সুশান্ত হত্যা মামলায় CBI কে সঠিক তথ্য দিচ্ছে না মুম্বাই পুলিশ!

সুশান্ত হত্যা মামলায় CBI কে সঠিক তথ্য দিচ্ছে না মুম্বাই পুলিশ!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ সুশান্ত হত্যা মামলায় CBI কে সঠিক তথ্য দিচ্ছে না মুম্বাই পুলিশ! সুশান্তের সঙ্গে তাঁর ম্যানেজার দিশার হত্যার কোনও যোগসাজশ আছে কিনা, তা নিয়ে তদন্তে নেমেছিল CBI। কিন্তু এতদিন তার কোনও হদিস পাওয়া যায়নি। এদিকে সুপ্রিম কোর্ট CBI কে সুশান্ত মৃত্যুরহস্যর জাল উন্মোচনের জন্য পূর্ণ দায়িত্ব দিয়েছেন। CBI রিয়া চক্রবর্তীকে জিজ্ঞাসাবাদ চালিয়েও যাচ্ছে।

আরও পড়ুনঃ চৌকিদারের নজর এড়িয়ে দেশ থেকে পলাতক ৩৮ জালিয়াত। স্বীকারোক্তি কেন্দ্রের।

সুশান্ত হত্যা মামলায় CBI কে সঠিক তথ্য দিচ্ছে না মুম্বাই পুলিশ! এই কেসে মোড় ঘুরিয়ে এক্স র অফিসার ,NK SOOD বলেন, “তাঁর নিজস্ব সুত্র এর দ্বারা তিনি দিশা সালিয়ানের মৃত্যুরহস্য কীভাবে হয়েছিলো এবং সুশান্তের মৃত্যুর সঙ্গে তাঁর যোগসাজশের কথা তুলে ধরবেন”। প্রাক্তন মহারাষ্ট্র মুখ্যমন্ত্রী নারায়ান রানেকে, এক্স র অফিসার NK SOOD প্রশ্ন তুলে বলেন, ১৪ তলা বিল্ডিং থেকে কেউ পড়ে গেলে কীভাবে পোস্টমর্টেম রিপোর্টে তাঁর গায়ে কোনও দাগ ছাড়া কেবল গপনাঙ্গ তে ক্ষত থাকে? মুম্বাই পুলিশ যদি CBI কে দিশা সালিয়ানের মৃত্যুর সঠিক তথ্য না দেয়, তবে কোনদিনই সুশান্তের আসল খুনিকে ধরা সম্ভব নয়।

অন্যদিকে বিহার পুলিশ আগেই জানিয়েছে যে, দিশা সালিয়ানের মৃত্যু কিভাবে হয়েছিল তা জানা না গেলে সুশান্তের কেসের সামাধান সম্ভব নই।তিনি তাঁর ইউটিউব ভিডিও তে বলিউড এর ১১ টি OPERATIONAL গ্যাং কে নিয়ে কথা বলেন। তাঁর কথাই দিশা সালিয়ান গ্যাং ও(O) এর দেওয়া একটি জাঁকজমকপূর্ণ পার্টিতে গিয়েছিলেন। সেখানে তিনি সুরজ পাঞ্চালীর নিমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে গিয়েছিলেন।

এইধরনের পার্টি সাধারণত নতুন অভিনেতা অভিনেত্রীদের সঙ্গে producer ও financiar দের আলাপ করানো হয়। এদের দ্বারা অনেকসময়ই নতুনরা বিভিন্নভাবে এক্সপ্লইডঢ হন। সুদ এও জানান যে , দিশা চাপে পড়েই পার্টি তে যান এবং সেখানে তাঁর সঙ্গে বাজে ব্যাবহার করা হয় ও পরে রেপ করা হয়। কোনোভাবে বাথরুম থেকে তিনি সুশান্তকে ফোন করেন। সুশান্ত সঙ্গে সঙ্গে ঐ পার্টি তে থাকা এক বন্ধুকে ফোন করেন। এরপরই সুশান্তের কাছে দিশার মৃত্যুর খবর পৌঁছই। সুদ সেই এপার্টমেন্ট টির নাম খুঁজে বের করেছেন,যেখানে দিশাকে মারা হয়েছিল বলে অভিযোগ। মুম্বাই এর মালাদের এই ১৪ তলা এপার্টমেন্ট টি একজন টিভি অভিনেতার নামে রয়েছে।

দিশা মুম্বাই এর দাদারে থাকতেন। কিন্তু সেদিনের ঘটনার পরে তাঁকে হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয় । বিনা সুইসাইড নোট ছাড়াই মুম্বাই পুলিশ ঘটনা টিকে আত্মহত্যা বলেছিল। অবশ্য পরে এটিকে অ্যাকসিডেন্ট বলে ফাইল বন্ধ করে দেন। সুদের অভিযোগ ,এইধরনের মার্ডার প্রফেশনাল কারও কাজ। মুম্বাই পুলিশ অ রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে এদের যোগসাজশ থাকে বলে জানান NK SOOD।সুদ এদিন মুম্বাই পুলিশ এর তীব্র সমালোচনা করে বলেছেন, সঠিক তথ্য লুকিয়ে তারা ভুল করছে। তাবর তাবর পুলিশ এর পেছনে রয়েছে বলেই তারা CBI কে ঠিকঠাক তথ্য দিচ্ছে না। এতে তারা জরিয়ে যেতে পারে বলে তাঁর দাবি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x