উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন করোনা পরীক্ষার যন্ত্রের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী।

উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন করোনা পরীক্ষার যন্ত্রের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী।

নজরবন্দি ব্যুরো : উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন করোনা পরীক্ষার যন্ত্রের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। সোমবার বিকেলে কলকাতার নাইসেড সেন্টারে এই যন্ত্রের উদ্বোধন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন কোভিড-১৯ টেস্টের যন্ত্র উদ্বোধন করেন।

আরও পড়ুনঃ রাজ্যে ভয়ানক করোনা সংক্রমণ কে টেক্কা দিচ্ছে স্বস্তিজনক সুস্থতার হার। #Exclusive

এদিন অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিনের বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী ফের রাজ্যের পাওনা টাকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন। তিনি প্রধানমন্ত্রীর সামনে প্রশ্ন তোলেন, আমফানে রাজ্যের যে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তাতে এখন পর্যন্ত রাজ্য সরকারের ৬ হাজার কোটি টাকার বেশি খরচ হয়েছে। কেন্দ্রের কাছে রাজ্য ৩৫ হাজার কোটি টাকার চেয়েছিল। কিন্তু কেন্দ্রের থেকে মাত্র ১ হাজার কোটি পাওয়া গেছে। তিনি বলেন, এই ভাবে চললে রাজ্যের বিপর্যয় মোকাবিলা তহবিলের সমস্ত টাকা শেষ হয়ে যাবে।

পরবর্তী সময়ে যেকোনো বিপর্যয়ের মোকাবিলায় রাজ্য সরকারকে সমস্যায় পড়তে হবে। তাই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর কাছে অনুরোধ করেন রাজ্যকে আর্থিক সাহায্য করার জন্য। তাঁর হিসেব অনুযায়ী বিভিন্ন খাত মিলিয়ে রাজ্যের ৫৩ হাজার কোটি টাকা পাওনা রয়েছে কেন্দ্রের থেকে। অন্যদিকে, করোনাভাইরাসের মোকাবিলায় ২.৫০ হাজার কোটি টাকা খরচ হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের সমস্ত পদক্ষেপের ব্যখ্যা দেন। তিনি বলেন, সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে ৮১ টি হাসপাতালে চলছে করোনার চিকিৎসা। এবং কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই রাজ্য সরকার ২০০ টি আইসিইউ বেড বাড়াতে চলেছে। তিনি এদিন করোনার নমুনা টেস্টের জন্য ল্যাব সংখ্যা বাড়ানোর দাবি জানান প্রধানমন্ত্রীর কাছে।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, একমুহূর্তে রাজ্যে ৫৬টি ল্যাবে নমুনা পরীক্ষার কাজ চলছে। কিন্তু এর মধ্যে ২৬টি ল্যাবে খুব ছোট হওয়ার কারণে মাত্র ৩২ টা পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা সম্ভব হয়। তাই রাজ্যে ল্যাবের সংখ্যা বাড়ানো কথা বলেন প্রধানমন্ত্রীকে। এদিনের ভার্চুয়াল বৈঠকের মাধ্যমে উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন করোনা পরীক্ষার যন্ত্র উদ্বোধন করেন নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী জানান, এই যন্ত্রের দ্বারা দিনে ১০ হাজার নমুনা পরীক্ষা করা হবে। শুধু পশ্চিমবাংলা সহ মহারাষ্ট্র ও উত্তরপ্রদেশের নাইসেড সেন্টারেও এই যন্ত্রের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী। এই ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে মহারাষ্ট্র ও উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে এবং যোগী আদিত্যনাথ উপস্তিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x