এটা বড় ক্রাইম, প্রয়োজনে ডিভিসির থেকেই ‘ক্ষতিপূরণ’ চাইবেন মুখ্যমন্ত্রী

এটা বড় ক্রাইম, প্রয়োজনে ডিভিসির থেকেই 'ক্ষতিপূরণ' চাইবেন মুখ্যমন্ত্রী
এটা বড় ক্রাইম, প্রয়োজনে ডিভিসির থেকেই 'ক্ষতিপূরণ' চাইবেন মুখ্যমন্ত্রী

নজরবন্দি ব্যুরোঃ বাংলার বন্যাকে ম্যান মেড আখ্যা দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। গতকাল মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, “এটা ম্যান মেড বন্যা। ঝাড়খণ্ডে বেশি বৃষ্টি হয়েছে। রাত তিনটের সময় না জানিয়ে জল ‌ছেড়েছে ডিভিসি৷ সেই জন্যই বন্যা হচ্ছে। বাঁকুড়া জেলা পুরো ডুবে গিয়েছে, বর্ধমান ভাসছে। ওই জল আসছে হাওড়া-হুগলিতে।” আর আজ আকাশপথে পরিদর্শনে বেরিয়ে তিনি বললেন, এটা বড় ক্রাইম, প্রয়োজনে ডিভিসির থেকেই ক্ষতিপূরণ চাইবেন।

আরও পড়ুনঃ জ্বর শ্বাসকষ্ট নিয়ে ২৪ ঘণ্টায় মৃত ৭ শিশু, ভাইরাল নিউমোনিয়ায় মৃত্যুমিছিল উত্তরবঙ্গে।

গতকাল মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, “রাত তিনটের সময় না জানিয়ে জল ‌ছেড়েছে ডিভিসি৷ সেই জন্যই বন্যা হচ্ছে।” গলকালের কথামতই এদিন দুপুরে বন্যা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বেরিয়ে পড়েন মমতা। এদিন হাওড়ার ডুমুরজোলা থেকে হেলিকপ্টারে ওঠেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আরামবাগে নামেন দুপুর একটা নাগাদ। সেখান বন্য পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে বলেন, এটা বড় ক্রাইম করেছে ডিভিসি।

তাঁর কথায়, ডিভিসি প্রায় সাড়ে পাঁচ লক্ষ কিউসেক জল ছেড়েছে। মধ্যরাতে এই জল ছাড়ার কথা রাজ্য সরকারকে জানানো হয়নি। তিনি জানিয়েছেন, ক্ষতিপূরণ দাবি করতে পারে রাজ্য সরকার। চিঠিতে যা লেখার লিখবেন বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী।  শেষে বন্যা কবলিতদের পাশে থাকার বার্তা দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এটা বড় ক্রাইম, প্রয়োজনে ডিভিসির থেকেই ‘ক্ষতিপূরণ’ চাইবেন মুখ্যমন্ত্রী

এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে ‘ম্যান মেড বন্যা ইস্যুতে’ একযোগে আক্রমণ শানিয়েছেন বিরোধীরা। যদিও সেই বিরোধিতায় কর্ণপাত করেননি মুখ্যমন্ত্রী। আপাতত কিভাবে বন্য কবলিতদের পুজোর আগে স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে আনা যায় তা নিয়ে বৈঠকে বসবেন মমতা। এদিকে মুখ্যমন্ত্রীর হুশিয়ারির পর শনিবার সকালে দুর্গাপুর ব্যারেজ থেকে জল ছাড়ার পরিমাণ কমানো হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here