নতুন প্রধানমন্ত্রী ইউশিহিদে সুগা। শিনজো আবের উত্তরসূরি বেছে নিল জাপান।

নতুন প্রধানমন্ত্রী ইউশিহিদে সুগা।  শিনজো আবের উত্তরসূরি বেছে নিল জাপান।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ নতুন প্রধানমন্ত্রী ইউশিহিদে সুগা। শিনজো আবের উত্তরসূরি বেছে নিল জাপান। আজ সোমবার শিনজো আবের প্রশাসনের মন্ত্রিপরিষদের মুখ্য সচিব ৭১ বছরের ইউশিহিদে সুগা জাপানের নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়েছেন। স্বাস্থ্যের অবনতির কারণে শিনজো আবে গত মাসে পদত্যাগের ঘোষণা করেন। তারপরেই খোঁজ চলছিল উত্তরসূরির।

আরও পড়ুনঃ থাইল্যান্ড সফরেই কি সম্পর্কের ইতি সুশান্ত সারার? এবার মুখ খুললেন সুশান্তের গাড়ির চালক।

বিবিসি-র খবর অনুযায়ী, শিনকো আবের ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে পরিচিত ইউশিহিদে সুগা। তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর আবের নীতি অনুযায়ী দেশ পরিচালনার কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন। স্ট্রবেরিচাষির ছেলে সুগা প্রবীণ রাজনীতিবিদ। তিনি লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির আইনপ্রণেতাদের ও আঞ্চলিক প্রতিনিধিদের মোট ৫৩৪ ভোটের মধ্যে ৩৭৭ ভোটে জয়ী হন।

নতুন প্রধানমন্ত্রী ইউশিহিদে সুগা। তাঁর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রাক্তন প্রতিরক্ষামন্ত্রী সিগেইরু ইশিবা ও এলডিপির নীতিনির্ধারণী–প্রধান ফুমিও কিশিদা বিপুল ব্যবধানে পরাজিত হয়েছেন। ইশিবা মাত্র ৬৮ ভোট টি পান। আর কিশিদা পান মাত্র ৮৯ টি ভোট।

সুগার তুলনায় ৬৩ বছরের ফুমিও কিশিদার আন্তর্জাতিক কূটনৈতিক অভিজ্ঞতা বেশি থাকলেও তাঁকে বিদায়ী প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবের সমর্থন করেননি। পাশাপাশি, শিগেরু ইশিবা এলডিপির প্রাক্তন মহাসচিব ছিলেন। আবের মন্ত্রিসভায় একসময় তিনি প্রতিরক্ষামন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন। কিন্তু ইশিবার সঙ্গেও আবের যথেষ্ট দূরত্ব ছিল তাই তিনিও আবের সমর্থন পাননি।

বিবিসি সূত্রে খবর, শিনজো আবেকে ছাড়াই আবের প্রশাসন পরিচালনা করতে পারবেন বলেই ইউশিহিদে সুগাকে তাঁর উত্তরসূরি হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে। অন্যদিকে, এলডিপির মধ্যেও সুগা যথেষ্ট জনপ্রিয়। কর্মঠ ও বাস্তববাদী নেতা হিসেবে সুগার উজ্জ্বল ভাবমূর্তি রয়েছে বলেই তাঁকে সমর্থন করেছেন নির্বাচক রা।

এদিকে নেতৃত্ব বদলের এই সময়টা জাপানের জন্য যথেষ্ট কঠিন। কারন করোনার সংক্রমণ সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে জাপান সরকার। পাশাপাশি করোনার কারণে জাপানে অর্থনৈতিক মন্দা রেকর্ড ছুঁয়েছে। এমনকি জাপানে যুদ্ধপরবর্তী সংবিধান সংস্কারে সরকারি পরিকল্পনাও অসমাপ্ত রয়েছে। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী আবে জাপানের সেনাবাহিনীকে আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি দিয়ে সাংবিধানিক ধারায় বদল আনতে চেয়েছিলেন। জাপানের সেনাবাহিনী এখন সেলফ ডিফেন্স ফোর্স নামে পরিচিত। এখন দেখার হাতে জাপানের সর্বময় দায়িত্ব পেয়ে দেশকে কিভাবে এগিয়ে নিয়ে যান ইউশিহিদে সুগা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x