লক্ষ্য ২১ এর নির্বাচন, জনসংযোগের উদ্দেশ্যে বিষ্ণুপুরে মিছিল করলেন শোভন-বৈশাখী

লক্ষ্য ২১ এর নির্বাচন, জনসংযোগের উদ্দেশ্যে বিষ্ণুপুরে মিছিল করলেন শোভন-বৈশাখী

নজরবন্দি ব্যুরো: লক্ষ্য ২১ এর নির্বাচন, বিজেপির আর নয় অন্যায় কর্মসূচিতে আজ দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিষ্ণুপুরে পথে নামলেন শোভন চট্টোপাধ্যায় ও বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। ডায়মন্ড হারবার লোকসভা কেন্দ্রের বিষ্ণুপুর থানা থেকে আমতলা কলোনি মাঠ পর্যন্ত রোড শো করেন শোভন, বৈশাখী। মিছিলে শোভন দাবি করেন,” বাংলাকে ধ্বংস করেছে মমতা ব্যানার্জী। বিজেপির হাত ধরেই তাঁর জন্ম। বাংলাতে তৃণমূলকে খুঁজে পাওয়া যাবে না।“  মিছিলে বাংলার রোমিও –জুলিয়েট এর সঙ্গে রয়েছেন বিজেপির দলীয় কর্মীরা।  

আরও পড়ুন: হেরে যাওয়ার ভয়েই নিজের ৭ বারের গড় ছেড়ে মেদিনীপুরে যাচ্ছেন মমতা: মুকুল 

সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে মমতা বন্দোপাধ্যায় নন্দীগ্রাম থেকে প্রার্থী হয়ে দাঁড়ানো প্রসঙ্গে কটাক্ষ করে শোভন চট্টোপাধ্যায় বলেন, “মানুষকে বিভ্রান্ত করেছে মুখ্যমন্ত্রী। মানুষ TMC এর থেকে আস্থা হারাচ্ছে। দশ বছরের আগের মমতা ও এখনকার মমতা একেবারেই আলাদা। তাই বাংলার মানুষ চাইছে তৃণমূলকে সরিয়ে বিজেপিকে নিয়ে আসতে। “ এদিন শোভন চট্টোপাধ্যায় আরও বলেন, আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে মানুষের কাছে দেওয়ার মতো উত্তর নেই। মানুষ এখন তৃণমূলের সরকারের প্রতি বিতশ্রদ্ধ। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মানুষের বিশ্বাস থেকে অনেক দূরে সরে গেছেন।’ অন্যদিকে শোভন বান্ধবী বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘বিজেপি ওয়াশিং মেশিন হলে তো ভালোই! বিজেপি সমস্ত কালিমাকে ধুয়ে দেবে। ওনার দলের স্তরবিন্যাস হল লোভি-ভোগী-ত্যাগী। ত্যাগীরা বিজেপিতে। লোভি-ভোগীদের পাঠাক আমরা পরিষ্কার করে নেব।’ মিছিল থেকে স্লোগান ওঠে, ‘ঘরে ঘরে পদ্ম, দিদিমণি জব্দ।’

লক্ষ্য ২১ এর নির্বাচন, পাশাপাশি আজ দক্ষিণ কলকাতায় রোড শো করেন হেভিওয়েট শুভেন্দু অধিকারী। সোমবার টালিগঞ্জ থেকে রাসবিহারী অবধি মিছিলের আয়োজন করা হয়েছে বিজেপির তরফ থেকে। এদিনের ট্যাবলোতে একসঙ্গে ছিলেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারী এবং বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এদিন মিছিলকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় দক্ষিণ কলকাতা। চারু মার্কেট থেকে মুদিয়ালি এলাকা অবধি ছোঁড়া হল ইট। এমনকি ছেঁড়া গেরুয়া শিবিরের পতাকা। প্রশ্ন উঠছে নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে। এদিন তৃণমূল কর্মীদের দিকে তেড়ে যাচ্ছে। এদিন মিরজাফর স্লোগান তোলা হয় শুভেন্দুকে লক্ষ্য করে। শুভেন্দুকে উদ্দেশ্য করে গো ব্যাক স্লোগান তোলা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x