CPIM: পুলিশ-বাম কর্মীদের খণ্ডযুদ্ধে উত্তাল রায়গঞ্জ, দিনাজপুরে হাওয়া বদল!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ পঞ্চায়েত স্তরে তৃণমূলের পাহাড় প্রমাণ দুর্নীতির প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার উত্তর দিনজাপুরের রায়গঞ্জে জেলাশাসকের দফতরের অভিযান সিপি(আই)এম। জেলা কমিটির ডাকে এদিনের কর্মসূচি ঘিরে পুলিশ-বাম কর্মীদের খণ্ডযুদ্ধে উত্তাল রায়গঞ্জ।

আরও পড়ুনঃ SSC-TET Scam: পুজোর আগেই চাকরি হারাবেন বহুজন, হাইকোর্টের নির্দেশের পরেই বৈঠকে বসল কমিশন

এদিন বাম কর্মীদের আটকাতে দ্বিস্তরীয় ব্যারিকেডের ব্যবস্থা করা হয়েছিল প্রশাসনের তরফে। সেই ব্যারিকেড উপেক্ষা করেই এগিয়ে চলল মিছিল। এরপর জল কামান দিয়ে তাঁদের আটকানোর চেষ্টা করা হয়। মিছিলে উপস্থিত ছিলেন সিপি(আই)এমের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী। উপস্থিত ছিলেন জেলা নেতৃত্বরাও।

পুলিশ-বাম কর্মীদের খণ্ডযুদ্ধে উত্তাল রায়গঞ্জ, কার্যত রণক্ষেত্র পরিস্থিতি 
পুলিশ-বাম কর্মীদের খণ্ডযুদ্ধে উত্তাল রায়গঞ্জ, কার্যত রণক্ষেত্র পরিস্থিতি

এদিনের মিছিল থেকে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে তোপ দেগে সুজন চক্রবর্তী বলেন, আসলে পুলিশ ভয় পেয়েছে। ডিএ মামলায় রাজ্য হেরেছে। তাই যদি চাকরি চলে যায় সেই কারণে আজ লাঠিপেটা করেছে। প্রতিবাদ করার জন্য পুলিশ লাঠিপেটা করছে দাবি এক বাম কর্মীর।

গত লোকসভা নির্বাচনে এই এলাকায় বামেদের দূর্গের পতন ঘটয়ে বিজেপি আধিপত্য কায়েম করে। যদিও দীর্ঘ সময় ধরে রায়গঞ্জ কংগ্রেসের গড় বলেই পরিচিত ছিল। রায়গঞ্জে রাজনৈতিক পালাবদলের কারণে মন্ত্রীত্ব পান দেবশ্রী চৌধুরী। এখন তিনি সাংসদ বটে। কিন্তু গত কয়েক বছরে এই জেলায় ফের বদলাতে শুরু করেছে ভোটের অঙ্ক। বিরোধী বেঞ্চে ধীরে ধীরে জায়গা নিতে শুরু করেছে বামেরা।

পুলিশ-বাম কর্মীদের খণ্ডযুদ্ধে উত্তাল রায়গঞ্জ, কার্যত রণক্ষেত্র পরিস্থিতি 

পুলিশ-বাম কর্মীদের খণ্ডযুদ্ধে উত্তাল রায়গঞ্জ, কার্যত রণক্ষেত্র পরিস্থিতি 
পুলিশ-বাম কর্মীদের খণ্ডযুদ্ধে উত্তাল রায়গঞ্জ, কার্যত রণক্ষেত্র পরিস্থিতি

রাজনৈতিক মহলের ব্যাখা, রায়গঞ্জে রাজনৈতিক পালাবদলের ক্ষেত্রে বামেদের পথ মসৃণ করেছে রাজ্যজুড়ে শাসক দলের বিরুদ্ধে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ। আগামী পঞ্চায়েত নির্বাচনে উত্তরবঙ্গেও ধীরে ধীরে জায়গা পাচ্ছে বামেরা। এমনটাই মনে করছে রাজনৈতিক মহল।