পাহাড়ের গা বেয়ে জলপ্রপাত, নৈস্বর্গিক অনুভূতির স্বাদ দেবে উত্তরবঙ্গের এই ঠিকানা

নজরবন্দি ব্যুরো: গরমে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে বঙ্গবাসী। সকাল থেকেই মাথার উপর চড়া রোদ অস্বস্তি বাড়াচ্ছে। এমন সময় একঘেয়ে জীবন ভালো লাগছে না। কয়েকদিনের ছুটি নিয়ে কাছাকাছি কোথাও ঘুরতে যাওয়ার কথা ভাবছেন। তাহলে আপনাদের জন্য রইল আজকের প্রতিবেদন। উত্তরবঙ্গে রয়েছে আজকের গন্তব্য। কংক্রিটের শহর থেকে দূরে শান্ত নিরিবিলি পরিবেশে সবুজে ঘেরা পাহাড়ে ঘুরে আসুন।

আরও পড়ুন: পাহাড়ের উপর আস্ত আইল্যান্ড! দেখতে হলে চলে আসুন এই ঠিকানায় 

উত্তরবঙ্গের জনপ্রিয় পর্যটনকেন্দ্র দার্জিলিং। এখানে ঘুরতে আসেনি এমন ভ্রমণপ্রেমীদের সংখ্যা প্রায় নেই বললেই চলে। তবে আজ দার্জিলিং নয় কথা বলব দার্জিলিং লাগোয়া বিজনবাড়ি থেকে। ঘুম স্টেশন রোড থেকে গন্তব্যের ঠিকানা প্রায় ২২ কিলোমিটার। পাহাড়ে ঘেরা উপত্যকার মাঝেই রয়েছে এই বিজনবাড়ি। প্রকৃতি যেন নিজে হাতেই সাজিয়েছে এই জায়গা। সবুজে ঘেরা চারিদিকে স্নিগ্ধতার ছোঁয়া। পাহাড়ের গা বেয়ে নেমে চলা জলপ্রপাত ও দুপাশের চা বাগান চোখ জুড়িয়ে দেবে।

পাহাড়ের গা বেয়ে জলপ্রপাত, চলে আসুন দার্জিলিংয়ের কাছেই বিজনবাড়ি

বিজনবাড়ি এলাকার পাশ দিয়েই অবিরাম বয়ে চলে ছোট নদী রঙ্গিত। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেরই জীবিকা নির্বাহ হয় কৃষিকাজের মাধ্যমে। রঙ্গীত নদীর দৌলতে চাষের কাজে অনেকটাই সুবিধা পাওয়া যায়। নানা রকম সবজি ছাড়াও কমলালেবু এবং আনারসের চাষ হয় এখানে। পাহাড়জুড়ে রয়েছে রঙবাহারি ফুল। কোলাহলহীন পরিবেশে মন জুড়াবে পর্যটকদের। অ্যাডভেঞ্চার পছন্দ হলে এখানে ঘুরতে এসে ট্রেকিং করতে পারেন পর্যটকরা। বিজনবাড়িতে রাত্রিবাসের জন্য কয়েকটি হোম স্টের ব্যবস্থা রয়েছে।

পাহাড়ের গা বেয়ে জলপ্রপাত, চলে আসুন দার্জিলিংয়ের কাছেই বিজনবাড়ি
পাহাড়ের গা বেয়ে জলপ্রপাত, চলে আসুন দার্জিলিংয়ের কাছেই বিজনবাড়ি

কীভাবে যাবেন?

নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশনে নেমে গাড়ি ভাড়া করে পৌঁছে যেতে পারবেন বিজনবাড়ি। ঘুম স্টেশন থেকেও গাড়ি ভাড়া করলে চলে যাওয়া যাবে। এছাড়া দার্জিলিং বাসস্ট্যান্ড থেকে বিজনবাড়ির যাওয়ার বাস পাওয়া যায়। সহজেই পৌঁছে যাবেন গন্তব্যে।

পাহাড়ের গা বেয়ে জলপ্রপাত, চলে আসুন দার্জিলিংয়ের কাছেই বিজনবাড়ি

পাহাড়ের গা বেয়ে জলপ্রপাত, চলে আসুন দার্জিলিংয়ের কাছেই বিজনবাড়ি
পাহাড়ের গা বেয়ে জলপ্রপাত, চলে আসুন দার্জিলিংয়ের কাছেই বিজনবাড়ি