মোটা টাকা নিয়ে দলীয় পদ দিতে পারেননি তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলি! ভাঙচুর করা হল বাড়ি

মোটা টাকা নিয়ে দলীয় পদ দিতে পারেননি তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলি! ভাঙচুর কড়া হল বাড়ি
Trinamool MLA Idris Ali could not give party post with big money

নজরবন্দি ব্যুরোঃ দলীয় পদ দেওয়ার নামে টাকা তোলার অভিযোগে ভগবানগোলার তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলির বাড়িতে ভাঙচুরের অভিযোগ উঠল দলেরই অঞ্চল সভাপতির বিরুদ্ধে। অভিযোগ, সোমবার রাতে অনুগামীদের নিয়ে বিধায়কের বাড়িতে ভাঙচুর চালান স্থানীয় কুঠিরামপুর অঞ্চল সভাপতি মোস্তাফা শেখ। গাড়ি ও আসবাবপত্রে ভাঙচুর চালানো হয়।

আরও পড়ুনঃ সংকটজনক অবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি, মানব মুখার্জি

ভগবানগোলার সুবর্ণমৃগিকা গ্রামের বাসিন্দা ইদ্রিশ আলি। সোমবার সন্ধেয় তাঁর বাড়িতে চড়াও হয় একদল যুবক। এলাকাবাসীর দাবি, তাঁরা সকলেই তৃণমূল কর্মী। সোমবার সন্ধেয় বিধায়কের বাড়িতে ভাঙচুর চলে। বাইরে রাখা গাড়িতেও হামলা হয়। সদর দরজা বন্ধ থাকায় ভিতরে ঢুকতে পারেনি কেউ। তবে দরজার গ্রিলে বাঁশ দিয়ে আঘাত করা হয়।

12 7

ভেঙে ফেলা হয় বাইরে রাখা চেয়ারও। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ইদ্রিশ আলির বিরুদ্ধে অভিযোগ, গিয়াসউদ্দিন নামের এক তৃণমূল কর্মীকে ব্লক সভাপতি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে বিধায়ক ১২ লক্ষ টাকা নিয়েছেন। আবার বিধায়ক যার দিকে অভিযোগের আঙুল তুলছেন সেই মুজতবাকে অঞ্চল সভাপতি করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ১ লক্ষ ১৫ হাজার টাকা নিয়েছেন বলেও অভিযোগ।

মোটা টাকা নিয়ে দলীয় পদ দিতে পারেননি তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলি! ভাঙচুর কড়া হল বাড়ি

এমনকী, পঞ্চায়েতে টিকিট পাইয়ে দেবেন বলে ইদ্রিশ ৪০ লক্ষ টাকা নিয়েছেন বলেও অভিযোগ তৃণমূলকর্মীদের একাংশের।যদিও তাঁর বিরুদ্ধে টাকা তোলার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইদ্রিস আলি। তিনি বলেন, “টাকা তোলার কোনও বিষয় নেই। সম্পূর্ণ ভুল অভিযোগ। মুজতবা নিজে খেতে পায় না সে আমাকে কেমন করে পাঁচ লাখ টাকা দেবে”?

14 6

মোটা টাকা নিয়ে দলীয় পদ দিতে পারেননি তৃণমূল বিধায়ক ইদ্রিস আলি! ভাঙচুর কড়া হল বাড়ি

সব মিলিয়ে পঞ্চায়েত ভোটের আগেই দলের মধ্যে চলছে দলাদলি। আর এবার টাকা নেবার অভিযোগ সামনে আসায় দেখার বিষয় দলের উচ্চ নেতৃত্ব কি ব্যবস্থা নেয়।