KMC Election 2021: সব বিদায়ী কাউন্সিলারই প্রার্থী বিজেপির, বাকি ওয়ার্ডে নতুন মুখ!

KMC Election 2021: সব বিদায়ী কাউন্সিলারই প্রার্থী বিজেপির, বাকি ওয়ার্ডে নতুন মুখ!
KMC Election 2021: সব বিদায়ী কাউন্সিলারই প্রার্থী বিজেপির, বাকি ওয়ার্ডে নতুন মুখ!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ গতকালই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছে বামফ্রন্ট এবং তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু প্রধান বিরোধী দল বিজেপির পক্ষ থেকে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করার তেমন কোন ইঙ্গিত মেলেনি। গেরুয়া শিবির সূত্রে খবর, কলকাতা পুরসভা নির্বাচন নিয়ে একেবারেই প্রস্তুত নয় বঙ্গ বিজেপি। সেই কারনেই প্রার্থী বাছাই নিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাদের। আপাতত সিদ্ধান্ত হয়েছে সব বিদায়ী কাউন্সিলারকেই প্রার্থী করছে বিজেপি।

আরও পড়ুনঃ মমতার পরিবার থেকে আরও এক সক্রিয় রাজনীতিতে, অভিষেকের পর কার উপর ভরসা রাখলেন দিদি?

বিধানসভা নির্বাচনে শোচনীয় পরাজয়ের পর, গতবার জেতা কলকাতা পুরোসভার কোন আসনে বদল আনতে চাইছে না বিজেপি। এই মুহুর্তে কলকাতা পুরসভায় বিজেপির কাউন্সিলরের সংখ্যা ৪জন। যদিও গতবার ৭জন জয়ী হয়েছিলেন। পরে দু’জন তৃণমূলে যোগ দেন। এছাড়া, একজন বিদায়ী কাউন্সিলর সম্প্রতি পথ দুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন। সূত্রের দাবি, বিদায়ী ৪ জন কেই প্রার্থী করছে পদ্ম শিবির।

বিজেপি সূত্রে খবর, যুব শক্তিতে আস্থা রাখতে চলেছে দল। আর সেই কারনেই অর্ধেকের বেশি ওয়ার্ডে দলের যুব নেতৃত্বকে প্রার্থী করা হচ্ছে। যাঁদের বয়স হবে চল্লিশের মধ্যে। মমতা বন্দোপাধ্যায়ের পালটা হিসেবে ৩৫-৪০ শতাংশ থাকবে মহিলা মুখ কে প্রার্থী করতে চলেছে বিজেপি। কিন্তু প্রার্থী তালিকা কবে ঘোষণা হবে? ভারতীয় জনতা পার্টি সূত্রে খবর পরশু অর্থাৎ সোমবার বিকেলে ঘোষণা হবে প্রার্থী তালিকা।

সব বিদায়ী কাউন্সিলারই প্রার্থী বিজেপির, অর্ধেকের বেশি আসনে যুব নেতৃত্বে ভরসা গেরুয়া শিবিরের।

সব বিদায়ী কাউন্সিলারই প্রার্থী বিজেপির, অর্ধেকের বেশি আসনে যুব নেতৃত্বে ভরসা গেরুয়া শিবিরের।
সব বিদায়ী কাউন্সিলারই প্রার্থী বিজেপির, অর্ধেকের বেশি আসনে যুব নেতৃত্বে ভরসা গেরুয়া শিবিরের।

২০১৫ কলকাতা পুরসভার নির্বাচনে মোট সাতটি আসনে জয়ী হয়েছিল বিজেপি। যার মধ্যে উত্তর কলকাতায় ছিল ৭, ২২, ২৩ ও ৪২ নম্বর ওয়ার্ড। আর দক্ষিণ কলকাতায় ছিল ৭০, ৮৬ ও ৮৭ নম্বর ওয়ার্ড। ৭ নম্বর ওয়ার্ড থেকে জয়ী বাপি ঘোষ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে চলে গিয়েছেন। বাকি ২২ নম্বর ওয়ার্ডে বিদায়ী কাউন্সিলর মীনাদেবী পুরোহিত, ২৩ নম্বরে বিজয় ওঝা ও ৪২ নম্বর ওয়ার্ডে সুনীতা ঝাওয়ার প্রার্থী হচ্ছেন। আবার দক্ষিণ কলকাতায় ৭০ নম্বর ওয়ার্ডে বিজেপির টিকিটে জেতা অসীম বসু এখন তৃণমূলে।

এদিকে ৮৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তিস্তা দাস বিশ্বাস পথদুর্ঘটনায় মারা গিয়েছেন কয়েকদিন আগেই। সেখানে বিজেপি এবার প্রার্থী করতে চলেছে তিস্তার স্বামী গৌরব বিশ্বাসকে। ৮৭ নম্বর ওয়ার্ডটি এবার মহিলা সংরক্ষিত। তাই সেখানে গতবারের জেতা সুব্রত ঘোষ কে প্রার্থী করা যাচ্ছে না। দল চাইছে তাকে অন্য ওয়ার্ডে প্রার্থী করতে। নিজে প্রার্থী হতে না চেয়ে সুব্রতবাবু জানিয়েছেন, দলের যিনিই প্রার্থী হোন, তাঁকে জিতিয়ে আনবেন। অন্যদিকে আরএসপি থেকে বিজেপিতে যোগ দেওয়া ১০২ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর রিঙ্কু নস্কর এবার প্রার্থী হতে চাইছেন না।