সিডনির মাঠে ফের বর্ণবিদ্বেষের কালো ছায়া, অভিযোগ দায়ের ভারতীয় দলের।

সিডনির মাঠে ফের বর্ণবিদ্বেষের কালো ছায়া, অভিযোগ দায়ের ভারতীয় দলের।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ সিডনির মাঠে ফের বর্ণবিদ্বেষের কালো ছায়া, অভিযোগ দায়ের ভারতীয় দলের। ফের ক্রিকেট মাঠে বর্ণবিদ্বেষের কালো ছায়া। আর আবারও ঘটনার কেন্দ্রবিন্দু ভারত অস্ট্রেলিয়া টেস্ট। সিডনিতে চলছে ভারত অস্ট্রেলিয়া সিরিজের তৃতীয় টেস্ট। আর আজ তৃতীয় দিনে বর্ণবিদ্বেষের শিকার হলেন ভারতীয় দলের দুই বোলার মহম্মদ সিরাজ এবং জশপ্রিত বুমরা।  সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে বেশ কয়েকজন মত্ত সমর্থক বিদ্বেষমূলক মন্তব্য করেন সিরাজকে উদ্দেশ্য করে।

আরও পড়ুনঃ দেশের রাজধানীতে দাঁড়িয়ে রাজ্যের ‘বহিরাগত’ মন্তব্যের উত্তরের দিলেন বাংলার রাজ্যপাল।

যে মন্তব্য রীতিমত ‘আপত্তিজনক’। তারপরেই ঘটনা প্রথমে অধিনায়ক রাহানে সহ দলের সিনিয়র ক্রিকেটারদের জানানো হয়। তার পরেই রাহানে আম্পায়ারের কাছে বিষয়টি রিপোর্ট করেন। শেষ পর্যন্ত ভারতীয় দলের পক্ষ থেকে সরকারীভাবে অভিযোগ দায়ের করা হল শৃঙ্খলারক্ষা কমিটির কাছে। ২০০৮ সালে সিডনির মাঠে এন্ড্রু সাইমন্ডস ও হরভজন সিং এর মধ্যে ঘটে যাওয়া মাঙ্কিগেট কেলেঙ্কারি আজও ভারত অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট সম্পর্কে এক কালো অধ্যায়। ফ্ল্যাশব্যাকে ফিরে এল সেই কালো অধ্যায়। বিভিন্ন গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, তৃতীয় দিনের খেলা শেষে ভারতীয় ড্রেসিংরুমের বাইরে নাটকীয় দৃশ্য ছিল।

আইসিসি এবং স্টেডিয়ামের সুরক্ষা কর্মকর্তারা বুমরা, সিরাজ এবং ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের সদস্যদের সঙ্গে দীর্ঘ আলোচনা করেছেন। অধিনায়ক অজিঙ্কে রাহানে সহ সিনিয়র ভারতীয় খেলোয়াড়রা ম্যাচ কর্মকর্তা এবং সুরক্ষা কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলেছেন। জানা যাচ্ছে ফাইন লেগে ফিল্ডিং করার সময় সিরাজকে বর্ণবাদমূলক গালিগালাজ করা হয়। আরও জানা যাচ্ছে, সিরাজের আগে জসপ্রিত বুমরাকেও বর্ণবাদমূলক গালিগালাজ করা হয়। যদিও দুই বোর্ডের তরফে এই বিষয়ে কিছুই জানানো হয়নি। ১৩ বছর আগে ভারত-অস্ট্রেলিয়া সিরিজ চলাকালীনই বর্ণবিদ্বেষের অভিযোগ তুলেছিলেন এন্ড্রু সাইমন্ডস।

সিডনির মাঠে ফের বর্ণবিদ্বেষের কালো ছায়া, অভিযোগ দায়ের ভারতীয় দলের। হরভজন সিং তাঁকে বিদ্বেষী মন্তব্য করে ‘বাঁদর’ বলেছিলেন, এমন অভিযোগ করেন অজি অলরাউন্ডার। তারপরই পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল। হরভজনকে প্ৰথমে তিনটে টেস্ট ম্যাচের জন্য সাসপেন্ড করা হয়। পরে অবশ্য শাস্তি ফিরিয়ে নেওয়া হয়। ১৩ বছর পর ফের সেই কেলেঙ্কারির জল কতদূর গড়ায় সেদিকেই তাকিয়ে সবাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x