Virat Kohli Resigns: এবার টেস্ট ক্রিকেটেও অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট কোহলি!

টেস্টেও অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট!
টেস্টেও অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ টেস্টেও অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট! টি-টোয়েন্টি এবং ৫০ ওভারের একদিনের ক্রিকেটের পর এবার টেস্ট ক্রিকেট থেকে অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট কোহলি। ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম শ্রেষ্ঠ অধিনায়ক বিরাট কোহলির আচমকা টেস্ট অধিনায়কত্ব ছাড়ায় চমকে গেছেন সবাই। তাঁর টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি কেরিয়ার ঈর্শ্বনীয়। মাত্র ৬৮ টি টেস্টে অধিনায়কত্ব করে ৪০ টি টেস্ট জএতার শিরোপা রয়েছে তাঁর মুকুটে।

আরও পড়ুনঃ সিরিজ হাতছাড়া ভারতের, বিরাটের সমালোচনায় মুখর ক্রিকেট প্রাক্তনীরা।

virat koholi

মালয়েশিয়ায় অনুষ্ঠিত ২০০৮ সালের আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের শিরোপা বিজয়ী ভারতীয় দলের অধিনায়ক ছিলেন বিরাট, এর কয়েকমাস পরে ১৯ বছর বয়সে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ভারতের হয়ে ওয়ান ডে তে অভিষেক হয়েছিল তাঁর। খুব দ্রুত ওয়ানডে তে মিডল অর্ডারে নিয়মিত হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছিলেন এবং ২০১১ সালের ভারতের বিশ্বকাপ জয়ী দলের সদস্য ছিলেন তিনি।

এই ২০১১ সালেই টেস্টে অভিষেক করেছিলেন বিরাট এবং ২০১৩ সালের মধ্যে অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকার টেস্টে শতরান করে নিজেকে একজন টেস্ট ক্রিকেটার প্রমাণ করেছিলেন। ২০১৩ সালে প্রথমবার তিনি ওয়ান ডে ব্যাটসম্যানদের আইসিসি র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম স্থানে পৌঁছে যান, টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেও কোহলি সাফল্য এসেছে এবং আইসিসি ওয়ার্ল্ড টি-টোয়েন্টিতে দু-দুবার তিনি ম্যান অফ দ্য টুর্নামেন্ট হয়েছিলেন (২০১৪ এবং ২০১৬ সালে)।

এবার টেস্ট ক্রিকেটেও অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট কোহলি

এবার টেস্ট ক্রিকেটেও অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট কোহলি
এবার টেস্ট ক্রিকেটেও অধিনায়কত্ব ছাড়লেন বিরাট কোহলি

২০১৪ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির টেস্ট অবসর গ্রহণের পর কোহলি ওয়ানডে দলের সহ-অধিনায়ক নিযুক্ত হয়ে টেস্ট অধিনায়কত্বের দায়িত্ব পান। ২০১৭ সালের প্রথম দিকে, ধোনি অধিনায়ক পদ থেকে পদত্যাগ করার পরে তিনি ওয়ানডেতেও অধিনায়ক হন।