Partha Chaterjee: জামিন চেয়ে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন পার্থ, পিংলার স্কুলে হানা ইডির

নজরবন্দি ব্যুরোঃ পিংলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রীর নামাঙ্কিত স্কুলে ইডির হানা। বুধবার সমস্ত কাগজপত্র খতিয়ে দেখতে উপস্থিত হয়েছে ইডির ৫ জনের৪ একটি টিম। ইতিমধ্যেই তাঁরা স্কুলের প্রধান শিক্ষিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে শুরু করেছে। নজরে রয়েছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জামাই কল্যাণময় ভট্টাচার্য।অন্যদিকে, আজই জামিন চেয়ে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন পার্থ।

আরও পড়ুনঃ Mamata Banerjee: পুলিশ চাইলেই গুলি চালাতে পারত, বিজেপির নবান্ন অভিযান নিয়ে মন্তব্য মমতার

শিক্ষাক্ষেত্রে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় এখন ইডি হেফাজতে। এখন প্রেসিডেন্সি জেল তাঁর ঠিকানা। এরই মধ্যে ইডির নজরে পিংলার বিসিএম স্কুল। যা পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের স্ত্রী বাবলী চট্টোপাধ্যায় নামাঙ্কিত। পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের গ্রেফতারির পর এই স্কুল বন্ধ ছিল। এখন আবার স্কুল খুলতেই তা ইডির নজরে।

জামিন চেয়ে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন পার্থ, ইডির নজরে পিংলার স্কুল 
জামিন চেয়ে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন পার্থ, ইডির নজরে পিংলার স্কুল 

অন্যদিকে, এদিন জেল হেফাজতের মেয়াদ শেষ হচ্ছে পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের। আজই আদালতে ভার্চুয়ালি উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে তাঁর। এদিন জামিন চেয়ে আদালতের সামনেই কেঁদে ফেললেন পার্থ ও অর্পিতা। কিন্তু দুই জনকে ফের হেফাজকতে নেওয়ার দাবিতে সরব ইডি। ইডির তরফে জানানো হয়েছে, দুর্নীতির অঙ্কের পরিমাণ প্রায় ১০০ কোটি টাকা। সেই টাকার পরিমাণ বাড়তে পারে।

যদিও পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের দাবি, তিনি এটা কিছুই জানতেন না। আমি একজন পাবলিক সারভেন্ট। দরকার হলে আমার বাড়ি গিয়ে দেখুন। একইসঙ্গে পার্থ চট্টোপাধ্যায় ঘনিষ্ঠ অর্পিতা মুখ্যোপাধ্যায়ের দাবি তিনি এই টাকা সম্পর্কে অবগত নন। তাহলে বাড়িটা কারা? প্রশ্ন বিচারকের।

জামিন চেয়ে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন পার্থ, ইডির নজরে পিংলার স্কুল 

জামিন চেয়ে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন পার্থ, ইডির নজরে পিংলার স্কুল 
জামিন চেয়ে আদালতে কান্নায় ভেঙে পড়লেন পার্থ, ইডির নজরে পিংলার স্কুল 

৫৪ দিন হেফাজতে রেখে কী পেয়েছেন? ইডির তরফে বলা হয়েছে, নিয়োগ দুর্নীতির কালো টাকা সাদা করা হয়েছে বিসিএম স্কুলে। অর্থাৎ নিয়োগ দুর্নীতির টাকা সেখানেই খরচ করা হয়েছে।