এবছর দোলায় আসছেন মা দুর্গা , আরও নাকি ভয়ঙ্কর হতে পারে করোনা পরিস্থিতি!

এবছর দোলায় আসছেন মা দুর্গা , আরও নাকি ভয়ঙ্কর হতে পারে করোনা পরিস্থিতি!

নজরবন্দি ব্যুরো: এবছর দোলায় আসছেন মা দুর্গা , মা আসছেন কৈলাস থেকে। সঙ্গে আসছেন তার ছেলেমেয়ে ও বাহনবাহিনী। তবে দেবী মর্তে আসছেন না নিজের বাহন এ চেপে। তার মর্তে আসার যানবাহন ভিন্ন। মা দুর্গা ধরাধামে কোন বছর কিসে চেপে আগমন করছেন তার ওপর নাকি নির্ভর করে বছরটা কেমন কাটবে।

আর পড়ুনঃ জীবন যুদ্ধে জোর ফাইট দিচ্ছেন ‘ফেলুদা’, সুস্থ হচ্ছেন ধীরে ধীরে।

সাধারণত দেবী ধরাধামে যাতে চেপে আগমন করেন, সেটিতে করে গমন করেন না।যদি কোন বছর সেই রকম কিছু হয় তার ফল নাকি অতি ভয়ঙ্কর।দেবী কিসে চেপে আগমন করছেন আর কোন বাহনে চেপে তিনি কৈলাসে গমন করছেন তা জানা যায় পুজোর শুরু সপ্তমী ও পুজো শেষ দশমীর বার এর উপর নির্ভর করে। পুজো শুরু সপ্তমী, সপ্তাহের যেই বারে সপ্তমী পরে তা বলে দেয় দেবীর আগমনের বাহন।

এবং পুজো শেষ হয় দশমীতে, দশমী সপ্তাহের যেই বার এ পরে তার উপর নির্ভর করে দেবী কিসে গমন করবেন কৈলাস‌ এ। শাস্ত্রে বলা আছে, ‘রবি চন্দ্রে গজারূঢ়া,ঘোটকে শনি ভৌময়োঃ, গুরৌ চন্দ্রে চলে দোলায়াং, নৌকায়াং বুধবাসরে।’ অর্থাৎ দেবীর বাহন গজ হবেন, সপ্তমী যদি রবি অথবা সোমবার হয়। সপ্তমী যদি শনি অথবা মঙ্গলবার হয় তবে দেবীর বাহন হবেন ঘোটক।

সপ্তমী যদি শুক্রবার অথবা বৃহস্পতিবার হয় তবে দেবীর বাহন পালকি বা দোলা। দেবীর বাহন নৌকা যদি সপ্তমী বুধবার হয়।সেই একই নিয়মে বিজয় দশমী সপ্তাহের যেই বারে পরবে সেই বার অনুযায়ী স্থির হয় দেবীর কৈলাস গমনের বাহন।এই বছর ২৩ শে অক্টোবর, শুক্রবার। তাই দেবীর ধরাধামে আগমন দোলায়। আর বিজয় দশমী ২৬ শে অক্টোবর, সোমবার। তাই দেবী গমন করবেন গজ এ।

এবছর দোলায় আসছেন মা দুর্গা , বলা হয় দেবীর আগমন যদি দোলায় হয় তবে, ধরাধামে ভূমিকম্প, মহামারী, মৃত্যু, যুদ্ধ ও খরা হয়। ভয়ংকর মহামারী চিহ্নিত করে দোলা বা পালকি। যাতে প্রাণহানি হয় বিপুল পরিমাণে। এই করোনা পরিস্থিতিতে দেবী দুর্গার আগমন অবশ্যই বাড়াচ্ছে চিন্তা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

x