প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, কমিশনের দফতরে ধর্নায় তৃণমূল

প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, কমিশনের দফতরে ধর্নায় তৃণমূল
প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, কমিশনের দফতরে ধর্নায় তৃণমূল

নজরবন্দি বুরোঃ নির্বাচনের আগে রাজ্যের একাধিক জায়গায় লাগাতার হিংসার ঘটনার প্রতিবাদে শুক্রবার নির্বাচন কমিশনের দফতরের সামনে ধর্নায় বসল তৃণমূল। সেইসঙ্গে ত্রিপুরা তৃণমূলের দাবি পুরভোট করাতে হবে ভিভিপ্যাটের মাধ্যমে। পাশাপাশি প্রত্যেকটি বুথে সিসিটিভি ক্যামেরার মাধ্যমে নজরদারি রাখতে হবে। এই ইস্যুতে শুক্রবার সকালে ধর্নায় বসে তৃণমূল নেতৃত্ব।

আরও পড়ুনঃ নজরবন্দি পুরভোট, শেষ মুহুর্তের প্রচারে শান দিতে ফের ত্রিপুরা যাচ্ছেন অভিষেক।

এর আগে ত্রিপুরায় শাসক দলের বিরুদ্ধে নির্বাচনের প্রচারে বাধা দেওয়ার অভিযোগ এনে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল তৃণমূল। বৃহস্পতিবার আরও একবার শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। একাধিক জায়গায় শাসক দলের গুন্ডাগিরি জারি রয়েছে তা দেখেও চুপ রয়েছে প্রশাসন। তাই স্বরাষ্ট্রসচিব , ডিজিপি এবং এসপিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূল নেতারা।

এদিন রাজ্যসভার সাংসদ সুস্মিতা দেব বলেন, ত্রিপুরার নির্বাচন কমিশনের ওপর আমাদের ভরসা নেই। আমরা চাই ত্রিপুরার পুরভোটে একজন সুপ্রিম কোর্ট অথবা হাইকোর্টের অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতিকে অবজারভার হিসাবে রাখা হোক।

প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, কমিশনের দফতরে ধর্নায় তৃণমূল
প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, কমিশনের দফতরে ধর্নায় তৃণমূল

শুক্রবার একই ইস্যুইতে নির্বাচন কমিশন দফতরের সামনে ধর্না দেন তাঁরা। এদিন উপস্থিত ছিলেন তৃণমূলের একাধিক নেতৃত্ব। তৃণমূলের হয়ে প্রচার করতে উপস্থিত হন প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এদিন ধর্নাস্থলে দেখা যায় তাঁকে।

প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ তৃণমূল

প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, কমিশনের দফতরে ধর্নায় তৃণমূল
প্রাক নির্বাচনে হিংসার ঘটনা ত্রিপুরায়, কমিশনের দফতরে ধর্নায় তৃণমূল

২৩ এর বিধানসভা নির্বাচনে ত্রিপুরার বিপ্লব দেবের সরকারের পতন ঘটিয়ে ক্ষমতায় আসার লক্ষ্যে প্রস্তুতি নিয়েছে তৃণমূল। তার আগে পুর নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে সকলকে চমকে দিয়েছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দল। ২২ তারিখ শেষ মুহুর্তের প্রচারে উপস্থিত হবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। স্বাভাবিকভাবেই পুর নির্বাচনকে ঘিরে ত্রিপুরার রাজনৈতিক উত্তাপ ক্রমাগত উর্ধ্বমুখী, তা বলার অবকাশ থাকে না।