Sleeping Time Bra: রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?

রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?
রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?

নজরবন্দি ব্যুরোঃ রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? এ কথা কম-বেশি সব মেয়েই জানেন যে স্তনের আকার একটা বয়সের পর থেকে শিথিল হতে আরম্ভ করে প্রাকৃতিক ভাবেই। যাঁরা মোটামুটি নিয়ন্ত্রিত করেন, ওজন বাড়তে দেন না তেমনভাবে, ব্যায়াম করে শরীর টানটান রাখার চেষ্টা করেন তাঁদের স্তনের আকার বেশিদিন সুডৌল থাকে। উলটোদিকে আবার যাঁরা অল্প বয়স থেকে ওজন বাড়িয়ে ফেলেন, জীবনযাত্রায় কোনও নিয়ন্ত্রণও রাখেন না, তাঁদের স্তন তিরিশ পেরনোর আগেই শিথিল হয়ে পড়ে।

আরও পড়ুনঃ নারকেল তেল মেখে রাতে ঘুমাতে যান? অজান্তেই ক্ষতি হচ্ছে না তো

সেই সঙ্গে এটাও ঠিক যে আপনি কোন ধরনের ব্রা ব্যবহার করছেন, তার উপরেও অনেক কিছু নির্ভর করে। সব সময়েই ট্রায়াল দিয়ে ভালো মানের ব্রা কেনা উচিত। মাস ছয়েক পরার পর সাধারণত ব্রা আলগা হয়ে যায় – তখন তা বদলে ফেলুন নিয়ম করে। ব্রায়ের ফিটিং যেন পারফেক্ট হয়, সে ব্যাপারে সুনিশ্চিত হয়ে তবেই কেনা ভালো।

রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?
রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?

এখানে কথা হল রাতে ব্রা পরে শুতে যাওয়ার উপকারিতা আর অপকারিতা নিয়ে। এখন এই নিয়ে যদি কোনও বিতর্ক সভা হয়, তা হলে মহিলারা দুই ভাগে ভাগ হয়ে যাবেন। একদল বলবেন, আলবাত ব্রা পরে শুতে যাওয়া উচিত। কারণ এতে স্তনের আকার ঠিক থাকে। আবার অন্য দলও কম পিছিয়ে না গিয়ে বলবেন ইস, যত্ত ঝুট ঝামেলা। রাতে আরাম করে একটু শুতে যাব, এসব নিয়ে আরামের ঘুম হয় নাকি? শান্তি, শান্তি! ঝগড়া না করে আসুন দেখে নেওয়া যাক রাতে ব্রা পরে ঘুমানো আদৌ উচিত কিনা।

রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?
রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?

কিন্তু এর বাইরেও খুব জরুরি একটা বিতর্ক থেকে যায়। তা হল, রাতে শোওয়ার সময় কি ব্রা পরে থাকলে স্তনের আকার বেশিদিন ভালো থাকে? শোনা যায়, মেরিলিন মনরো নাকি এই মতে ঘোর বিশ্বাস করতেন এবং রাতে ব্রা পরেই শুয়েছেন সারা জীবন। এর উলটোদিকের মতটাও কিন্তু যথেষ্ট যুক্তিযুক্ত – আপনি যখন দাঁড়িয়ে বা বসে আছেন, তখন মাধ্যাকর্ষণ আপনার শরীরের সঙ্গে সঙ্গে স্তনের উপরেও কাজ করে। অন্তর্বাসের বন্ধন না থাকলে তা ক্রমশ নিচের দিকে নামতে থাকবে। কিন্তু বিছানায় চিৎ হয়ে বা পাশ ফিরে শুলে তো আর সে সমস্যা নেই! তাই রাতে ব্রা পরাটা বাতুলতা।

ব্রা পরে শুলে কী-কী হতে পারে:

রক্ত চলাচল ব্যাহত হয় : ব্রা শরীরের সঙ্গে চেপে বসে থাকে এবং রক্ত প্রবাহ স্তিমিত করে দেয়। বিশেষ করে যেগুলো ওয়্যার বা তার দেওয়া, সেগুলো পেকটোরাল পেশিকে শক্ত করে দেয়। স্পোর্টস ব্রা যারা পরে শুতে যান, তাঁদের স্তনের টিস্যু ক্ষতিগ্রস্ত হয়। 

রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?
রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?

ঘুমের ব্যাঘাত হয় : খুব টাইট জামাকাপড় পরে ঘুমলে যেমন অস্বস্তি হয়, সেরকম টাইট ব্রা পরে শুলেও অস্বস্তি হয়। এতে ঘুমের ব্যাঘাত হয়।

চুলকানি দেখা দিতে পারে : আপনি সুতির ব্রা পরছেন নাকি সিনথেটিক, সেটাও ভাবার বিষয়। যে-কোনও জিনিস যেটা বেশ লম্বা রাত ধরে আপনার শরীরের সঙ্গে চেপে বসে থাকলে চুলকানি দেখা দিতে পারে। চিকিৎসকরা বলছেন দীর্ঘদিন টাইট ব্রা পরে শুলে স্তনে সিস্টও দেখা দিতে পারে।

ছত্রাকজনিত সংক্রমণ দেখা দিতে পারে : গরমকালে ব্রা ঘামে ভিজে যায়। শীতকালেও চাপাচুপি দিয়ে শুলে মৃদু ঘাম হয়। এই ঘাম থেকে জীবাণু জন্ম নেয় যা পরে স্তনে ছত্রাক সংক্রমণ তৈরি করতে পারে।

রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?

রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?
রাতে ব্রা পরে ঘুমলে কি স্তনের আকার বেশিদিন ঠিক থাকে? নাকি আরও বেশি ক্ষতি হয়?

কিন্তু এমন অনেকে আছেন, যাঁরা রাতেও ব্রা পরে থাকতেই অভ্যস্ত। তাঁরা কি ঠিক করছেন না ভুল? এক কথায় এর উত্তর দেওয়া সম্ভব নয়। তবে বিশেষজ্ঞরা বলেন, এমন কিছু বেছে নিন যার স্ট্র্যাপ বা বাস্ট খুব টাইট নয় এবং আপনার ত্বকের উপর চেপে বসবে না। বিশেষ করে যাঁরা উপুড় হয়ে শুয়ে ঘুমোতে অভ্যস্ত এবং গুরুস্তনী, তাঁরা সাপোর্ট ব্রা পরে শুলে নিশ্চিতভাবেই উপকৃত হবেন।