স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, ৪ মিনিটেই কক্ষত্যাগ শুভেন্দুর

স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, ৪ মিনিটেই কক্ষত্যাগ শুভেন্দুর
স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, ৪ মিনিটেই কক্ষত্যাগ শুভেন্দুর

নজরবন্দি ব্যুরোঃ স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, ভিডিও-অডিও একত্রিত আগেই করে রেখেছিলেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। কথা ছিল মুকুল রায়ের দলত্যাগ ইস্যুতে আজ শুনানি হবে বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘরে। সেই মতো আঁটঘাট বেধে তৈরি ছিল গেরুয়া শিবির।

আরও পড়ুনঃ বাদ রবির ‘ছুটি’ গল্প, উত্তরপ্রদেশের সিলেবাসে থাকবে যোগী-রামদেবের লেখা

জল্পনা ছিল স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানিতে রাজ্যের বিরোধী দলনেতা কি নিজে আদেউ থাকবেন উপস্থিত। সূত্রের খবর মুকুল রায়ের দলত্যাগ ইস্যুতে হওয়া প্রথম শুনানিতে উপস্থিত ছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। তবে ৪ মিনিট। ৪ মিনিটের বৈঠক শেষ করেই স্পিকার কক্ষ ত্যাগ করেন নন্দীগ্রামের বিধায়ক। সঙ্গে ছিলেন অম্বিকা রায় এবং সুদীপ মুখোপাধ্যায়।

ভোট পরবর্তী হিংসা মামলা, জাল ভ্যাকসিন কেলেঙ্কারি সব পেরিয়ে এই মুহুর্তে গেরুয়া শিবিরের বিধায়করা সরব হয়েছেন মুকুল রায়ের বিধায়কের পদ খারিজের জন্য। সেই কারণে দিন কয়েক আগে শুভেন্দুর ক্যাপ্টেন্সিতে গেরুয়া শিবিরের বিধায়করা গিয়েছিলেন রাজভবনে, হুঁশিয়ারি দিয়েছেন প্রয়োজনে দিল্লি অবধি জল গড়িয়ে যাবেন রাষ্ট্রপতির কাছে।

স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, না-খুশ শুভেন্দু যাবেন আদালত-রাইসিনা হিলস-এ। 

স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, ৪ মিনিটেই কক্ষত্যাগ শুভেন্দুর
স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, ৪ মিনিটেই কক্ষত্যাগ শুভেন্দুর

স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি, কেস মজবুত করতে মুকুলের বিরুদ্ধে ভিডিও সিডি সব তথ্য নিয়ে বিধানসভায় হাজির হয়েছিল গেরুয়া শিবির। গত ১১জুন মুকুলের তৃণমূল ভবনে যাওয়া, উত্তরীয় গ্রহণ করা, মমতা-অভিষেকের সঙ্গে বাক্যালাপ, বিজেপি বিরোধী কথা বলা, তৃণমূলের হয়ে মন্তব্য, তাঁর সামাজিক মাধ্যমের বক্তব্য সব একত্রিত করেছে বিজেপি। তথ্যের বুনন তৈরি করেছেন বিজেপি্র সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক তথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ভূপেন্দ্র যাদ এবং বিজেপির কল্যাণীর বিধায়ক তথা সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী অম্বিকা রায়।

সেই নিয়েই আজ স্পিকারের ঘরে মুকুল-শুনানি বসে। তবে আলোচনা হয় মাত্র ৩ থেকে ৪ মিনিট। আর তার পরেই কক্ষ ত্যাগ করে বেরিয়ে আসেন শুভেন্দু অধিকারী। শুনানির পরবর্তী দিন পড়েছে ৩০ এ জুলাই। তবে গেরুয়া শিবির সূত্রের খবর এক্ষেত্রে মান্যতা দেওয়া হবে সেই স্পিকারের রায়কেই। তাই আর অহেতুক সময় নষ্ট না করে শুভেন্দুর পুর্ব হুঁশিয়ারি মতো আদালতের দিকে পা বাড়াবেন তাঁরা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here