Mamata Banerjee : মৎস্যজীবীদের জন্য নয়া ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, মিলতে পারে ক্রেডিট কার্ড

নজরবন্দি ব্যুরোঃ রাজ্যে তৃতীয়বারের মত ক্ষমতায় আসার পর থেকেই পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী রাজ্য জুড়ে চালু করা হয়েছে একাধিক প্রকল্প। পাশাপাশী দুয়ারে রেশন কে গোটা রাজ্যে চালু করা নিয়ে ও একাধিক সক্রিয় পদক্ষেপ নিতে দেখা গিয়েছে রাজ্য সরকার কে। তবে এবার রাজ্যের সকল মৎস্যজীবীদের নিয়েও এক নতুন প্রকল্প চালু করার কথা শোনা যাচ্ছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। মনে করা হচ্ছে  কিষাণ ক্রেডিট কার্ডের আদলেই এবার গোটা রাজ্যের মৎস্যজীবীদের জন্য ক্রেডিট কার্ড আনতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুনঃ পে রোলে আছেন-ভাতাজীবী, নাম না করে অপর্ণাকে কটাক্ষ শুভেন্দুর

আজ হাওড়ার প্রশাসনিক বৈঠক থেকে রাজ্যের মৎস্য দফতরের সচিব অত্রি ভট্টাচার্যের সঙ্গে আলোচনা করে মুখ্যমন্ত্রী বড় ফিশিং হাব করার জন্য বেশ কিছু এলাকা পরিদর্শনের নির্দেশ দেন। এবং সেখানে বেশকিছু জেলেদের বিশেষ প্রশিক্ষণ দিয়ে সেখানে থাকার ব্যবস্থা করে গোটা এলাকাটি ইকোট্যুরিজেমের আওতায় আনার নির্দেশ দেন। এরপরেই সেখান থেকে রাজ্যের জেলেদের সুবিধার্থে ক্রেডিট কার্ড চালুর কথা ঘোষণা করেন।

এরপরেই রাজ্যে চালু হওয়া “বাংলার বাড়ি”প্রকল্প নিয়ে কড়া জবাব দেন প্রতিনিধিদের। তিনি বলেন ‘এই প্রকল্পে যেন দুর্নীতি না হয়’। তিনি বলেন, “কেউ যেন টাকা না নেয়। যার প্রয়োজন ,সে পাবে। যাঁর চারতলা বাড়ি আছে সে বাংলার বাড়ি পেল। যাঁর কিছু নেই সে পেল না। তেমনটা যেন না হয়। তফশিলি, আদিবাসী, সংখ্যালঘু, ওবিসিদেরটা আগে করতে হবে।”

মৎস্যজীবীদের জন্য নয়া ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, দেওয়া হবে ক্রেডিট কার্

মৎস্যজীবীদের জন্য নয়া ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, মিলতে পারে ক্রেডিট কার্ড
মৎস্যজীবীদের জন্য নয়া ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, মিলতে পারে ক্রেডিট কার্ড

এছাড়াও আজ শিল্পায়নের কথা মাথায় রেখেই নয়া ঘোষণা করে মুখ্যমন্ত্রী। জানাগিয়েছে, গোটা দেশের মধ্যে বর্তমানে হাতেগোনা কয়েকটি অঞ্চলেই তৈরি হয় শার্টেল কর্ক। তাছাড়া এই সমস্ত ক্ষেত্রে দেশবাসী কে ভরসা রাখতে হয় চিনের উপরে। তাই এই দ্রব্য গুলিকে সহজলভ্য করে তোলার জন্য নয়া কারখানা চালুর পরিকল্পনা করা হয়েছে। তব্রে সেসব আদৌ কতোটা সফল হয় সেদিকেই নজর রয়েছে সকলের।

মৎস্যজীবীদের জন্য নয়া ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, মিলতে পারে ক্রেডিট কার্ড
মৎস্যজীবীদের জন্য নয়া ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর, মিলতে পারে ক্রেডিট কার্ড