Kamaleshwar Mukherjee: বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন, কমলেশ্বর মুখার্জি

বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন, কমলেশ্বর মুখার্জি
Kamleswar Mukherjee was admitted to the hospital with chest pain

নজরবন্দি ব্যুরো: আচমকাই বুকে বথ্যা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন বিখ্যাত পরিচালক কমলেশ্বর মুখার্জি। জানা গিয়েছে, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছেন তিনি। শনিবার তাঁর বুকে দুইটি  স্টেইন  বসানো হয়। এখন তিনি ভালো আছেন। সম্ভাবত, বুধবার তাঁকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন:মোটা টাকা নিয়ে দলীয় পদ দিতে পারেননি তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলি! ভাঙচুর করা হল বাড়ি

আগে থেকেই হৃদযন্ত্রে ব্লকেজ ছিল কমলেশ্বরের। ২০১৩ সালে ধরা পড়ে সমস্যা। সেই সময় একটা স্টেইন বসানো হয়েছিল। এই সমস্ত ক্ষেত্রে পুরনো সমস্যা ফিরে আসতে পারে। ২০১৩ সাল থেকে ২০২২ সাল, টানা ৯ বছর সেরকম সমস্যা হয়নি কমলেশ্বরের। ‘ককপিট’, ‘ক্ষত’র মতো একাধিক ছবিও তৈরি করেছেন সেই সময়ই। নিয়মিত নাটকের নির্দেশনা দিয়েছেন।

বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন, তাঁর বুকে দুইটি  স্টেইন  বসানো হয়েছে 
বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন, তাঁর বুকে দুইটি  স্টেইন  বসানো হয়েছে

বর্তমানে রবিনসন স্ট্রিট কাণ্ড নিয়ে একটি ডকুসিরিজ করছেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় । 2015 সালে 3 জুন রবিনসন স্ট্রিটের ফ্ল্যাটে দিদি দেবযানীর কঙ্কাল আগলে বসে থাকতে দেখা গিয়েছিল সে বাড়ির মালিক পার্থ দেকে । সেই ঘটনায় তোলপাড় পড়ে গিয়েছিল গোটা রাজ্যে ৷ সেই ঘটনা নিয়েই ডকুসিরিজ তৈরি করছেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় । সেই নিয়ে ব্যস্ততার মাঝেই তিনি হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লেন । তবে তিনি হাসপাতালে ভর্তি থাকলেও, ছবির কাজ চলছে ।

প্রথম জীবনে ডাক্তারির ছাত্র ছিলেন কমলেশ্বর। অনেকগুলো বছর চিকিৎসা পেশার সঙ্গেই যুক্ত ছিলেন তিনি। কিন্তু বরাবরই থিয়েটার ও সিনেমা ছিল প্রিয়। মেডিক্যাল কলেজে লেখাপড়া করার সময় নাটক নির্দেশনা করতেন। পুরোদমে চিকিৎসা করার সময়ও প্যাশন থেকে সরে আসেননি পরিচালক। ‘চাঁদের পাহাড়’, ‘মেঘে ঢাকা তারা’, ‘উড়ো চিঠি’র মতো ছবি পরিচালনা করেছেন কমলেশ্বর।

বুকে ব্যথা নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন, তাঁর বুকে দুইটি  স্টেইন  বসানো হয়েছে

1606270500 5fbdbe24524ed kamaleswar

তবে এটাই প্রথম নয়, বছর পাঁচেক আগে ঠিক একইভাবে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েছিলেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায় । তখনও তাঁকে ভর্তি করা হয়েছিল হাসপাতালে । পরিচালকের সেই সমস্যাই পুনরায় দেখা দিয়েছে বলে মনে করছেন চিকিৎসকরা ৷