ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থী যোগ দিলেন তৃণমূলে, মুর্শিদাবাদে বড় ধাক্কা বিজেপির।

ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থী যোগ দিলেন তৃণমূলে, মুর্শিদাবাদে বড় ধাক্কা বিজেপির।
ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থী যোগ দিলেন তৃণমূলে, মুর্শিদাবাদে বড় ধাক্কা বিজেপির।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ সামশেরগঞ্জ ও জঙ্গিপুর বিধানসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনের ভোট মিটতেই মুর্শিদাবাদ জেলাতে বড়সড় ধাক্কা খেল গেরুয়া শিবির। ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থী যোগ দিলেন তৃণমূলে, সাথে প্রায় ১ হাজার অনুগামী। একুশের বিধানসভা নির্বাচনে জেলার নবগ্রাম বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী ছিলেন মোহন হালদার। তিনি এদিন নিজের অনুগামীদের নিয়ে যোগ দিলেন জোড়াফুল শিবিরে।

আরও পড়ুনঃ বেশি ভাড়া কেন? এবার ২৫ রুটের বাস মালিকদের শোকজ নোটিস ধরাল রাজ্য পরিবহন দপ্তর।

কদিন আগেই বিজেপির হয়ে ভালরকম কাজ করছিলেন মোহন। কেউ বুঝতেই পারেন নি তিনি তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন। সাধারণত দল পরিবর্তনের আগে যেমন নেতাদের হাবভাবে স্পষ্ট হয়ে যায় দলবদলের ইঙ্গিত তেমন কিছুই লক্ষ্য করা যায়নি মোহন হালদারের ক্ষেত্রে। যার কাছে ‘২১ নির্বাচনে ৩৫ হাজার ৫৩৩ ভোটে পরাজিত হয়েছিলেন সেই নবগ্রামের বিধায়ক কানাই চন্দ্র মন্ডল তাঁর হাতে তৃণমূলের পতাকা তুলে দেন।

এদিনের দলবদল অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন জঙ্গিপুরের তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ খলিলুর রহমান সহ কয়েকজন তৃণমূল নেতা। বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়ে মোহন হালদার বলেন, “বিজেপি তে থেকে কাজ করতে পারছিলাম না। বিজেপি সরকার একটি জনবিরোধী সরকার। তারা রাজ্য সরকারকে সাহায্য করছে না। রাজ্যের উন্নয়ন স্তব্ধ করে দেওয়ার চেষ্টা করছে। আমি বাড়িতে থাকার ছেলে নই। উন্নয়নের জোয়ারে ভেসে তাই তৃণমূল কংগ্রেসে এসে যোগ দিলাম।”

জঙ্গিপুরের সাংসদ খলিলুর রহমান যোগদান প্রসঙ্গে বলেন, “মমতা ব্যানার্জির উন্নয়ন দেখে গোটা দেশ আজকে তার প্রশংসা করছে। মুর্শিদাবাদের সমস্ত ব্লকে বিরোধী দলের সবাই তৃণমূলে যোগদান করছেন। আমরা আজ বিজেপি প্রার্থীকে আমাদের দলের স্বাগত জানালাম। ২০২৪ সালে মমতা ব্যানার্জিকে সর্বভারতীয় নেত্রী হিসেবে দেখার স্বপ্ন আমাদের পূর্ণ হবেই।”

ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থী যোগ দিলেন তৃণমূলে! 

ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থী যোগ দিলেন তৃণমূলে, মুর্শিদাবাদে বড় ধাক্কা বিজেপির।
ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থী যোগ দিলেন তৃণমূলে, মুর্শিদাবাদে বড় ধাক্কা বিজেপির।

উপনির্বাচনের ভোট মিটতেই বিজেপি প্রার্থীর তৃণমূল যোগে ক্ষুব্ধ জেলার বিজেপি নেতৃত্ব। মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রের বিজেপির বিধায়ক গৌরীশংকর ঘোষের কথায় ,”ওনার মনে হয়েছে তৃণমূলে গেলে ওনার ব্যক্তিগত ভালো হবে। উনি সুখের পায়রা ছিলেন, নীতি আদর্শের দল কোনওদিন করেননি। তাই আজ বিজেপি ছেড়ে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছেন।”

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here