প্রার্থী ভূমিপুত্র চায়! অন্যথায় ভোটে সাপ-লুডো খেলার হুঁশিয়ারি দিয়ে ফ্লেক্স বর্ধমানে

প্রার্থী ভূমিপুত্র চায়! অন্যথায় ভোটে সাপ-লুডো খেলার হুঁশিয়ারি দিয়ে ফ্লেক্স বর্ধমানে
প্রার্থী ভূমিপুত্র চায়! অন্যথায় ভোটে সাপ-লুডো খেলার হুঁশিয়ারি দিয়ে ফ্লেক্স বর্ধমানে

নজরবন্দি ব্যুরোঃ প্রার্থী ভূমিপুত্র চায়! বহিরাগত নয়।এই মর্মে পোস্টার পড়ছে বর্ধমানের জামালপুরে। বাংলায় বহিরাগত বলতে শাসক দলের তরফ থেকে বিজেপির দলীয় নেতৃত্বদেরই কথা উঠে আসে। বাংলার শাসক দল বরাবরই নিজের ঘরে লোকেদের দিয়েই লড়িয়ে এসেছে নির্বাচন। বিজেপিকে কটাক্ষ করে ২১ এর নির্বাচনের আগে তৃণমূলের স্লোগান উঠেছে “বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়।” এই নিয়ে গোটা রাজ্য জুড়ে প্রচার চলছে জোর কদমে।

আরও পড়ুনঃ নন্দীগ্রামে নির্বাচনের জন্যে ২টি কার্যালয় খুলছে তৃণমূল, নেতৃত্বে স্বয়ং নেত্রী।

এর মাঝেই আসন্ন নির্বাচবনে প্রার্থী হিসেবে নিজেদের ‘ভূমিপুত্র’র দাবীতে পোস্টার পড়লো পুর্ব বর্ধমানের জামালপুরে। অন্যথায় ভোটের দিন সাপ-লুডো খেলা দেখাবে বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছেন সেখানের জনগন। নির্বাচনের দিন এগিয়ে আসলেও এখনও পর্যন্ত কোন দলই নিজেদের প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেনি। তাঁর আগেই শাসক দলকে শাসিয়ে এই পোস্টার পড়েছে।

সূত্রের খবর, আজই তৃণমূলের প্রার্থী তালিকা ঘোষণা হবে ভেবেই গতকাল মধ্যরাতে এলাকা জুড়ে এই পোস্টার দেন স্থানীয় বাসিন্দারা। ঘটনায় একটু পিছনে গেলে দেখা যাবে বহু বছর ধরে জামালপুর কেন্দ্র থেকে স্থানীয় কাউকেই প্রার্থী করেনি দল। কংগ্রেসের আমলে বর্ধমান নিবাসী পুরঞ্জয় প্রামাণিক জামাপুরের প্রার্থী হতেন। তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পড়ে অন্যথা হয়নি সে ধারায়। । ২০১১ সালের পর ২০১৬-র বিধানসভা নির্বাচনেও বর্ধমানের প্রামাণিক পরিবারে উজ্জ্বল প্রামাণিক জামালপুর বিধানসভায় তৃণমূল প্রাথী হিসেবে ভোটে লড়েন। 

কিন্তু কখনোই জামালপুরের স্থানীয় কাউকে প্রার্থী করা হয়নি কনভচাবেই। এ নিয়ে আগেও বিক্ষোভ দেখিয়েছেন এলাকার মানুষ। প্রতিবার বাইরে থেকে মানুষ এসে নির্বাচন লড়েন। এবার নিজেদের ঘরের ছেলেকে প্রার্থী চেয়ে সরব হয়েছেন তাঁরা। ‘বহিরাগত নয় ভূমিপুত্র’ পোস্টারে ছেয়ে আছে জামালপুর বাজার, বাসস্ট্যাণ্ড, হালাড়া-সহ বেশ কিছু জায়গায়। কোথাও লেখা আছে, ‘পূর্ব বর্ধমানের জামালপুর বিধানসভার নাগরিকরা ডিটেনশন ক্যাম্পের বাসিন্দা নন। এখনও সময় আছে। প্রার্থীর নাম ঘোষণার আগে তৃণমূলের নেতারা সাবধান হোন। এ বারও যদি বহিরাগত কাউকে জামালপুর বিধানসভায় প্রার্থী করা হয়, পরিণাম ভয়ংকর হবে। ভোটের দিন সাপ-লুডো খেলা খেলে দেবেন জামালপুরের জনগণ’।
কোথাও লেখা আছে ‘জামালপুরবাসীর একটাই রায়—জামালপুর বিধানসভায় তৃণমূল কংগ্রেস থেকে ভূমিপুত্র প্রার্থী চাই’। সবক’টি ফ্লেক্সের নীচেই লেখা হয় ‘সৌজন্যেঃ জামালপুর বাসী’।

প্রার্থী ভূমিপুত্র চায়! ঘটনার প্রেক্ষিতে জামালপুরের তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা বনলছেন অন্য কথা। তাঁর দাবী রাতের অন্ধকারে এলাকাবাসীর নাম করে একাজ করেছে বিজেপি। তাঁর বক্তব্য, “রাজ্যের ২৯৪টি আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেই প্রার্থী ধরে নিয়ে ভোটে লড়ব আমরা। আমাদের স্লোগান বাংলা নিজের মেয়েকেই চায়।” যদিও স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব স্বীকার করেনি এই অভিযোগ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here