কুনালের বাড়িতে বৈঠক রাজীবের, তবে কি কামব্যাকের পথে আরেক প্রাক্তনী?

কুনালের বাড়িতে বৈঠক রাজীবের, তবে কি কামব্যাকের পথে আরেক প্রাক্তনী?
কুনালের বাড়িতে বৈঠক রাজীবের, তবে কি কামব্যাকের পথে আরেক প্রাক্তনী?

নজরবন্দি ব্যুরোঃ কুনালের বাড়িতে বৈঠক রাজীবের, তবে কি কামব্যাকের পথে আরেক প্রাক্তনী? গতকালই সপুত্র বিজেপি থেকে তৃণমূলে ফিরে এসেছেন মুকুল রায়। মুকুল রায় তৃণমূলে ফেরার পরই সাংবাদিক বৈঠক থেকে চরমপন্থীদের নিয়ে কঠোর বার্তা দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমোমমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যদিকে নরমপন্থীদের কী হবে ?

আরও পড়ুনঃ দলে ফিরেই ‘কাজ’ শুরু চানক্য মুকুলের, ফোন বিজেপির সাংসদ-বিধায়কদের।

বিধানসভা নির্বাচনের সময় যারা দলের বিরুদ্ধে কুত্‍সা করেন নি খারাপ কথা বলেন নি তাদের বিরুদ্ধে দল নরম অবস্থান নিতে পারে ইঙ্গিত দিয়েছেন খোদ মমতা। যদিও সেই ব্যাপারে এখনও সরাসরি কিছু বলেননি তিনি। এদিকে রাজ্যের আরেক প্রাক্তন তৃণমূলী ভোটের আগে শুভেন্দুর সাথেই যোগ দেন বিজেপিতে। তিনি রাজ্যের প্রাক্তন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্ত ভোট মিটতেই বেসুর গাইতে শুরু করেন তিনি। ইশারা দেন তৃণমূলে ফেরার। কিছুদিন আগেই সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর পোস্ট সেই জল্পনা আরও উস্কে দেয়।

যেখানে তিনি লেখেন “সমালোচনা তো অনেক হল… মানুষের বিপুল জমসমর্থন নিয়ে আসা নির্বাচিত সরকারের সমালোচনা ও মুখ্যমন্ত্রীর বিরোধিতা করতে গিয়ে কথায় কথায় দিল্লি, আর ৩৫৬ ধারার জুজু দেখালে বাংলার মানুষ ভালভাবে নেবে না। আমাদের সকলের উচিত রাজনীতির ঊর্ধ্বে উঠে, কোভিড ও ইয়াস এই দুই দুর্যোগে বিপর্যস্ত বাংলার মানুষের পাশে থাকা।” এক পোস্টেই বিজেপির সমালোচনা ও তৃণমূলের প্রশংসা করেন তিনি। কিন্তু গতকাল গদ্দার নিয়ে মমতার ঘোষণার পরেই সেই জল্পনা ধাক্কা খায়। এদিকে সূত্রের খবর আজ বিকেল সাড়ে পাঁচটা নাগাদ তৃণমূল মুখপত্র কুনাল ঘোষের বাড়িতে গিয়ে বৈঠক করেন রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। তারপর থেকেই দলে ফেরার জল্পনায় ঘৃতাহুতি পড়েছে।

কুনালের বাড়িতে বৈঠক রাজীবের, তবে কি কামব্যাকের পথে আরেক প্রাক্তনী? যদিও রাজীব নিজে বৈঠকের কথা উড়িয়ে দিলেও রাজনৈতিক মহল মনে করছে দলের সুপ্রিমোর অনুমতি মিললেই ফের অদূর ভবিষ্যতে ঘাস্ফুল শিবিরের সদস্য হিসেবে দেখা যেতে চলেছে তাঁকে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here