মমতার বিরুদ্ধে তথাগতর নাম প্রস্তাব, দিল্লির অনুমোদনের অপেক্ষায় রাজ্য বিজেপি!

মমতার বিরুদ্ধে তথাগতর নাম প্রস্তাব, দিল্লির অনুমোদনের অপেক্ষায় রাজ্য বিজেপি!
মমতার বিরুদ্ধে তথাগতর নাম প্রস্তাব, দিল্লির অনুমোদনের অপেক্ষায় রাজ্য বিজেপি!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ মমতার বিরুদ্ধে তথাগতর নাম প্রস্তাব, সাথে দিল্লি পাঠানো হয়েছে আরও ৫ নাম। পদ্মশিবির জানিয়ে দিয়েছে, নিয়ম মেনে তারা ভবানীপুরের উপনির্বাচন এবং সামশেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুরে ভোটে লড়বে। কিন্তু নির্বাচন কমিশনের সিদ্ধান্তে চরম ক্ষুব্ধ তারা। দেশের মোট ৩২ টি বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের কথা রয়েছে। কিন্তু কমিশন শুধুমাত্র ভবানীপুরে উপনির্বাচনের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করাতেই ক্ষুব্ধ বয়েছে গেরুয়া শিবির।

আরো পড়ুনঃ লোকসভার লক্ষ্যে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে প্রার্থী দিচ্ছেনা কংগ্রেস, আবার মমতা বনাম মীনাক্ষী?

এদিকে প্রার্থী বাছাই নিয়েও হিমশিম খাচ্ছে বঙ্গ বিজেপি। কারন রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপির পালে যে হাওয়া ছিল এখন তা নেই বললেই চলে। তারওপর একের পর এক নির্বাচিত বিধায়ক গেরুয়া শিবির ছেড়ে যোগ দিচ্ছেন তৃণমূলে। কেন আচমকা হাওয়া পরিবর্তন তা বুঝতে নাভিশ্বাস উঠেছে দিলীপ ঘোষ, শুভেন্দু অধিকারীদের। এদিন মমতার বিরুদ্ধে তথাগতর নাম প্রস্তাব করেছে রাজ্য বিজেপি। সাথে রয়েছে আরও ৫ নাম।

তবে প্রার্থী কে হবে সেই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্বই। দিলীপরা শুধুই নাম প্রস্তাব করেছেন। তালিকায় রয়েছেন অভিনেতা রুদ্রনীল ঘোষ, তথাগত রায়, অনির্বাণ গঙ্গোপাধ্যায়, আইনজীবী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল, প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও বিশ্বজিৎ সরকার। উল্লেখ্য, ভবানীপুর কেন্দ্রে রুদ্রনীল কদিন আগেই বিপুল ভোটের ব্যবধানে হেরেছেন তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়ের কাছে। প্রচারের সময় মানুষজন বিপুল সাড়া দিলেও তা প্রতিফলিত হয়নি ভোটবাক্সে।

মমতার বিরুদ্ধে তথাগতর নাম প্রস্তাব

মমতার বিরুদ্ধে তথাগতর নাম প্রস্তাব

 

এদিকে সংবিধানের নিয়ম অনুযায়ী ভোটে নির্বাচিত না হয়ে মন্ত্রীপদে বসলে ৬ মাসের মধ্যে নির্বাচনে জিততে হয়। সেইমতো ঠিক হয় উপনির্বাচনে মমতা লড়বেন নিজের কেন্দ্র ভবানীপুরেই। আর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে লড়াইতে কে হবেন প্রধান প্রতিপক্ষ তা নিয়ে কৌতুহল দেখা দিয়েছে রাজনৈতিক মহলে। এদিকে ৩০ সেপ্টেম্বর ভোট ভবানীপুরে, ৬ তারিখ মনোনয়নের শেষ দিন।