পর্ন কাণ্ডের পর আর্থিক প্রতারণা, অভিযুক্ত শিল্পা-রাজ

পর্ন কাণ্ডের পর আর্থিক প্রতারণা, অভিযুক্ত শিল্পা-রাজ
পর্ন কাণ্ডের পর আর্থিক প্রতারণা, অভিযুক্ত শিল্পা-রাজ

নজরবন্দি ব্যুরোঃ  আবারও বিতর্কে বলিউড অভিনেত্রী শিল্পা শেট্টি ও তাঁর স্বামী রাজ কুন্দ্রা ৷ মুম্বইয়ের এক ব্যবসায়ী এই সেলেব দম্পতি-সহ বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে পর্ন কাণ্ডের পর আর্থিক প্রতারণা অভিযোগ দায়ের করেছেন ৷ ওই ব্যবসায়ীর দাবি, তাঁর সঙ্গে ১ কোটি ৫১ লক্ষ টাকার প্রতারণা করা হয়েছে ৷ রবিবার পুলিশের তরফে এমনই জানানো হয়েছে ৷ মুম্বই পুলিশের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, এই ঘটনায় শনিবারই বান্দ্রা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন নীতিন বারাই নামে ওই ব্যবসায়ী।

আরও পড়ুনঃ সর্বাধিক কমল পেট্রোল-ডিজেলের দাম, অবিজেপি পাঞ্জাবে নির্বাচনী টোপ

নিজের অভিযোগপত্রে নীতিন দাবি করেছেন, প্রতারণার ঘটনাটি ঘটে ২০১৪ সালের জুলাই মাসে ৷ এসএফএল ফিটনেস সংস্থার ডিরেক্টর কাশিফ খান, শিল্পা এবং রাজ-সহ বেশ কয়েকজন নীতিনকে এই সংস্থায় বিনিয়োগের পরামর্শ দেন ৷ তাঁদের দাবি ছিল, এই বিনিয়োগে মোটা আমদানি হবে নীতিনের ৷ সেই কারণেই ১ কোটি ৫১ লক্ষ টাকা বিনিয়োগ করেন তিনি ৷

নীতিন জানিয়েছেন, লেনদেনের সময় তাঁকে বলা হয়েছিল, এই বিনিয়োগের বিনিময়ে তাঁকে এসএফএল ফিটনেসের ফ্র্যানচাইজি দেওয়া হবে ৷ এবং এই নামেই পুণের হদপসার এবং কোরেগাঁওয়ে জিম ও স্পা খুলতে পারবেন নীতিন ৷ কিন্তু, সেই প্রতিশ্রুতি পরে আর কখনও বাস্তবায়িত হয়নি।

পর্ন কাণ্ডের পর আর্থিক প্রতারণা, বান্দ্রা থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন নীতিন

পর্ন কাণ্ডের পর আর্থিক প্রতারণা, অভিযুক্ত শিল্পা-রাজ
পর্ন কাণ্ডের পর আর্থিক প্রতারণা, অভিযুক্ত শিল্পা-রাজ

এই ঘটনার পর নীতিন তাঁর বিনিয়োগ করা টাকা ফেরত চান ৷ অভিযোগ, টাকা ফেরত দেওয়া তো দূরের কথা৷ উল্টে তাঁকে নানাভাবে হুমকি দেওয়া হয় এবং ভয় দেখানো হয় ৷ নীতিনের অভিযোগের ভিত্তিতে ইতিমধ্যেই এফআইআর দায়ের করেছে বান্দ্রা থানার পুলিশ ৷ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৪২০ (প্রতারণা), ১২০-বি (অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র), ৫০৬ (ভয় দেখানো) এবং ৩৪ (একই উদ্দেশ্যে একাধিক ব্যক্তির অপরাধমূলক কাজ)-সহ একাধিক ধারা প্রয়োগ করা হয়েছে ৷ ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে।