Farmer law: কোন ৩টি কৃষি আইন বাদ হতে চলেছে, কি বিতর্ক এই আইন নিয়ে

কোন ৩টি কৃষি আইন বাদ হতে চলেছে, কি বিতর্ক এই আইন নিয়ে

নজরবন্দি ব্যুরোঃ কেন্দ্রের তিন কৃষি আইন প্রত্যাহার করতে চলেছে কেন্দ্র সরকার৷ শুক্রবার সকালে জাতীর উদ্দেশ্যে ভাষণ দেওয়ার সময় একথা ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। আগামী অধিবেশনে সংসদীয় প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আইন বাতিল করা হবে৷ এমনটাই জানিয়েছেন মোদি।

আরও পড়ুনঃ জয় কৃষকদের বললেন মমতা, প্রত্যেক কৃষককে সেলাম জানালেন অভিষেক

তিনি বলেন, ‘‘আমাদের উদ্দেশ্য সৎ ছিল। কিন্তু কৃষি আইনের সুফলের কথা কিছু কৃষককে আমরা বোঝাতে পারিনি।’’ চলতি মাসের শেষ দিকে শুরু হচ্ছে সংসদের শীতকালীন অধিবেশন৷ সেই অধিবেশনে কেন্দ্রের তিন আইন প্রত্যাহার করা হবে বলে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

কিন্তু এই ‘বিতর্কিত’ তিন কৃষি আইন কী? কেনই বা বিতর্ক? ফারমার্স প্রোডিউস ট্রেড অ্যান্ড কমার্স (প্রোমোশন অ্যান্ড ফেসিলিটেশন) অ্যাক্ট, ২০২০। ফারমার্স (এমপাওয়ারমেন্ট অ্যান্ড প্রটেকশন) এগ্রিমেন্ট অব প্রাইস অ্যাসিওরান্স অ্যান্ড ফার্ম সার্ভিসেস অ্যাক্ট, ২০২০ । এসেনশিয়াল কমোডিটিজ (সংশোধিত) বা অত্যাবশ্যক পণ্য আইন ২০২০।

কোন ৩টি কৃষি আইন বাদ হতে চলেছে, কি বিতর্ক এই আইন নিয়ে
কোন ৩টি কৃষি আইন বাদ হতে চলেছে

সরকারের দাবি ছিল, এই কৃষি আইনে বড় ব্যবসায়ীদের মনোপলি বন্ধ হবে। মান্ডির বাইরেও কৃষকরা যেখানে খুশি এবং যাঁকে খুশি শস্য বিক্রি করতে পারবেন। কৃষকরা বাজারের সর্বোচ্চ মূল্য পাবেন। এই আইনে আন্তঃরাজ্য বাণিজ্যের উপরেও জোর দেওয়া হয়। পরিবহন খরচ কমানোর প্রস্তাবও করা হয়। সর্বোপরি বিলের উদ্দেশ্য ছিল কৃষকদের কৃষি-বাণিজ্য সংস্থা এবং খুচরো পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত করা।

কোন ৩টি কৃষি আইন বাদ হতে চলেছে, কি বিতর্ক এই আইন নিয়ে

কৃষকদের অভিযোগ, এই আইন লাগু হলে সরকার ধীরে ধীরে ন্যূনতম সহায়তা মূল্যে (MSP) বাজার থেকে ফসল কেনা বন্ধ করে দেবে। বাজার থেকে সরকারি নিয়ন্ত্রণ সরে যাবে। কৃষকদের পুঁজিপতিদের মুখের দিকে চেয়ে থাকতে হবে। বড় খুচরো ব্যবসায়ীরা কৃষকদের উপরে আধিপত্য বিস্তার করবে। কৃষকদের আতঙ্ক, সংস্থাগুলি কৃষি পণ্যের মূল্য নির্ধারণ করা শুরু করবে।