Weather Update: শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, নিম্নচাপের জেরে ফের বৃষ্টি শুরু জেলায়

শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, নিম্নচাপের জেরে ফের বৃষ্টি শুরু জেলায়
শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, নিম্নচাপের জেরে ফের বৃষ্টি শুরু জেলায়

নজরবন্দি ব্যুরোঃ  আরও দু’দিন শীতের আমেজ। তবে আজ, শুক্রবার থেকে সামান্য বাড়ল কলকাতার তাপমাত্রা। রবিবার থেকে আবহাওয়ার পরিবর্তন। সোমবার বৃষ্টি উপকূল ও সংলগ্ন জেলাগুলিতে। হালকা বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে দক্ষিণের বেশ কয়েকটি জেলায়। হালকা বৃষ্টি হবে দার্জিলিংয়েও। সকালে কুয়াশার সম্ভাবনা বেশ কিছু জেলায়।

আরও পড়ুনঃ Farm Law: কৃষি আইন বাতিলের পথে কেন্দ্র, চলবে আন্দোলন ঘোষণা রাকেশ টিকায়িতের

সপ্তাহের শেষে বাড়তে পারে তাপমাত্রা।আজ, শুক্রবার কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস। প্রধানত পরিষ্কার আকাশ। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কাছাকাছি থাকবে। বাতাসে আপেক্ষিক আর্দ্রতার পরিমাণ ৯৪ শতাংশ। বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। রবিবার রাত থেকে সোমবার এর মধ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব ও পশ্চিম মেদিনীপুর, হাওড়া, ঝাড়গ্রামে। কলকাতাতেও রয়েছে বৃষ্টির পূর্বাভাস। উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টি হতে পারে বলে জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা।

আলিপুর হাওয়া অফিস সূত্রে খবর, বঙ্গোপসাগর থেকে আসা জ্বলীয়বাষ্পের জেরেই দক্ষিণের জেলাগুলিতে গত দুদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা ছিল। বাদ ছিল না মহানগরও। ১৬ নভেম্বর আবহাওয়া শুষ্ক থাকার কথা ছিল। তবে মঙ্গলে আবার দক্ষিণ ২৪ পরগনা-সহ দুই মেদিনীপুর ও ঝাড়গ্রামের সব জায়গায় বৃষ্টি হয় অল্প।

বঙ্গোপসাগর থেকে আসা জ্বলীয়বাষ্পের জেরেই দক্ষিণের জেলাগুলিতে গত দুদিন বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা ছিল। বাদ ছিল না মহানগরও। রাজ্যে উত্তুরে হাওয়া ঢোকায় বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল পূবালি বাতাস। তার দাপটে বঙ্গোপসাগর থেকে রাজ্যে প্রচুর জলীয় বাষ্প ঢুকছিল। এর প্রভাবে গত কয়েকদিনে ঝিরিঝিরি বৃষ্টি হয়েছে কলকাতা ও তার পার্শ্ববর্তী এলাকায়। এখন সেই বাধা কিছুটা কেটেছে।

শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, বৃষ্টির পূর্বাভাস রইল বেশ কয়েকটি জেলায় 

শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, নিম্নচাপের জেরে ফের বৃষ্টি শুরু জেলায়
শীতের আমেজ এ ব্যঘাত, নিম্নচাপের জেরে ফের বৃষ্টি শুরু জেলায়

আলিপুর আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, চলতি সপ্তাহের শেষে আরব সাগরে এবং মধ্য বঙ্গোপসাগরের ওপরে নিম্নচাপ অক্ষরেখা অবস্থান করবে। তার জেরে আবার বৃষ্টিপাত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। প্রচুর পরিমাণে জলীয়বাষ্প ঢুকতে পারে রাজ্যে। তার ফলে বাধা পাবে শীত। জাঁকিয়ে শীত পড়তে আমাদের ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।