ধূপগুড়ির দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল জেলাস্তরের কবাডি খেলোয়াড়ের, শোকস্তব্ধ পরিবার।

ধূপগুড়ির দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল জেলাস্তরের কবাডি খেলোয়াড়ের, শোকস্তব্ধ পরিবার।

নজরবন্দি ব্যুরো, শিলিগুড়ি: ধূপগুড়ির দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল জেলাস্তরের কবাডি খেলোয়াড়ের, শোকস্তব্ধ পরিবার। ধূপগুড়ির দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল শিলিগুড়ি পুরনিগমের ২০ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা কোয়েল বর্মনের। ১৪ বছরের কোয়েল দাদু দিদার সাথে এক বৌভাতের অনুষ্ঠানে যাচ্ছিল।

আরও পড়ুনঃ কৃষি আইন বাতিল সহ বিভিন্ন দাবিতে শিলিগুড়িতে মিছিল করল AIUTUC।

কেই বা জানত আর তার বাড়ি ফিরে আসা হবে না। অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী কোয়েল পড়াশোনার পাশাপাশি এথলেট ছিল। জেলাস্তরে কবাডিও খেলেছে সে। তবে শুধু পড়াশোনাই নয়, সুযোগ পেলেই নাচতেও ভালোবাসতো। স্কুল, পাড়ার যে কোনো অনুষ্ঠানে নাচেই মন মাতিয়ে তুলত সকলের। অনেকেরই নয়নের মণি ছিল কোয়েল। মঙ্গলবার রাতে ধুপগুড়ি জলঢাকা ব্রীজের কাছে দুটি গাড়ির ওপর উলটে যায় একটি বোল্ডার বোঝাই ট্রাক। মৃত্যু হয় কোয়েলের।

কোয়েলের দাদু ও দিদা গুরুতর জখম অবস্থায় এখনও চিকিৎসাধীন। ঘটনায় কোয়েলের পরিবার সহ গোটা এলাকা জুড়েই শোকের ছায়া। কোয়েলের মা পিঙ্কি বর্মণ জানান, কোয়েল ছোটোবেলা থেকেই খেলতে ভালোবাসতো, স্বপ্ন ছিল একদিন বড় খেলোয়াড় হবে। তবে সেই স্বপ্ন স্বপ্নই রয়ে গেল। কোয়েলের এই মর্মান্তিক দূর্ঘটনার কথা সামনে আসতেই কান্নায় ভেঙে পড়ে পরিবার পরিজন ও কোয়েলের বন্ধুবান্ধবেরা।

ধূপগুড়ির দুর্ঘটনায় প্রাণ গেল জেলাস্তরের কবাডি খেলোয়াড়ের, শোকস্তব্ধ পরিবার। এদিন সকালে পুর প্রশাসক অশোক ভট্টাচার্য কোয়েলের পরিবারের সাথে দেখা করে সমবেদনা জানান। কোয়েল ছিল একজন উঠতি খেলোয়াড়, তার এই অকাল প্রয়ান গোটা শহরের জন্যই দূর্ভাগ্যজনক বলে জানান স্থানীয়রা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x