Sitaram Yechury: কেন যশবন্তকেই সমর্থন? যুক্তি দিলেন ইয়েচুরি

কেন যশবন্তকেই সমর্থন? যুক্তি দিলেন ইয়েচুরি
কেন যশবন্তকেই সমর্থন? যুক্তি দিলেন ইয়েচুরি

নজরবান্দি ব্যুরোঃ ১১ বছর আগেও বাংলাই ছিল সিপিএমের বড় শক্তিস্থল। সেই বাংলাতেই কোনও সাংসদ বা বিধায়ক নেই দলের। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে আলিমুদ্দিন স্ট্রিটের ঝুলিতে শূন্য ভোট। আরও বড় ধাক্কা যে, সিপিএম তথা বামেদের ক্ষমতা থেকে হটানো তৃণমূলের প্রস্তাবিত প্রার্থী যশবন্তকেই সমর্থন দিতে হচ্ছে কেন?

আরও পড়ুনঃ প্রাথমিকে শিক্ষকতা করেন? ঋণ নিতে হলে ব্যাঙ্কে দিতে হবে টেট পাশের নথি!

এই নিয়ে এবার বঙ্গ সিপিএমের দলীয় মুখপত্র ‘গণশক্তি’-কে দেওয়া একটি সাক্ষাৎকারে যুক্তি দিয়েছেন সিপিএমের সাধারণ সম্পাদক সিতারাম ইয়েচুরি। তিনি ঐ সাক্ষাৎকারে যশবন্তকে সমর্থনের জন্য বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতির কথাই উল্লেখ করেছেন। সিপিএমের সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য, বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতিই রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ক্ষেত্রে তাঁদের সিদ্ধান্তের মূল বাধ্যবাধকতা।

কেন যশবন্তকেই সমর্থন? যুক্তি দিলেন ইয়েচুরি

সেই সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, ‘‘দুঃখজনক ভাবে পওয়ার (এনসিপি নেতা শরদ পওয়ার) রাজি হননি, তার পর ফারুক আবদুল্লা প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চাননি, পরিশেষে একেবারে শেষ মুহূর্তে গোপালকৃষ্ণ গাঁধীও অসম্মত হন। সেই পরিস্থিতিতে আমরা এমন নামের খোঁজ করছিলাম, যেখানে সর্বোচ্চ মতৈক্য হতে পারে। এই পরিস্থিতিতেই যশবন্ত সিন্‌হার নাম আসে।’’

কেন যশবন্তকেই সমর্থন? যুক্তি দিলেন ইয়েচুরি

কিন্তু যশবন্ত তো বিজেপির প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী! তাহলে? এই প্রশ্নের উত্তরে ইয়াচুরি বলেন, ‘‘অতীতে অনেক ক্ষেত্রেই সেই সময়ের সুনির্দিষ্ট পরিস্থিতিতে পার্টির ঘোষিত লক্ষ্যপূরণের জন্য এমন ব্যক্তিদের সমর্থন করা হয়েছে, যাঁরা কংগ্রেসের নেতা ছিলেন, পরে কংগ্রেস ছেড়ে দিয়েছেন। যেমন ইন্দিরা গাঁধী ও জরুরি অবস্থার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের সময়ে জগজীবন রাম যখন কংগ্রেস ভেঙে বেরিয়ে এলেন, আমরা তাঁকে সমর্থন করেছি।অন্যথায় সেই সময়ে জনতা পার্টির সরকার তৈরি হত না”।

কেন যশবন্তকেই সমর্থন? যুক্তি দিলেন ইয়েচুরি

তবে ইয়েচুরি তৃণমূলের দলীয় পদ থেকে যশবন্তের ইস্তফা দেওয়াকে ‘নৈতিক জয়’ হিসেবেই দেখছেন। তাঁর কথায়, ‘‘তৃণমূল অন্যদের কৌশলে পরাস্ত করেছে, এ কথা একেবারেই সত্য নয়। বরং উল্টোটা। যশবন্ত সিন্‌হাকে (দলীয় পদ থেকে) ইস্তফা দিতে হবে, এ কথা মেনে নিতে তারা বাধ্য হয়েছে।’’

কেন যশবন্তকেই সমর্থন? যুক্তি দিলেন ইয়েচুরি

বামেরা কেন আলাদা প্রার্থী দেওয়ার কথা ভাবল না? এই প্রশ্নের উত্তরে ইয়েচুরি বলেছেন, ‘‘এখন সেই পরিস্থিতি নেই। বামপন্থীরা স্বাধীন ভাবে ভোটে দাঁড়ালে বামপন্থীদের আরও শক্তিক্ষয় হত, বিজেপি সরকার এবং হিন্দুত্ব সাম্প্রদায়িকতার বিরুদ্ধে ধর্মনিরপেক্ষ বিরোধী ঐক্যকে ব্যাহত করা হত। এতে বামপন্থীদের বিচ্ছিন্নতা বাড়ত। আজকের পরিস্থিতিতে তা একেবারেই সঠিক হত না।’’