প্রতি বুথে অন্তত ১০০ টি ছাপ্পা ভোট হয়েছে, ‘হিন্দু ভোট’ না পেয়ে হতাশ প্রিয়াঙ্কা!

প্রতি বুথে অন্তত ১০০ টি ছাপ্পা ভোট হয়েছে, 'হিন্দু ভোট' না পেয়ে হতাশ প্রিয়াঙ্কা!
প্রতি বুথে অন্তত ১০০ টি ছাপ্পা ভোট হয়েছে, 'হিন্দু ভোট' না পেয়ে হতাশ প্রিয়াঙ্কা!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বিপুল ব্যাবধানে পরাজিত হয়ে তৃনমূলের বিরুদ্ধে ছাপ্পা ভোটের অভিযোগ তুললেন বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টেবরিওয়াল। তিনি বলেন, প্রতি বুথে অন্তত ১০০ টি ছাপ্পা ভোট হয়েছে। এদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজের জয়ের রেকর্ড ছাপিয়ে জয়ী হয়েছেন ভবানীপুরে। বিজেপি প্রার্থীকে ৫৮ হাজার ৮৩২ ভোটে পরাজিত করেছেন তিনি। ২০১১-র উপনির্বাচনে জয়ের ব্যবধান ছিল ৫৪ হাজার ২১৩। এই উপনির্বাচনে জিতলেন তাঁর থেকেও বড় ব্যাবধানে।

আরো পড়ুনঃ রেকর্ড গড়ে জয়ী ‘দিদি’, ৫৮ হাজার ৮৩২ ভোটে জিতলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এদিকে বিজেপি প্রার্থী অভিযোগ করেছেন প্রতি বুথে অন্তত ১০০ টি ছাপ্পা ভোট হয়েছে। অন্যদিকে নির্বাচন কমিশন সূত্রে খবর, পোস্টাল ব্যালট নিয়ে মোট ৫৮ হাজার ৮৩২ ভোটের ব্যবধানে জয়ী হয়েছেন মমতা। তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল পেয়েছেন ২৬ হাজার ৩২০ টি ভোট। অন্যদিকে সিপিএমের শ্রীজীব বিশ্বাস পেয়েছেন ৪ হাজার ২০১টি ভোট।

বাম প্রার্থী ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে কংগ্রেস প্রার্থীর থেকে প্রায় ১ হাজার ভোট কম পেয়েছেন। পাশাপশি বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টেবরিওয়াল গতবারের প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষের থেকে প্রায় ১৮ হাজার ভোট কম পেয়েছেন। রুদ্র পেয়েছিলেন ৪৪ হাজার ৭৮৬ ভোট, প্রিয়াঙ্কা পেয়েছেন ২৬ হাজার ৩২০ টি ভোট।

প্রতি বুথে অন্তত ১০০ টি ছাপ্পা ভোট হয়েছে, ‘হিন্দু ভোট’ না পেয়ে হতাশ প্রিয়াঙ্কা!

অন্যদিকে, ভোটের ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পরই ক্ষোভে রীতিমতো ফেটে পড়েন বিজেপি প্রার্থী প্রিয়াঙ্কা টিবরেওয়াল। তাঁর হতাশার অন্যতম কারণ যে হিন্দু অধ্যুষিত এলাকা থেকেও লিড না পাওয়া, সেটাও চেপে রাখেননি তিনি। ফল ঘোষণা হওয়ার পরই সংবাদ মাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে প্রিয়াঙ্কা বলেন, “ভোটের দিন কী ভাবে রিগিং করতে হয় সেটা আপনাদের মাধ্যমেই দেখেছি। তাই ওঁদের রিগিং করে জেতার জন্য, ছাপ্পা ভোট মেরে জেতার জন্য শুভেচ্ছা জানাই।” কোথায় কোথায় রিগিং হয়েছে? প্রশ্ন করায় প্রিয়াঙ্কা বলেন, “সবকটা ওয়ার্ডে ছাপ্পা ভোট পড়েছে।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here