প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে করোনাতে কাজ, দলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সাংবাদিকদের ‘কোভিডযোদ্ধা’ সম্মান মমতার

প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে করোনাতে কাজ, দলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সাংবাদিকদের 'কোভিডযোদ্ধা' সম্মান মমতার
প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে করোনাতে কাজ, দলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সাংবাদিকদের 'কোভিডযোদ্ধা' সম্মান মমতার

নজরবন্দি ব্যুরোঃ প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে করোনাতে কাজ, দলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সাংবাদিকদের ‘কোভিডযোদ্ধা’ সম্মান মমতার। আজ তিনি বিদায়ী মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ইস্তফা পত্র দেবেন,তার পর নতুন করে শুরু হবে তৃতীয় বারের জন্য শপথ নেওয়ার আয়োজন। তার আগেই দুপুরের সাংবাদিক বৈঠকের পর জয়ী প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনায় বসেছেন তিনি। তবে দলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগেই সকল সাংবাদিকদের কোভিডযোদ্ধা সম্মান দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুনঃ নন্দীগ্রামে পুনর্গণনা হলে হুমকি প্রাণনাশের! রিটার্নিং অফিসারের বার্তা সামনে এনে বিস্ফোরক মমতা

জয়ী হওয়ার পরেই কালকের প্রথম সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেছিলেন, বিজয় মিছিল নয়, উল্লাস নয়, এই মুহুর্তে প্রথম প্রায়োরিটি কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলা করা, তিনি এও জানান পরিস্থিতি সুস্থ হলে বিজয় অনুষ্ঠান হবে ব্রিগেডের মাঠে তবে তার আগে মোকাবিলা করতে হবে এই চরম সংকট ময় পরিস্থতি। আর এই সঙ্কগকট ময় পরিস্থিতিতে সাংবাদিকরা যেভাবে প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছেন, সে কারণে নিজের দলীয় সিদ্ধান্ত গ্রহণের আগেই সাংবাদিকদের ঘোষণা করেন কোভিড যোদ্ধা হিসেবে।

আজ সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী জানান, “দলের সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আমার যত সাংবাদিক বন্ধুরা আছেন, তাঁদের আমি কোভিড যোদ্ধা ঘোষণা করছি। আপনারা জানেন, যাঁরা করোনার বিরুদ্ধে লড়ছেন তাঁরা প্রত্যেকেই কোভিডযোদ্ধা। করোনায় অনেক সাংবাদিক প্রাণ হারিয়েছেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত তাঁদের কোভিড যোদ্ধা ঘোষণা করা হয়নি। আমরা অবশ্য সাংবাদিকদের অনেকভাবেই হেল্প করি। আমাদের সবকিছুই আছে। তবে যাওয়ার আগে আমি একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগেই বলেছিলাম, কোভিডের বিরুদ্ধে মোকাবিলা আমার প্রথম প্রায়োরিটি। আর সাংবাদিকদের প্রাণের ঝুঁকি নিয়েই কাজ করতে হয়। তাই সমস্ত সাংবাদিকদের কোভিডযোদ্ধা ঘোষণা করছি। মুখ্যসচিবকে বলছি বিষয়টি নোট করে নিতে।”

সঙ্গে যে সাংবাদিকরা সরকারি অনুমোদন প্রাপ্ত নন, তাঁদের বিষয়টিও পরে আলোচনা করে দেখে নেওয়া হবে বলেও জানান তিনি। প্রসঙ্গত, এর আগে রাজ্য সরকারের তথ্য ও সংস্কৃতি বিভাগ সরকারি অ্যাক্রেডিটেশন প্রাপ্ত সাংবাদিক ও চিত্র সাংবাদিকদের জন্য এনেছিল স্বাস্থ্য বিমা প্রকল্প ‘মাভৈঃ’। তার পরে এবার সাংবাদিক দের কোভিড যোদ্ধা সম্মান দিলেন তিনি।

আজ সোমবার কালীঘাটে সাংবাদিক বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কালকের নন্দীগ্রামের ভোট গণনার বিষয়েও বিস্ফোরক মন্তব্য করেছেন। তিনি জানিয়েছেন, “কাল অনেক রাতে নন্দীগ্রামের রিটার্নিং অফিসারের একজনকে পাঠানো একটি মেসেজ আমার কাছে এসেছে। সেটাতেই স্পষ্ট যে ওখানে ঠিক কী হয়েছে।” রিটার্নিং অফিসারের সঙ্গে কোন অজ্ঞাত পরিচয় ব্যাক্তির ম্যাসেজ সামনে আনেন, ‘‘বন্দুকের নলের মুখে কাজ করতে হচ্ছে। পুনর্গণনার নির্দেশ দিলে প্রাণে মেরে ফেলা হতে পারে আমাকে।’’ আজকের সাংবাদিক বৈঠক থেকে তিনি আরও একবার জানিয়েছেন ঘটনা নিয়ে আদালতে যাবেন তিনি। ততক্ষণ পর্যন্ত ভিভিপ্যাট, ব্যালট এবং ইভিএম আলাদা আলদা ভাবে সরিয়ে রাখতে হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here