Left-Congress: মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত হোক, নির্বাচন কমিশনের কাছে আর্জি বাম-কংগ্রেসের  

নজরবন্দি ব্যুরোঃ ভোট আমার অধিকার। বিধানসভা নির্বাচনের নির্ঘন্ট ঘোষণার পরেই যৌথ মিছিলের ডাক দিল ত্রিপুরার বাম-কংগ্রেস। সাধারণ মানুষের কাছে জোটের বার্তা পৌঁছে দিতে শনিবার আগরতলার রবীন্দ্র শতবার্ষিকী ভবনের সামনে শুরু হয় মিছিল। মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত হোক। এই দাবিতে এদিন যৌথ মিছিলের ডাক দেওয়া হয়েছে। পরে মুখ্য নির্বাচন কমিশনারের হাতে ডেপুটেশন তুলে দেওয়া হয়।

আরও পড়ুনঃ BJP: রাজ্যজুড়ে গণ আন্দোলনের ঝাঁঝ আরও বাড়াতে হবে, বৈঠক শেষে সিদ্ধান্ত বিজেপির

এদিনের মিছিলও থেকে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার বলেন, সমস্ত দল মতের উর্ধ্বে যারা ত্রিপুরাতে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে চান। ধর্ম নিরপেক্ষতাকে পুনরায় স্থাপিত করতে চান, রাজ্যে শান্তি চান, সম্প্রীতি চান, স্বাভাবিক কারণেই যারা এবারের নির্বাচনে শান্তিপূর্ণভাবে ভোটে অংশগ্রহণ করতে পারেন। এই বিষয়গুলিকে ভাবনায় রেখে নির্বাচন কমিশনের কাছে জাতীয় পতাকাকে কাঁধে নিয়ে তাঁরা যাচ্ছেন।

মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত হোক, দাবি ত্রিপুরার বিরোধী পক্ষের 
মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত হোক, দাবি ত্রিপুরার বিরোধী পক্ষের 

তিনি আরও বলেন, নির্বাচনের বিষয়টি পর্যালোচনা করার জন্য নির্বাচন কমিশনের নেতৃত্বে পুরো দল আগরতলায় এসেছিলেন। তাঁরা সমস্ত রাজনৈতিক দলগুলির সঙ্গে কথা বলেছেন। সব দলের নেতারাই উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন, একমাত্র শাসক দল ছাড়া। রাজ্যে নির্বাচনের পরিবেশ নেই। রাজ্যে নির্বিঘ্নে যাতে ভোট হয়, সেই কথা মাথায় রেখেই আজ ডেপুটেশন। পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে জানিয়েছেন নির্বিঘ্নে যাতে ভোট হয় সেই কথা মাথায় রাখা হয়েছে। বিরোধী দলের নেতা কর্মীরা একাধিক জায়গায় আক্রান্ত হচ্ছেন। এই পরিস্থিতিতে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল তাঁরা মিলিত হয়ে কথা বলেছেন। সকলে মিলেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, দলের উর্ধ্বে থেকে নির্বাচন কমিশনের কাছে যাবো।

ত্রিপুরার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বিরজিৎ সিনহা জানিয়েছেন, সংকল্প নিয়েছি এবার আমরা ত্রিপুরা থেকে বিজেপিকে বিদায় দেবো। যাতে নিরপেক্ষ নির্বাচন হয়, সেজন্যই আমরা আজ নির্বাচন কমিশনের কাছে যাচ্ছি। যাতে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা সুনিশ্চিত হয়, সেই দাবিও আমরা জানাতে চাই।

মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত হোক, দাবি ত্রিপুরার বিরোধী পক্ষের 

মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত হোক, দাবি ত্রিপুরার বিরোধী পক্ষের 
মানুষের ভোটের অধিকার সুনিশ্চিত হোক, দাবি ত্রিপুরার বিরোধী পক্ষের 

প্রসঙ্গত, ২০২৩ এর নির্বাচনে বিজেপি উৎখাত করতে একসঙ্গে পথ চলার অগ্নীকার নিয়েছে বাম-কংগ্রেস। একেবারে বাংলার ফর্মুলাতেই হাত মিলিয়েছেন মানিক সরকার ও সুদীপ রায় বর্মনরা। আগামী দিনে বিজেপিকে ত্রিপুরার ক্ষমতা থেকেই উৎখাত করাই তাঁদের প্রধান লক্ষ্য। গত ৫ বছর ধরে বিপ্লব দেব এবং মানিক সাহার জমানার অবসান ঘটাতে আসন সমঝোতার পর শনিবার একই মিছিলে পা মেলালেন দুই পক্ষ।