এবার আফগানিস্তান সীমান্ত রক্ষা করবে মানববোমা বাহিনী!

এবার আফগানিস্তান সীমান্ত রক্ষা করবে মানববোমা বাহিনী!

নজরবন্দি ব্যুরোঃ পরনে বিস্ফোরক ভরতি পোশাক, হাতে ডিটোনেটরস, আফগান সীমান্তে মোতায়েন ‘মানববোমা’। তালিবানের এই বিশেষ বাহিনীর হাতেই তুলে দেওয়া হচ্ছে দেশের সীমান্তের দায়িত্ব। বিশেষ করে তাজাকিস্তান সীমান্ত বরাবর মোতায়েন করা হচ্ছে মনসুর বাহিনীকে। বাদাখশান প্রদেশের গভর্নর মোল্লা নিশার আহমেদ আহমেদি জানিয়েছে, আত্মঘাতী হামলা চালানোর জন্য বিশেষভাবে প্রশিক্ষিত এই দলটি লস্কর-ই-মনসুর বা মনসুর সেনা নামে পরিচিত।

আরও পড়ুনঃ লাল ফৌজকে উচিৎ জবাব দিতে, এবার সীমান্তে ‘কে-৯ বজ্র’ মোতায়েন করল ভারত

বিশেষভাবে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত এই বাহিনী নিজেদের মানববোমায় পরিণত করতে পারে যে কোনও সময়। এবার বাদাখশান প্রদেশের চিন ও তাজিকিস্তান সীমান্তে মোতায়েন করা হচ্ছে তাদের।উল্লেখ্য পূর্ববর্তী আফগান সরকারের সেনার ওপর মনসুর সেনাই ক্রমাগত হামলা চালিয়েছিল। আমেরিকার বহু ঘাঁটি উড়িয়ে দিয়েছে মনসুর সেনা।

এবার আফগানিস্তান সীমান্ত রক্ষা করবে মানববোমা বাহিনী!

এ ছাড়াও কাবুল বিমানবন্দরের দায়িত্বে রাখা হয়েছে তালিবানের নয়া কমান্ডো ইউনিট বদরি-৩১৩ ব্যাটেলিয়নকে। এই বাহিনীর প্রশংসা করে মোল্লা নিশার আহমেদ আহমেদি আরও বলেন, এই বিশেষ বাহিনী ছাড়া আমেরিকার বিরুদ্ধে জয় সম্ভব হত না। বিস্ফোরক ভরতি পোশাক পরে গোটা দেশের মার্কিন সেনা তাঁবুগুলিতে হামলা চালাত তারা।

মনসুর বাহিনী

এবার আফগানিস্তান সীমান্ত রক্ষা করবে মানববোমা বাহিনী!

বিস্ফোরণ ঘটিয়ে মার্কিন সেনা এবং তাদের সম্পত্তির ক্ষতিও করা হয়েছে। এই বাহিনীর সৈন্যরা ভয়ডরহীন হয়ে আল্লার জন্য লড়াই করে। চিন ও তাজিকিস্তান সীমান্তে এই বাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত যথেষ্ট তাত্পার্যপূর্ণ বলে মনে করছে বিশ্বের কূটনৈতিক মহলের একাংশ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here