Suvendu Adhikari: কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? প্রার্থীকে নিয়ে বিস্ফোরক শুভেন্দু
Suvendu Adhikari on Debasis Banerjee expelling from TMC

নজরবন্দি ব্যুরোঃ সাগরদিঘির উপনির্বাচনকে ঘিরে ক্রমাগত বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তাপ। মঙ্গলবার সাগরদিঘির উপনির্বাচনের প্রচারে এসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তাঁর পারিবারিক আত্মীয় ও তৃণমূলের প্রার্থী দেবাশীস বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করে বসলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? ফাঁস করলেন শুভেন্দু। এখন তৃণমূলকে দেখতে পেলেই মানুষ চোর চোর বলছে। চারিদিকে আওয়াজ একটাই চোর ধরো, জেল ভরো।

আরও পড়ুনঃ তৃণমূলের দুর্নীতিগ্রস্তদের বাড়বাড়ন্তের বিষয়টি বুঝেছিলাম, এবার সরব সিঙ্গুরের মাস্টারমশাই

শুভেন্দুর কথায়, তৃণমূল তো কোনও রাজনৈতিক দল নয়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আমি যখন সঙ্গ দিয়েছি, সব সময় বলতেন আমার কোনও পরিবার নেই। আমি পরিবারবাদে বিশ্বাসী নই। আজকে তৃণমূল রাজনৈতিক দলে নেই। একটা কোম্পানিতে পরিণত হয়েছে। আর একটা পরিবারের হাতে চলে গেছে। পিসি তো ছিল। ১১ সালে আমরা খেটে খুটে, কেউ আসেনি সেদিন, তৃণমূল আর কংগ্রেসের জোট হয়েছিল মুর্শিদাবাদে, ১৮ টা আসন কংগ্রেস এবং ৪ টি আসন তৃণমূল পেয়েছিল। অধীর চোধুরী সেই জোট বাঁধেননি। তিনি চারটে জায়গায় জোড়া মোমবাতি চিহ্নে প্রার্থী দাঁড় করিয়েছিলেন। এখানেও হুদা সাহেবকে দিয়েছিলেন ১১ সালে। সেদিন ভাইপো ছিল না। যিনি হেলিকপ্টারে করে এখানে ভাষণ দিতে আসবেন। সেদিন ভাইপোর কাকা ছিল না। যিনি ইডির দোরগোড়ায় পৌঁছে গেছেন। সেদিন দেবাশীস বন্দ্যোপাধ্যায় ছিল না। সেদিন শুভেন্দু অধিকারী ছিল।

কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? বিস্ফোরক শুভেন্দু 
কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? বিস্ফোরক শুভেন্দু 

সেই সময়ের কথা তুলে ধরে শুভেন্দু বলেন, আমি একা সারাদিন ৪০ টার বেশী বুথে ঘুরে, ৫ টা পথসভা করে সেদিন মাএ চার হাজার ভোটে সুব্রতদা জিতেছিলেন। আজ যাকে তৃণমূল প্রার্থী করেছে, অতীত কখনও ভুল হতে পারে না। ২০১৬ সালের বিধানসভা নির্বাচন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে বললেন রাজ্যের আসতে হবে। লোকসভায় আমার পরিচিতি বাড়ছিল। লোকসভায় সুন্দর সুন্দর বক্তৃতা করছিলাম। লোকসভায় পরিচিতি হলে, দেশে পরিচিতি বেড়ে যায়। সেটা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় চাইতেন না। যদিও এখন ভাইপোকে বেশী পছন্দ করছেন।

কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? বিস্ফোরক শুভেন্দু 
কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? বিস্ফোরক শুভেন্দু 

এরপরেই বিস্ফোরক মন্তব্য করেন শুভেন্দু। তিনি বলেন, ১৬ সালের নির্বাচনের সময় মালদহের সভা শেষ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে হেলিকপ্টারে করে সাগরদিঘিতে আসা হয়েছে। এখানে সুব্রত সাহার পক্ষে প্রচার করার ছিল। সেই সভায় সুব্রত সাহা বলেছিল, দিদি আপনার আত্মীয় বলে দেবশীস বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে হারানোর চেষ্টা করছে। কিছু একটা করুন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আমাকে ডেকে বলেছিলেন, সুব্রত চাইছে দেবশীসকে পার্টি থেকে বহিষ্কার করতে। আমি বলতে পারব না। আমাদের আত্মীয় হয়। সেবার আমি বলেছিলাম ৬ বছরের জন্য তৃণমূল থেকে দেবাশীস বন্দ্যোপাধ্যায়কে বহিষ্কার করা হল। এটা গল্প নয়। রেকর্ড আছে।

কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? বিস্ফোরক শুভেন্দু 

কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? বিস্ফোরক শুভেন্দু 
কী কারণে দেবাশীসকে বহিষ্কার করেছিলেন মমতা? বিস্ফোরক শুভেন্দু 

এদিনের সভা থেকে শুভেন্দুর বার্তা, সাগরদিঘির মানুষকে বলব, দেবশীস বন্দ্যোপাধ্যায়কে হারিয়ে প্রমাণ করে দিতে হবে এই ধরনের ছিন্নমুলের কোনও জায়গা নেই। বিকল্প ভারতীয় জনতা পার্টি। কারণ, কংগ্রেস দিল্লিতে এবং পশ্চিমবঙ্গে টেস্টেড এবং রিজেক্টেড, সিপিএমও টেস্টেড এবং রিজেক্টেড। স্বাধীনতার পর এই প্রথমবার একজনও বাম অথবা কংগ্রেসকে বাংলার মানুষ জেতায়নি। তাই পশ্চিমবঙ্গের মানুষ মনে করে তৃণমূলের হাত থেকে পরিত্রান পেতে একমাত্র বিকল্প বিজেপি।