বাম নেতার মন্তব্য, “৭০০ কৃষকের মৃত্যু হয়েছে নরেন্দ্র মোদির জন্য।  ৭০০ কৃষকের মৃত্যুর জন্য দায়ী নরেন্দ্র মোদি। তারপর লাখিমপুর খেরিতে ৪ জন কৃষকের মৃত্যুর ঘটনাও আন্দোলনের বিষয় থাকবে। যা আন্দোলনের জন্য যথেষ্ট। তবে আন্দোলনের বিভিন্ন পর্যায়ে চলবে আন্দোলন। শনিবার সংযুক্ত কিষাণ মোর্চার তরফে বৈঠক করেই পরবর্তী পদক্ষেপ স্থির করা হবে”।