Mamata-Pawar: ইউপিএ বলে কিছু নেই, পাওয়ার হাউজে বৈঠকের পর জানালেন মমতা

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বুধবার সারা দেশের রাজনৈতিক মহলের নজর ছিল তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং এনসিপি নেতা শরদ পাওয়ারের বৈঠক ঘিরে। আগামী দিনে জাতীয় রাজনীতির নীতি নির্ধারণের জন্য এদিনের বৈঠক অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। এদিন বৈঠকের পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ইউপিএ বলে কিছু নেই। তবে কী ইউপিএর অবসান হল?

আরও পড়ুনঃ Mamata Banerjee: মুম্বই-কলকাতা এক হলে ভয় পাবে দিল্লি, হুঙ্কার মমতার

বুধবার দুপুরে বৈঠকের পর সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, যেহেতু কেউ বিজেপির ফ্যসিস্ট শক্তির বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারছে না তাই বিকল্প হিসাবে একজনকে উঠে আসা দরকার। শরদ জী এই মুহুর্তে দেশের বর্ষীয়ান নেতাদের মধ্যে একজন। আমরা আমাদের দলের হয়ে আলোচনা করতে এসেছিলাম”। এবিষয়ে শরদ পাওয়ারের মন্তব্য, “কংগ্রেস নয়, যারা বিজেপির বিরুদ্ধে তাঁরাই এগিয়ে আসুক”।

Image

বর্ষীয়ান রাজনীতিবীদের মন্তব্য, আজকে আমরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় -এর সঙ্গে বৈঠক ফলপ্রসু হয়েছে। আমরা চাই একই চিন্তাধারার মানুষ জন সকলে এগিয়ে আসুন। দেশের জন্য গঠনমূলক নেতৃত্ব দেওয়া জরুরী বলে মনে করছেন তিনি। শুধুমাত্র আজকের জন্য নয়, নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে আজকের বৈঠক করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এনসিপি প্রধান।

ইউপিএ বলে কিছু নেই, কেন এ কথা বললেন মমতা? 

ইউপিএ বলে কিছু নেই, কেন এ কথা বললেন মমতা? 
ইউপিএ বলে কিছু নেই, কেন এ কথা বললেন মমতা? 

উল্লেখ্য, ২০২৪ সালে দিল্লির তখত দখলে পা বাড়িয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা জানিয়েছেন, মমতার দিল্লির রথে চালক হিসাবে রয়েছে শরদ পাওয়ার। কিন্তু মহারাষ্ট্রের সরকারের দিকে তাকিয়ে কংগ্রেসের সঙ্গে জোটের হাত ছেড়ে কী তৃণমূলের সঙ্গে জাটিয় স্তরে জোটে রাজি হবে এনসিপি? প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলের।