লস্ট ইনক্রিমেন্ট চালু ও এরিয়ারের দাবিতে ডেপুটেশন শিক্ষকদের।

লস্ট ইনক্রিমেন্ট চালু ও এরিয়ারের দাবিতে ডেপুটেশন শিক্ষকদের।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ লস্ট ইনক্রিমেন্ট চালু ও এরিয়ারের দাবিতে ডেপুটেশন শিক্ষকদের। বিকাশ ভবনে “ALL POST GRADUATE TEACHERS’ WELFARE ASSOCIATION” সংগঠন এর পক্ষ থেকে পশ্চিমবঙ্গে বিদ্যালয় এবং মাদ্রাসার মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষক শিক্ষিকারা এদিন ডেপুটেশন জমা দেন। শিক্ষক-শিক্ষিকাদের দাবি, বিএড প্রশিক্ষণ সংক্রান্ত বিভিন্ন প্রচলিত কারণে বার্ষিক Increment Loss হয়েছে ও সেই সংক্রান্ত কারণে এরিয়ার তৈরি হয়েছে। তাই প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি, স্কুল কমিশনারকে দাবীসনদ জমা দেওয়া হয়।

আরও পড়ুনঃ ‘জয় শ্রীরাম’ না বলে ‘জয় বাংলা’ বলায় তৃণমূল কর্মীর মাথা ফাটাল বিজেপি কর্মীরা!

শিক্ষক শিক্ষিকারা কয়েকটি বিষয় নিয়ে শিক্ষা দপ্তরের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। বিষয়গুলি হল। ১) সীমিত সংখ্যক B.Ed College এর কারণে অধিকাংশ শিক্ষক নিয়ম অনুসারে পাঁচ বছরের মধ্যে বিএড প্রশিক্ষণ সম্পন্ন করতে অসমর্থ হয়েছেন। ২) কোন বিদ্যালয় অপ্রশিক্ষিত শিক্ষক-শিক্ষিকার সংখ্যা বেশি থাকলে তাদেরকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত হওয়ার জন্য বিদ্যালয়ের অনুমতি পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হয়েছে।

৩) উচ্চমাধ্যমিক বিভাগের কয়েকটি বিষয় যেমন, মিউজিক, কম্পিউটার সায়েন্স, কম্পিউটার অ্যাপ্লিকেশন, হোম সায়েন্স সহ প্রভৃতি B.Ed মেথড সাবজেক্টের কলেজ সংখ্যা অত্যন্ত কম থাকার কারণে প্রশিক্ষণের সুযোগ না থাকায় Increment Loss হয়েছে। ৪) ২০১৫ সাল থেকে রেগুলার B.Ed Course এর সময়সীমা বৃদ্ধি পেয়ে এক বছর থেকে দুই বছরে পরিণত হয় এবং পর্যাপ্ত পরিকাঠামোর অভাবে অধিকাংশ বিএড কলেজের আসন সংখ্যা হ্রাস পেয়ে অর্ধেক হয়ে যাওয়ার ফলে প্রশিক্ষণের জন্য কলেজে ভর্তি কঠিনতর হয়।

৬) উচ্চমাধ্যমিক বিভাগের ক্ষেত্রে Additional Post নিযুক্ত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের তিন বছর কার্যকাল অতিবাহিত না হলে তাদেরকে B.Ed করার অনুমতি দেওয়া হয় না। ফলস্বরুপ, দুই বছরের B.Ed এর কারণে তাদের Increment Loss হয়েছে। ৭) ২০১৩ সালে পরিচালিত ODL B.ED শুধুমাত্র আপার প্রাইমারি (Class V- VIII) শিক্ষা দানকারীদের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকার কারণে উচ্চমাধ্যমিক(H.S) বিভাগে অন্তর্গত শিক্ষক-শিক্ষিকাগণ এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারেননি।

8) রাজ্য শিক্ষা দপ্তর শিক্ষকদের ইনক্রিমেন্ট বন্ধের সমস্যাগুলি সম্পর্কে সচেতন হয়ে (G.O NO.118-SE/S/10M-29/16 dt.06/02/2018 এবং G.O NO. 806/SE/S/10M29/16(Pt III) Dt.08/07/2019) 2002-2009 সালের মধ্যে বিদ্যালয় নিযুক্ত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ২০১৫ সাল অব্দি ইনক্রিমেন্ট গুলি প্রদান করার ব্যবস্থা করেছে। কিন্তু ২০১০ থেকে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকগণ ২০১৫ সাল এবং ২০০৬ থেকে ২০০৯ সালে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষকগণ ২০১৬ সাল থেকে উক্ত সুবিধা না পাওয়ার ফলে তাদের লস্ট ইনক্রিমেন্ট পুনরুদ্ধারের কোন সুযোগ না পাওয়ার জন্য টিচাররা বঞ্চিত হয়েছেন।

৯) ২০০২-২০০৫ সালের মধ্যে নিযুক্ত শিক্ষকগণ বিএড কোর্স সম্পন্ন করার জন্য পর্যাপ্ত সময় দেওয়া হলেও (সর্বাধিক ১৩ বছর) একই সুযোগ ২০১০ থেকে নিয়োগ প্রাপ্ত শিক্ষকদের না দেওয়ার কারণে (চার বছর) একটি ভারসাম্যের অভাব দেখা দিয়েছে সেই জন্য আপনার কাছে আমাদের বিনীত প্রার্থনা এই যে ২০১৫ থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত আমাদের লস্ট ইনক্রিমেন্ট প্রদান করা হোক। লস্ট ইনক্রিমেন্ট জনীত কারণে যে সকল শিক্ষক শিক্ষিকার এরিয়ার বকেয়া আছে সেগুলি অবিলম্বে পেমেন্ট করতে হবে এবং সমস্ত ডিআই অফিস গুলিতে জমা পড়া ফাইল গুলি দ্রুত মুভমেন্টের ব্যবস্থা করতে হবে।

লস্ট ইনক্রিমেন্ট চালু ও এরিয়ারের দাবিতে ডেপুটেশন শিক্ষকদের। এপ্রসঙ্গে সংগঠনের কনভেনার মনোজ মন্ডল বলেন,রাজ্য শিক্ষা দপ্তর শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ইনক্রিমেন্ট বন্ধের সমস্যাগুলি সম্পর্কে সচেতন হয়ে (G.O NO.118-SE/S/10M-29/16 dt.06/02/2018 এবং G.O NO.806/SE/S/10M29/16(pt III) Dt.08/07/2019) 2002-2009 সালের মধ্যে বিদ্যালয় নিযুক্ত শিক্ষক-শিক্ষিকাদের 2015 সাল অব্দি ইনক্রিমেন্ট গুলি প্রদান করার ব্যবস্থা করেছে। ঠিক একইভাবে ২০১০ সাল থেকে ২০১৫ সাল পর্যন্ত যাদের জয়নিং এবং 2020 সাল পর্যন্ত সকল শিক্ষক শিক্ষিকাদের ইনক্রিমেন্ট চালু করা হোক। পূর্ববর্তী নির্দেশিকা বলবৎ করে বিএড প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত সকল শিক্ষক শিক্ষিকাদের লস্ট ইনক্রিমেন্টগুলি চালু করুক অর্থ দপ্তর এবং এই সংক্রান্ত এরিয়ারগুলিও পেমেন্ট করার উদ্যোগ নিতে হবে শিক্ষা দপ্তরকে।”

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x