আবার স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ মালদায়,পলাতক অভিযুক্ত

আবার স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ মালদায়,পলাতক অভিযুক্ত
আবার স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ মালদায়,পলাতক অভিযুক্ত

নজরবন্দি, মালদাঃ আবার স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ মালদায়। হাত পা মুখ বেঁধে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ। পাশাপাশি টানা দীর্ঘসময় বেঁধে রেখে যৌন নির্যাতন। পলাতক অভিযুক্ত। মালদার হরিশ্চন্দ্রপুরের কুমেদপুরের ঘটনা। প্রায় মালদহে এমন ঘটনা ঘটায় আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ।

আরও পড়ুনঃ ১৭ হাজার চাকরি রেডি আছে, বিকাশবাবুদের গিয়ে বলুন, আসানসোলের সভায় বললেন মমতা

উদবিগ্ন জেলা প্রশাসন। নির্যাতিতা ছাত্রী ও তাঁর পরিবারের অভিযোগ, রাতে শৌচকর্মের জন্যে ঘরের বাইরে বেরিয়েছিল ওই কিশোরী। সেই সময় ওই গ্রামেরই বাসিন্দা সুলতান আনসারি নামের এক যুবক তাঁকে পেছন থেকে জাপটে ধরে।

দ্রুত মুখে কাপড় গুঁজে দেয়। এরপর হাত পা মুখ বেঁধে তাঁকে তুলে নিয়ে যায় গ্রামের প্রান্তে একটি মাঠের মধ্যে। সেখানে হাত পা মুখ বাঁধা অবস্থায় যৌন নির্যাতন চালায় ওই যুবক। যন্ত্রনায় অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে তুলে নিয়ে যায় সুলতান আনসারি নিজের বাড়িতে।

সেখানে বারংবার তাঁকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। এরপর সুলতান আনসারি অল্প সময়ের জন্যে ঘরের বাইরে বেরোতেই ওই কিশোরী চিৎকার শুরু করে। অন্যদিকে তাঁকে খুঁজতে ততক্ষণে বেরিয়ে পড়েছে তাঁর বাড়ির লোকজন। ইতিমধ্যে গ্রামের অন্যান্যরাও জড়ো হয়ে যায়।

বেগতিক দেখে পালায় সুলতান আনসারি নামের ওই যুবক। দশম শ্রেণির ওই নির্যাতিতা ছাত্রীকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্যে স্থানীয় হাসপাতালে আনা হয়।

আবার স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ মালদায়,পলাতক অভিযুক্ত

অভিযোগ জানানো হয়েছে হরিশ্চন্দ্রপুর থানায়। পুলিশ ওই যুবকের খোঁজে তল্লাসি শুরু করেছে। স্থানীয় হাইস্কুলের দশম শ্রেণির ওই ছাত্রীর এমন ঘটনায় এলাকার মানুষের মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে।