তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব…পিছনে ফেলে গেলেন সুরেখা সিক্রি

তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব...পিছনে ফেলে গেলেন সুরেখা সিক্রি
তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব...পিছনে ফেলে গেলেন সুরেখা সিক্রি

নজরবন্দি ব্যুরোঃ তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব, সব কিছু পিছনে ফেলে রেখে গেলেন অভিনেত্রী। প্রয়াত হয়েছেন টেলিভিশন থেকে বড়োপর্দা, দাপিয়ে কাজ করা সুরেখা সিক্রি। ১৯৭৮ থেকে টানা কয়েক দশক ধরে দুই পর্দা জুড়ে নিজের একের পর এক কাজের মধ্যে দিয়ে দর্শক মহলে জায়গা করে নিয়েছিলেন বর্ষীয়াণ অভিনেত্রী।

আরও পড়ুনঃ দেশে নিম্নগামী করোনার গ্রাফ, ভাবনা বাড়াচ্ছে কেরলের ২৪ ঘন্টার সংক্রমণ

‘মাম্মো’, ‘তামস’ আর ‘বাধাই হো’ তিন ছবির জন্য সেরা সহ অভিনেত্রীর পুরষ্কার পেয়েছেন। জনগনের মন জয় করেছিলেন ছোট পর্দার বালিকা বধু দিয়ে, তা ছড়াও একাধিক জনপ্রিয় ধারাবাহিকে কাজ করেছেন সুরেখা। হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে আজ সকালেই প্রয়াত হন ৭৫ বছরের বর্ষীয়াণ অভিনেত্রী। তাঁর মৃত্যুর ঘটনা সামনে এসেছেন তাঁরই ম্যানেজার।

তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব…সব মিলিয়ে টানা কয়েক দশকের যাত্রা সুরেখার। 

তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব...পিছনে ফেলে গেলেন সুরেখা সিক্রি
তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব…পিছনে ফেলে গেলেন সুরেখা সিক্রি

২০১৮ সালে একবার স্ট্রোক হওয়ার পর পক্ষাঘাতে আক্রান্ত হন অভিনেত্রী। তিন বারের জাতীয় পুরষ্কার থেকে অর্থাভাব,তার পর থেকেই ভালো যাচ্ছিল না শরীর অনেক দিন ধরেই।  হাসপাতালে ভর্তির পর আর্থিক সমস্যার কথা প্রকাশ্যে আসায় সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিলেন সোনু সুদ, ‘বধাই হো’ ছবির সহ-অভিনেতা গজরাজ রাও এবং পরিচালক অমিত শর্মা। এই  ‘বধাই হো’-র জন্য শেষ বার জাতীয় পুরস্কার জাতীয় পুরষ্কার পান তিনি। মঞ্চে পুরষ্কার নিতে উঠেছিলেন হুইল চেয়ারে বসেই।

২০২০ সালে ফের ব্রেন স্ট্রোক হয়। কিছুদিন আগেই মহাবালেশ্বরে শুটিং করতে গিয়ে মাথায় চোট পেয়েছিলেন অভিনেত্রী। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পাওয়ার পরেও একপ্রকার শয্যাশায়ী ছিলেন। আজ সকালে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারান তিনি। তাঁর মৃত্যুতে শোকের ছায়া অনুরাগী মহল থেকে সহকর্মী সকলের মধ্যে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here