চিন কে শায়েস্তা করতে নয়া পদক্ষেপ আমেরিকার

চিন কে শায়েস্তা করতে নয়া পদক্ষেপ আমেরিকার

নজরবন্দি ব্যুরোঃ দিনকয়েক আগেই সকল কে চমকে দিয়ে তাইওয়ান প্রদেশের ‘এয়ার ডিফেন্স আইডেন্টিফিকেশন জোন’ কেন্দ্রে ঢুকে পড়েছিল বেশ কয়েকটি চিনা যুদ্ধবিমান। যাদের মধ্যে ছিল ‘শানশি ওয়াই-৮’ সহ বেশ কয়েকটি বিমান। যেগুলির মাধ্যমে সহজেই শত্রুপক্ষের সাবমেরিন ও যুদ্ধবিমানের হদিস পাওয়া সম্ভব হয়। কিন্তু তাইওয়ান প্রদেশে এইভাবে চিনের প্রবেশ কিছুতেই মেনে নিতে পারছে না বাইডেন প্রশাসন। তাই এবার বিশেষ পরিকল্পনা নিল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র।

আরও পড়ুনঃভূস্বর্গ ভয়ঙ্কর, সেনাবাহিনীর গুলিতে সাধারণ মানুষের মৃত্যু কাশ্মীরে।

গতকাল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের  বিদেশ মন্ত্রকের মুখোপাত্র নেড প্রাইস সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে বলেন,  “তাইওয়ান প্রদেশের সঙ্গে নিজেদের সম্পর্ক আরও মজবুত করতে বধ্যপরিকর আমেরিকা। তাছাড়া তাইওয়ানের প্রতি আমাদের দায়বদ্ধতা পাথরে মতো কঠিন। ওই অঞ্চলে শান্তি ও স্থিতাবস্তা বজায় রাখতে এটা খুবই জরুরি।” সেইসঙ্গে তিনি আরও বলেন, আমরা সবসময় বন্ধুদের পাশে দাঁড়াব। গণতান্ত্রিক তাইওয়াণের সঙ্গে আমরা আগামী দিনেও সম্পর্ক আরও মজবুত করে যাব।

দিনকয়েক আগেও শি জিনপিংয়ের চিনের থেকে নিজেদের এই ক্ষুদ্র দ্বীপরাষ্ট্রটিকে হারানোর হুমকি খেতে হয়েছিল তাইওয়ান কে। যারফলে দেওয়ালে পিঠ ঠেকে যাওয়ার মত অবস্থা দেখা দিয়েছিল তাদের। এই পরিস্থিতি তে বাইডেন সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক আরও ঘনিস্ত হওয়াও অনেকেই তা  বাড়তি অক্সিজেন হিসেবে দেখছন।

চিন কে শায়েস্তা করতে নয়া পদক্ষেপ আমেরিকার, ব্যকফুটে চিন 

চিন কে শায়েস্তা করতে নয়া পদক্ষেপ আমেরিকার

এই নিয়ে বিশেষজ্ঞদের একাংশের মত, বর্তমান সময়ে আফগানিস্তান ও তালিবানদের কার্যকলাপ নিয়ে যথেষ্ট ব্যস্ত আমেরিকা এমনকি ভারত সহ রাশিয়া ও বাংলাদেশের মত দেশগুলিও এই মুহূর্তে  তালিবদের নিয়ে প্রচণ্ড ব্যস্ত থাকায় সুযোগের সৎ ব্যবহার করতে চেয়েছিল শি জিনপিংয়ের চিন।  তাছাড়া বছর কুড়ির লড়াই শেষ করে হয়ত এখন আর কোনো বড়সড় সংঘাতে জড়াতে চাইবে না মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। তাই এই সুযোগেই তাইওয়ান দখল করার পরিকল্পনা নিয়েছিল চিন। তবে তাইপেদের সঙ্গে বাইডেন সরকারের সম্পর্ক গভীর হওয়াও হয়ত বড়সর ধাক্কা খেল লাল ফৌজ।

চিন কে শায়েস্তা করতে নয়া পদক্ষেপ আমেরিকার

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here