রাজ্যে ফের করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক চিকিৎসকের।

রাজ্যে ফের করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক চিকিৎসকের।

নজরবন্দি ব্যুরোঃ রাজ্যে ফের করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক চিকিৎসকের। চিকিৎসকের নাম  অনুপ কুমার ঘোষ। তাঁর বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের জামালপুরের আঝাপুর পঞ্চায়েতের ভেড়িলি গ্রামে। তিনি জামালপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের চিকিৎসক ছিলেন। এলাকা সূত্রে খবর কোভিড পরিস্থিতির মধ্যেও পঞ্চায়েত অফিসের চেম্বারে নিয়মিত উপস্থিত থাকতেন তিনি। করতেন চিকিৎসা।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে ফের করোনায় মৃত ৬০। সুস্থ হয়ে উঠলেন ৮৭ শতাংশ।

ডাক্তার অনুপ কুমার ঘোষ জামালপুর ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের মেডিক্যাল অফিসার (এইচএমও) পদে কর্মরত ছিলেন। জামালপুর ব্লকের বিএমএইচও ডাক্তার আনন্দ মোহন গড়াই জানিয়েছেন, গত কয়েকদিন ধরেই অনুপবাবু অসুস্থতা বোধ করছিলেন। কিছু উপসর্গও ছিল, কিন্তু পঞ্চায়েতের অন্যান্য কোন কর্মীকে সেকথা জানান নি।

পরে নিজেই নিজের কোভিড টেস্ট করান, রেজাল্ট এলে দেখা যায় তিনি পজিটিভ। নিজেই ভর্তি হন গাংপুরের একটি বেসরকারি করোনা হাসপাতালে। এরপর সেই হাসপাতালেই চিকিৎসা চলছিল তাঁর। কিন্তু করোনা রীতিমত জাঁকিয়ে বসেছিল এই চিকিৎসকের শরীরে। বৃহস্পরিবার দুপুর বেলা চিকিৎসকদের সমস্ত প্রচেষ্টা ব্যার্থ করে পরলোকগত হন তিনি।

রাজ্যে ফের করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল এক চিকিৎসকের। এলাকাবাসীরা তাঁর মৃত্যুতে শোকাহত। তাঁরা জানিয়েছেন অনুপবাবু কোভিডের প্রথম দিক থেকেই এলাকায় ঘুরে ঘুতে প্রচার করতেন কিভাবে ঠেকাতে হবে এই মারন ভাইরাস কে, কিভাবে অবলম্বন করতে হবে সতর্কতা। পাশাপাশি করোনা পরিস্থিতিতেও একজন রোগীকে ফিরিয়ে দেননি তিনি। অবশেষে নিজেই করোনা আক্রান্ত হলেন এবং মারা গেলেন।

জামালপুর ব্লকের বিডিও শুভঙ্কর মজুমদার জানিয়েছেন, অনুপবাবু ছিলেন একজন দক্ষ চিকিৎসক। কোভিড পরিস্থিতিতেও কর্তব্যে এতটুকু গাফিলতি করেন নি তিনি। এই ধরনের মানুষের অকাল মৃত্যু অত্যন্ত দুঃখজনক।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x